সংবাদপত্রে ভুল করে দিল্লির বন্দুকধারীর নাম চন্দ্রাল শুক্লা বলা হল

দিল্লি পুলিশের সূত্র অনুযায়ী ওই বন্দুকধারীর নাম মহম্মদ শাহরুখ, তার হদিস পেতে এখনও তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে ছড়ানো পূর্ব দিল্লির দাঙ্গায় এপর্যন্ত ৪২ জন মৃত, শতাধিক মানুষ দাঙ্গাবাজদের হানায় গুরুতর জখম হয়ে হাসপাতলে চিকিৎসাধীন। সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে পুলিশের দিকে বন্দুক তাক করা ও গুলি চালানোর ঘটনায় অভিযুক্ত মেরুন টি-শার্ট ও জিন্স পরিহিত যুবককে দিল্লি পুলিশ মহম্মদ শাহরুখ নামে চিহ্নিত করে।

মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সংস্থা এএনআই খবর প্রকাশ করে যে দিল্লি পুলিশ ওই ব্যক্তিকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি এক নাটকীয় মোড়ে দিল্লি পুলিশকে উদ্ধৃত করে এএনআই জানায়, পুলিশ মহম্মদ শাহরুখকে গ্রেফতার করতে পারেনি এবং ওই যুবক এখনও অধরা।

বুমকে দিল্লি পুলিশের জনসংযোগ আধিকারিক তথা সহকারী কমিশনার অনিল মিত্তল জানিয়েছেন ওই বন্দুকবাজকে মহম্মদ শাহরুখ বলে শনাক্ত করা গেলেও, তাকে এখনও গ্রেফতার করা যায়নি। দিল্লি পুলিশ দাঙ্গার তদন্তে দুটি বিশেষ তদন্ত দল গঠন করেছে।

পুলিশের দিকে গুলি তাক করা মহম্মদ শাহরুখের ছবি গণমাধ্যমে ভাইরাল হলে সোশাল মিডিয়ায় তার পরিচিতি নিয়ে নানা গুজব ছড়াতে শুরু করে।

বুম বাংলার এক পাঠক টুইটার মারফত ভাইরাল হওয়া একটি সংবাদপত্রের ক্লিপিংয়ের ব্যাপারে আমাদের অবহিত করে। সেখানে দাবি করা হয় দিল্লির ওই বন্দুকধারীর 'আসল নাম' চন্দ্রাল শুক্লা।

''দিল্লিতে গুলি চালিয়ে ধৃত শাহরুখের আসল নাম চন্দ্রাল শুক্লা!'' এই শিরোনামে ওই সংবাদপত্রটির ক্লিপিংটি ফেসবুকে অনেকেই শেয়ার করেছেন। এরকম দুটি ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে


সংবাদ প্রতিদিন, বেঙ্গল রিপোর্ট, টিডিএন বাংলা, আনফোল্ডবাংলা প্রভৃতি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে ওই বন্দুকবাজের নাম ‌'‍'‍শাহরুখ চন্দ্রাল শুক্লা'' বলে।

বুমের পক্ষে ওই সংবাদপত্রের ক্লিপিংটি খুঁজে পাওয়া সম্ভব হয়েছে। ২৭ ফেব্রুয়ারি পুবের কলম সংবাদপত্রের ৬ নম্বর পাতাতে ওই খবরটি প্রকাশিত হয়। ''দিল্লিতে গুলি চালিয়ে ধৃত শাহরুখের আসল নাম চন্দ্রাল শুক্লা!" এই শিরোনামে লেখা প্রতিবেদনটিতে দাবি করা হয়েছে, দিল্লি পুলিশের হেফাজতে থাকা ওই ব্যক্তির নাম চন্দ্রাল শুক্লা ও তার বাড়ি সহাদারা অঞ্চলে। ই-পেপারটি অর্কাইভ করা আছে এখানে। নীচে ইপেপার সংস্করণে প্রতিবেদনটির স্ক্রিনশট দেওয়া হল।

আরও পড়ুন: ঢাকায় উলেমা সংগঠনের গোষ্ঠী সংঘর্ষের ছবিকে দিল্লি দাঙ্গার ছবি বলা হল

তথ্য যাচাই

প্রতিবেদনের শুরুতেই উল্লেখ করা হয়েছে, দিল্লি পুলিশ সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা এএনআই খবর প্রকাশ করে ওই বন্দুকবাজের নাম মহম্মদ শাহরুখ যাকে পুলিশ আটক করেছে। পরে দিল্লি পুলিশ স্বীকার করে মহম্মদ শাহরুখ নামে ওই যুবককে দিল্লি পুলিশ এখনও গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি।

দিল্লি পুলিশ ছাড়াও ওই যুবককে টুইটারে মহম্মদ শাহরুখ নামে শনাক্ত করা হয়েছে। টুইটার ব্যবহারকারী ওই যুবককে তার জিমে আসা ব্যক্তি বলে দাবি করেছে।

এছাড়াও এই ব্যক্তি টুইটে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের ছবি শেয়ার করেছেন। সেখানে মহম্মদ শাহরুখের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলের লিঙ্ক শেয়ার করা হয়েছে।

বুম মহম্মদ শাহরুখের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলের ছবির সঙ্গে তুলনা করে নিশ্চিত হয়েছে ওই বন্দুকধারীর পরিচয়।

পিস্তল তাক করা ওই যুবককে 'বিদ্বেষমূলক ভাষনে' অভিযুক্ত বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রের সহযোগী বলে চিহ্নিত করে গুজব ছড়ায়। বুম সেই ভুয়ো খবরকে আগে খণ্ডন করেছে

আরও পড়ুন: দিল্লির অশোক নগরে মসজিদে তাণ্ডব চালানোর ভিডিওটি ভুয়ো খবর নয়

Updated On: 2020-02-29T11:29:03+05:30
Claim Review :   সংবাদমাধ্যমের দাবি দিল্লির বন্দুকধারী মহম্মদ শাহরুখের আসল নাম চন্দ্রাল শুক্লা
Claimed By :  Puber Kalom & other News websites
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story