২০ মার্চের ভিডিও ছড়ালো লকডাউন বিধিভঙ্গ করে মুসলিমরা নামাজ পড়ছে বলে

বুম দেখে ভাইরাল ক্লিপটি ২০ মার্চ ২০২০ তোলা একটি বড় ভিডিওর কাটছাঁট করা অংশ। ভিডিও রেকর্ডকারী তারিখ উল্লেখ করেন ওই ভিডিওতে।

২০ মার্চ ২০২০ তোলা একটি ভিডিওতে দিল্লির একটি দরগার সামনের রাস্তায় মুসলমানদের নামাজ পড়তে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওটি এই মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে যে, লকডাউনে বড় জমায়েত নিষিদ্ধ করা হলেও, তাঁরা সেই বিধি নিষেধ উপেক্ষা করছেন।

ভিডিওটি পূর্ব দিল্লির পটপড়গঞ্জ এলাকায় তোলা হয়। তাতে দেখা যাচ্ছে, একটি দরগার সামনে মুসলমানরা একত্রিত হয়ে নামাজ পড়ছেন আর কয়েকজন পুলিশ দূরে দাঁডিয়ে পাহারা দিচ্ছেন। যিনি ভিডিওটি রেকর্ড করছেন, তাঁকে ওই পুলিশদের সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করতে শোনা যাচ্ছে।

বুম দেখে ভাইরাল ভিডিওটি একটি বড় ভিডিওর কাটছাঁট-করা সংস্করণ। সেটি ২০ মার্চ ২০২০-তে তোলা হয়। রেকর্ডকারী নিজেই তারিখটা উল্লেখ করেছেন।

২৫ মার্চ ২০২০ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেন। এখন সেই লকডাউনের চতুর্থ পর্যায় চলছে,যার মেয়াদ শেষ হবে আগামী ৩১ মে।

ভিডিওটি হিন্দি ক্যাপশন সহ শেয়ার করা হচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, "এই হল অবস্থা। দিল্লির পটপড়গঞ্জ রোডের একটি মসজিদে প্রকাশ্য দিবালোকে আইন ভাঙ্গা হচ্ছে। আর অরবিন্দ কেজরিওয়াল পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য সকলের পরামর্শ চাইছেন। কেজরিওয়ালের লজ্জিত বোধ করা উচিৎ।"

(হিন্দিতে লেখা বয়ানটি এই রকম: "यह हालात दिल्ली के पटपड़गंज के रोड पर जो मस्जिद बनी हुई है उस पर सरेआम कानून की धज्जियां उड़ाई जा रही है और अरविंद केजरीवाल बोल रहे हैं कि आप हमें सुझाव दो हमें क्या करना चाहिए शर्म आनी चाहिए केजरीवाल को")
১.০৪ মিনিটের এই ভিডিওটিতে বেশ কিছু মুসলমানন ধর্মাবলম্বী লোককে একটি দরগার সামনের রাস্তায় হাঁটুগেড়ে প্রার্থনা করতে দেখা যায়। এর পর ক্যামেরাটি ঘুরিয়ে দেখানো হয় রাস্তার একদিকে মুসলমানেরা নামাজ পড়ছেন আর অন্য দিকে স্বাভাবিক ভাবেই গাড়ি চলাচল করছে। এর পরই ভিডিও রেকর্ডকারী প্রশ্ন করেন যে, নামাজ পড়ার জন্য কেন অনুমতি দেওয়া হয়েছে, যখন "করোনাভাইরাসকে সকলেই ভয় পাচ্ছেন"। এর পরই ওই জমায়েত হতে দেওয়ার জন্য তিনি দিল্লি পুলিশের সমালোচনা করেন।
পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
তথ্য যচাই

হিন্দি হরফে 'পটপড়গঞ্জ নামাজ', এই শব্দ দু'টি দিয়ে বুম ইন্টারনেটে সার্চ করলে দেখে, ভারতীয় জনতা পার্টির দিল্লির সোশাল মিডিয়া শাখার প্রধান অভিষেক দুবে একই ভিডিও টুইট করেন।

২০ মার্চ ২০২০-তে দুবে ভিডিওটি টুইট করেন। ভাইরাল ভিডিওর একটি বড় সংস্করণ সেটি। তার ১৪ সেকেন্ডের মাথায় রেকর্ডকারী বলেন, "এটা হচ্ছে আজকের ভিডিও, ২০ তারিখের।" ভাইরাল ভিডিওতে এই অংশটি কেটে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে, যাতে সেটিকে সাম্প্রতিক মনে হয়।

দিল্লিতে লকডাউন সংক্রান্ত খবর খোঁজ করে দেখা যায় যে, মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ২৩ মার্চ দিল্লিতে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেন। এবং ২৫ মার্চ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সারা দেশে লকডাউন জারি করেন। ভাইরাল ভিডিওটি ২০ মার্চ তোলা হয়। অর্থাৎ, দিল্লিতে বা সারা দেশে লকডাউন শুরু হওয়ার আগে।

বুম দিল্লি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তাঁরা পূর্ব দিল্লির পুলিশ কমিশনারের টুইট দেখান। সেখানে একজনের প্রশ্নের উত্তরে বলা হয় যে, ওই ভিডিওটি পুরনো।

তাছাড়া, দিল্লির খবরের চ্যানেল 'পি২৪নিউজ'-এর একটি রিপোর্ট বুমের চোখে আসে। যে জায়গায় দরগাটি আছে এবং যেখানে ভিডিওটি তোলা হয়, সেই জায়গা ঘুরে দেখে ভাইরাল ভিডিওটির দাবি নস্যাৎ করে দেয় ওই চ্যানেলটি।

চ্যানেলের সংবাদদাতার তোলা ছবিতে দেখা যায়, দরগাটি বন্ধ আছে এবং উনি জানান যে, পটপরগঞ্জ মেন রোড পুলিশ বন্ধ করে রেখেছে। ফলে, ওই রাস্তায় কোনও গাড়ি চলাচল করছে না। একজন স্থানীয় মানুষ ওই সংবাদদাতাকে বলেন, লকডাউন ঘোষণা হওয়ার পর থেকে ওই দরগা বন্ধই আছে এবং সেখানে কোনও নামাজ পড়া হেচ্ছে না। তিনি আরও বলেন, "শেষ নামাজ পড়া হয় লকডাউনের আগের দিন। সেই থেকে কোনও প্রার্থনা বা জমায়েত এখানে হয়নি।"

ভিডিওটি নীচে দেখুন।

Updated On: 2020-05-19T10:58:31+05:30
Claim Review :   ভিডিও দেখায় দিল্লির পটপরগঞ্জে মুসলিমরা লকডাউন অমান্য করে নামাজ পড়ছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story