শি জিন পিং-এর সামনে নরেন্দ্র মোদীর মাথা নোয়ানোর ছবিটি ফোটোশপ করা

বুম দেখে ২০১৫ সালে কর্নাটকের এক মেয়রের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদীর শুভেচ্ছা বিনিময়ের একটি দৃশ্যকে ফোটোশপ করে ভাইরাল করা হয়েছে।

চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং-এর সামনে হাত জোড় করে মাথা নোয়াচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, এমন একটি ছবি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর এই অভ্যর্থনার ভঙ্গির ছবিটি বিকৃত করে তৈরি করা হয়েছে।

চিন-ভারত সীমান্তে লাদাখ অঞ্চলের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর গালওয়ান উপত্যকায় গত ১৫ জুন দু দেশের সেনাদের সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনার নিহত হওয়ার প্রেক্ষিতে এই ছবিটি ভাইরাল করা হয়েছে। ওই সংঘর্ষে চিনা পক্ষে হতাহতের সংখ্যা এখনও অজানা।

একই ক্যাপশন সহ টুইটার ও ফেসবুকে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে:

পোস্টটির আর্কাইভ বয়ান দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ইতিপূর্বে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের এক সদস্য এই পোস্টটি টুইট করেন এবং দলের এক মুখপাত্র দেবাশিস জারারিয়া মন্তব্য করেন, 'প্রধানমন্ত্রী মোদী এই ছবির ভাবনাটিকে বাস্তবায়িত করে দেখালেন'ল

১৯ জুন চিন-ভারত বিরোধ নিয়ে আলোচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকের পর বৈঠকে মোদীর অন্তিম বক্তব্য নিয়ে প্রশ্ন ওঠে, যেখানে তিনি বলেন যে, "ভারত সাম্প্রতিক কালে চিনের কাছে কোনও জমি হারায়নি"l বিরোধী পক্ষ তখন স্বভাবতই প্রশ্ন করে, তাহলে দু দেশের মধ্যে সীমান্ত সংঘর্ষ ঘটল কেন? পরে প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে একটি কৈফিয়ত জারি করে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে অভিসন্ধিমূলকভাবে ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ভুয়ো টুইটের দাবি, সীতারাম ইয়েচুরি শি জিংপিং-কে 'নিজের বস' বলেছেন

তথ্য যাচাই
বুম ছবিটি খোঁজখবর নিয়ে দেখেছে, পিটিআই-এর তোলা এই ছবিটি ২০১৯ সালে মামল্লপুরমে শি জিন পিং-এর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাক্ষাতের ছবি। দ্য হিন্দু সংবাদপত্রও ছবিটি মামল্লপুরমে মোদী-শি সাক্ষাতের একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছিল।

আসল ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং শি জিন পিং মুখোমুখি দাঁড়িয়ে কথা বলছেন এবং উভয়ের পিছনেই নিরাপত্তা রক্ষী দাঁড়িয়ে রয়েছেন।

নীচে বাঁদিকে ফোটোশপ করা ছবিটিকে ডান দিকের মূল ছবির সঙ্গে তুলনা করলেই পার্থক্যটা স্পষ্ট হবে:


দুই হাত জোড় করে প্রধানমন্ত্রীর মাথা নোয়ানোর ছবিটি ২০১৪ সালের, যেখানে তিনি বিমানবন্দরে টুমকুর-এর মেয়র গীতা রুদ্রেশের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করছিলেনl বুম বিজয় কর্নাটক পত্রিকার ২০১৪ সালের এক প্রতিবেদনে ছবিটি দেখেছে। তাতে লেখা হয়েছিল একটি ফুড পার্ক উদ্বোধন করতে প্রধানমন্ত্রীর টুমকুর সফরের কথা।

ইতিপূর্বে বুম-এর হিন্দি সংস্করণ এই একই ছবির তথ্য-যাচাই করেছে। সে সময় সোশাল মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী শিল্পপতি গৌতম আদানির স্ত্রী প্রীতি আদানির সামনে করজোড়ে মাথা নত করছেন।
গালওয়ান উপত্যকায় দু দেশের সংঘর্ষের পর প্রচারিত এ ধরনের আরও অনেক ভাইরাল পোস্টের তথ্য-যাচাই করে দেখেছে বুম, যার তালিকা দেখুন এখানে।

Updated On: 2020-06-24T12:43:16+05:30
Claim Review :  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংয়ের সামনে মাথা নত করলেন।
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story