দিল্লির তুঘলকাবাদে আগুন লাগার পুরনো দৃশ্য সাম্প্রদায়িক রঙ সহ ভাইরাল

বুম দেখে ২৬ মে ২০২০ শট সার্কিট থেকে অগুন লাগার ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির তুঘলকাবাদের বস্তিতে।

দিল্লির তুঘুকাবাদে এবছরের মে মাসের একটি অগ্নিকাণ্ডের দৃশ্যকে সাম্প্রদায়িক রঙ লাগিয়ে শেয়ার করা হচ্ছে। ওই পোস্টে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে, একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষজনের বাড়িতে এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। অনেকেই ঘটনাটিকে সাম্প্রতিক ঘটনা ভেবে শেয়ার করেছেন।

বুম যাচাই করে দেখে শট সার্কিট থেকে আগুন লাগার এই ঘটনাটি ঘটেছিল গত ২৬ মে দক্ষিণ পূর্ব দিলির তুঘলকাবাদ বস্তিতে যেখানে প্রায় ১৫০০ ঝুপড়ি ভস্মীভূত হয়েছিল।

তুঘলকাবাদের এই অগ্নিকান্ডের ২ মিনিট ৪০ সেকেন্ডের একটি দৃশ্য ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে বিশাল জ্বলন্ত আগুনের লেলিহান শিখা এবং ধোঁয়া উপরের দিকে উঠছে। অনেক ব্যক্তিকে দেখা যায় হাতে এবং পিঠে ব্যাগ নিয়ে অগুনের শিখার জায়গা থেকে নিরাপদ দিকে ছুটে যাচ্ছেন।
ভিডিওতে লোকজনের আর্তনাদও শুনতে পাওয়া যায়।
এই ভিডিও ফেসবুকে পশোট করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "দিল্লীর কালী মন্দির সহ ৩০টি হিন্দু পরিবারে আগুন জ্বলছে, আল্লাহর গজব শুরু হয়ে গেছে।"
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম এই ভিডিওকে কয়েকটি মূল ফ্রেমে আলাদা করে নিয়ে ইয়ান্ডেক্সে অনুসন্ধান করে দেখে এছরের মে মাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে দিল্লির তুঘলকাবাদে।
ইউটিউবে ২৬ মে ২০২০ আপলোড হওয়া এই ভিডিওটিকে তুঘলাকাবাদের বস্তিতে আগুন লাগার ঘটনা বলা হয়েছে। এরকম দুটি ভিডিও দেখা যাবে
এখানে
এখানে
এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয় ২৬ মে ২০২০ দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লির তুঘলকাবাদের বস্তি এলাকায় শট সার্কিট আগুন লাগার ঘটনাটি ঘটে। ওইদিন রাতে আনুমানিক ১ টা নাগাদ আগুন লাগার খবর পায় দমকল বিভাগ। ২৮ টি দমকল ইঞ্জিনের প্রায় ৩ ঘণ্টা প্রচেষ্টায় আগুন আয়ত্তে আসে
এই অগুনে ভস্মীভূত হয় প্রায় ১৫০০ টি ঝুপড়ি। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীর তৎপরতায় বস্তি এলাকার অধিকাংশ মানুষকে নিরাপদ এলাকায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

Updated On: 2020-08-19T20:45:59+05:30
Claim Review :   ভিডিওর দাবি দিল্লিতে কালী মন্দির সহ ৩০ টি হিন্দু বাড়িতে আগুন লেগেছে
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story