না, অমিতাভ বচ্চন হাতে কোয়রান্টিন স্ট্যাম্পের ছাপ দেননি

গণমাধ্যমে ভুয়ো খবর ছড়ালে অমিতাভ বচ্চন তাঁর ব্লগে লেখেন তিনি সুস্থ্য আছেন এবং টুইট করা স্ট্যাম্প দেওয়া হাতের ছবিটি তাঁর নয়।

সোশাল মিডিয়া ও গণমাধ্যমের একাংশে বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের টুইটকে ঘিরে এক বিভ্রান্তিকর গুজব রটেছে। ভুয়ো খবরগুলিতে বলা হচ্ছে অমিতাভ বচ্চন নাকি করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য সংক্রমণ হতে পারে তাই তিনি কোয়রান্টিনে রয়েছেন।

১৮ মার্চ ২০২০ অমিতাভ বচ্চনের একটি টুইটকে ঘিরে এই রটনার সূত্রপাত। তাঁর টুইটে দেখা যায় একটি হাতের ছবি যার পিছনের তালুতে একটি স্ট্যাম্পের ছবি রয়েছে। সেই স্ট্যাম্পের লেখা অনুবাদ করলে দাঁড়ায়, ''মুম্বইবাসীদের রক্ষা করতে পেরে গর্বিত, গৃহ কোয়রান্টিড''

মূল ইংরেজিতে লেখা, ''Proud to Protect Mumbaikars, Home Quarnatined''

জি-২৪ ঘন্টা ডিজিট্যালের একটি প্রতিবেদনে শিরোনাম লেখা হয়েছে, ''হাতে কোয়রান্টিন স্ট্যাম্প, আইসোলেশনে অমিতাভ বচ্চন।'' ওই শিরোনামের পরের বাক্যে লেখা হয়েছে, ''আইসোলেশন যাওয়ার আগে মহারাষ্ট্র সরকারের কোয়রান্টিন স্ট্যাম্প লাগিয়ে টুইট করেন বিগ বি।''

প্রতিবেদনটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

জি-২৪ ঘন্টা ডিজিট্যালের প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।

ওই প্রতিবেদনের বয়ানে লেখা হয়, ''হাতে সরকারি হোম কোয়রান্টিনের স্ট্যাম্প। স্বেচ্ছায় নিজেকে গৃহবন্দি করে ফেললেন বলিউডের শাহেনশা অমিতাভ বচ্চন। বুধবারই আইসোলেশন যাওয়ার আগে মহারাষ্ট্র সরকারের কোয়রান্টিন স্ট্যাম্প লাগিয়ে টুইট করেন বিগ বি। ''

মানবদেহের করোনাভাইরাস বা কোভিড১৯ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সতর্কতা হিসেবে সংক্রমণের সম্ভাবনা থাকা বা সম্প্রতি সংক্রমিত দেশে সফরের ইতিহাস থাকলে তাকে ১৪ দিন 'আইসোলেশান' বা 'আলাদা' থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরকম ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে মহারাষ্ট্র সরকার নির্দেশ দিয়েছে বাম হাতের তালুর পিছনে স্ট্যাম্প দেওয়ার।

আরও পড়ুন: মিথ্যা: নদীয়ার কল্যাণীতে এক রোগীর দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে, বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের আইসোলেশানে থাকার খবরটি ভুয়ো।

১৮ মার্চ ২০২০ অমিতাভ বচ্চনের ৩,৪৭৩ তম টুইটে লেখেন, ''ভোটের কালি দিয়ে হাতে স্ট্যাম্প দেওয়া শুরু হয়েছে মুম্বইয়ে। নিরাপদে রাখুন। উৎসাহী থাকুন। ধরা পরলে আলাদা ধাকুন।''

এই টুইটের সঙ্গেই তিনি একটি হাতের পিছনের তালুর ছবি দেন যেটিতে দেখা যায় কোয়রান্টিন চিহ্নিত করার স্ট্যাম্প দেওয়া রয়েছে। অনেকে এই ছবি দেখে মনে করেন অমিতাভ বচ্চন কোয়রান্টিনে আছেন।

পরে অমিতাভ বচ্চন তাঁর ব্লগ বচ্চনবোল-এ লেখেন, ''আমি ঠিক আছি। এটি অন্য কারও হাত।'' সোশাল মিডিয়ায় তার হাতের ছবি নিয়ে টিভি চ্যানেলে সারদিন খবর দেখে অনেক শুভান্যুধায়ী বন্ধু তার স্বাস্থ্যের ব্যাপারে জানতে চান একথাও তিনি জানিয়েছেন ওই ব্লগের লেখায়।

ব্লগের লেখার স্ক্রিনশট।

মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ টোপে স্ট্যাম্প দেওয়ার সরকরী সিদ্ধান্তের প্রসঙ্গে বলেন, ''ভোটের সময় ভোটদাতাদের চিহ্নিত করতে ব্যবহার করা সহজে ধুয়ে না যায় এমন কালি ব্যবহার করা হচ্ছে ওই স্ট্যাম্পে। যার অর্থ ওই ব্যক্তির কোয়রান্টিনে থাকা বাধ্যতা মূলক।''

আরও পড়ুন: করোনাভাইরাসের সতর্কতায় রাজ্যে বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট খবরটি ভুয়ো

Updated On: 2020-03-20T15:18:23+05:30
Claim Review :  ছবির দাবি করোনা সংক্রমণ রুখতে হাতে কোয়রান্টিন স্ট্যাম্প নিয়ে আইসোলেশনে আছেন অমিতাভ বচ্চন
Claimed By :  Zee 24 Ghanta digital
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story