না, এই মর্মান্তিক ছবিগুলি পাকিস্তানে সংখ্যালঘু পরিবারকে খুনের ঘটনা নয়

বুম দেখে ছবিগুলি ২০১৯ সালের জুন মাসের, কর্ণাটকের মর্মান্তিক এক ঘটনার এবং পাকিস্তানের সঙ্গে এর কোনও সম্পর্কই নেই।

Claim

ফেসবুকে কর্ণাটকের মর্মান্তিক এক ঘটনার ছবি শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে—পাকিস্তানে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক পরিবারের এক মহিলা ও তার তিন সন্তানকে নৃশংস ভাবে খুন করা হয়েছে। পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘পাকিস্তানে এক হিন্দু পরিবারের এক মহিলা ও তিন ছোট বাচ্চা এর মধ্যে দুধের বাচ্চাও আছে যাদের নৃশংস ভাবে হত্যা করে দিল পাকিস্তানের মুসলিমরা। এদের ঘরের অবস্থা দেখলেই বোঝা যায় এমনিতেই কি অবস্থায় আছে। ছিঃ ইসলামিক রিপাবলিক অব পাকিস্তান।’’

Fact

২০১৯ সালের ১৮ জুন কর্ণাটকের কোপ্পল জেলায় এক মহিলা তার দুই শিশু পুত্র ও কন্যাকে খুন করে নিজে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। তেলেগু সংবাদপত্র সাক্ষীতে একই ছবি সহ এই খবর প্রকাশিত হয়েছিল। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী মহিলার স্বামী উমেশ ফেরার। কিন্তু কেন মহিলা এই ভয়ঙ্কর পদক্ষেপ নিলেন, সে বিষয়ে সঠিকভাবে কোনও প্রতিবেদনেই কিছু বলা নেই। আগে এই ছবিগুলিই লকডাউনের পরিণাম বলে শেয়ার করা হয়েছিল। বুম সে সময় ওই ভুয়ো দাবিকে খণ্ডন করে।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2020-04-09T18:34:43+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি পাকিস্তানে এক মহিলা ও তাঁর তিনটি ছোট বাচ্চাকে মুসলিমরা হত্যা করেছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story