পশ্চিমবঙ্গের লকডাউন নিয়ে বিভ্রান্তিকর সাম্প্রদায়িক গ্রাফিক ভাইরাল

বুম দেখে মনসা পুজোর দিন রাজ্য সরকারের কোনও ছুটি নেই। ভূমি পূজার দিন কেন্দ্রীয় সরকার কোনও ছুটি ঘোষনা করেনি।

ফেসবুকে পশ্চিমবঙ্গের সরকারের লকডাউন ঘোষনা নিয়ে সাম্প্রদায়িক রঙ লাগিয়ে বিভ্রান্তিকর গ্রাফিক শেয়ার করা হচ্ছে। ওই পোস্টে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের সরকার উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আগস্ট মাসে কেবল হিন্দুদের ধর্মীয় উৎসবের দিনগুলিতেই সাপ্তাহিক লকডাউন ঘোষণা করেছে।

বুম যাচাই করে দেখেছে দাবিটি বিভ্রান্তিকর। বুম দেখে মনসা পুজো এবং গনেশ চতুর্থীর দিন যথাক্রমে ১৭ এবং ২২ আগস্ট লকডাউন থাকলেও রাখি পূর্ণিমা ও জন্মাষ্টমীতে যথাক্রমে ৩ এবং ১১ আগস্ট কোনও লকডাউন নেই।

কোভিড-১৯ রুখতে আনলক-৩ পর্বে কেন্দ্রীয় সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের ২৯ জুলাইয়ের নির্দেশের পাশাপাশি পৃথকভাবে ৩০ জুলাই বৃহঃস্পতিবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে মুখ্য সচিব নতুন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন। এই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ৩১ অগস্ট পর্যন্ত যেকানও ধরণের সামাজিক, রাজনৈতিক, খেলাধুলো, বিনোদন, শিক্ষাসংক্রান্ত, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও বড় মাপের জমায়েত নিষিদ্ধ। শনিবারের ইদুজ্জোহার নামাজ ও উৎসবে সুরক্ষাবিধি মেনে জমায়েত না করার অনুরোধ জানিয়েছে রাজ্যের ইমাম ও ধর্মীয় সংগঠনের প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব।

আরও পড়ুন: এক নজরে দেখে নিন ৩১ অগস্ট পর্যন্ত রাজ্যের সর্বশেষ লকডাউন বিধি

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া গ্রাফিটিতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করে লেখা হয়েছে, "TMC=Totally Muslim Community রাখি পূর্নিমায় বন্ধ, জন্মাষ্টমীতে বন্ধ, রাম মন্দিরের ভিত্তি স্থাপনে বন্ধ, মনসা পুজোয় বন্ধ, গণেশ চতুর্থীতে বন্ধ, অথচ বকরি ঈদে খোলা! এটা কি তোষন নয়?"

ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া গ্রাফিকটি বিভ্রান্তিকর।
২৮ জুলাই বুধবার রাজ্যসরকারের নির্দেশ অনুযায়ী প্রথমে স্থির হয়েছিল যে, রাজ্যে প্রতি সপ্তাহে দুইদিন ধরে লকডাউন হবে, এবং লকডাউনের দিন ঠিক করা হয়—২, ৫, ৮, ৯, ১৬, ১৭, ২২, ২৩, ২৯, ৩০ আগস্ট। কিন্তু ওইদিনই এক ঘন্টার মধ্যেই লকডাউনের দিন বদল করা হয়। রাজ্যের স্বরাষ্ট্রদপ্তর থেকে টুইট করে জানানো হয় যে, ২ ও ৯ অগস্ট লকডাউন ঘোষনার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করেছে সরকার।
স্বরাষ্ট্র দপ্তরের টুইটে বলা হয়,"রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউনের দিন ঘোষণা করার পর সরকারের কাছে দফায় দফায় অনুরোধ এবং আবেদন পেয়ে চলেছে। যেন নির্দিষ্ট উৎসব ও গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক অনুষ্ঠানের দিনগুলিতে রাজ্য জুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন মানার নির্দেশ না দেওয়া হয়। জনগণের অনুভূতির কথা মাথায় রেখে আমরা ঘোষিত ২ ও ৯ আগস্টের সম্পূর্ণ লকডাউন প্রত্যাহার করছি।
(ইংরেজিতে: After announcing the state-wide complete lockdown dates in the state the government has been receiving request and appeal from different quarters not to observe state-wide lockdown on certain dates coinciding with festivals and important community occasions. Respecting the sentiments of the people we are withdrawing complete lockdown announcement for 2 August and 9 August.)

২ অগস্ট অতিরিক্ত বকরি ইদের ছুটি যা এবার পড়েছে রবিবারে। ৯ জুলাই রাজ্য সরকারের কোনও ছুটি না থকালেও বিশ্ব আদিবাসী দিবসের কারণে ওই ছুটি প্রত্যাহার বলে ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা।

৩০ জুলাই বৃহঃস্পতিবার সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিজ্ঞপ্তির সর্বশেষ সংশোধন অনুযায়ী ৫, ৮, ১৬, ১৭, ২৩, ২৪, ৩১ অগস্ট রাজ্যজুড়ে সম্পূর্ণ লকডাউন বহাল হবে।
বুম দেখে ১ নভেম্বর ২০১৯ প্রকাশিত ২০২০ সালের রাজ্যের ছুটির ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ১ অগস্ট ইদুজ্জোহা, ৩ অগস্ট রাখি পূর্ণিমা, ১৭ অগস্ট মনসা পুজো, ২২ অগস্ট গণেশ চতুর্থী ও ৩০ অগস্ট মহরম (রবিবার)। এগুলি সবই ছুটির দিন এই দিনগুলিতে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষনা করা হয়নি।
রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের সরকারের ছুটির তালিকায় ১৭ তারিখ মনসা পূজা অন্তর্ভুক্ত নয়। ৫ তারিখ অযোধ্যায় ভূমি পূজা রাজ্য সরকারের ছুটির তালিকায় ছিল না। উত্তরপ্রদেশ রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ভূমি পূজার দিন এখনও পর্যন্ত জাতীয় ছুটি ঘোষণা করা হয়নি।

Updated On: 2020-07-31T20:48:25+05:30
Claim Review :  পশ্চিমবঙ্গে আগস্টে হিন্দুদের উৎসবের দিনগুলিতে সাপ্তাহিক লকডাউন দেওয়া হয়েছে
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story