যোগী আদিত্যনাথের হাথরস নির্যাতিতার দাহ দেখার ছবিটি ভুয়ো

বুম দেখে আসল ছবিটিতে ল্যাপটপের স্ক্রিনে দাহ করার কোনও দৃশ্য নেই।

ল্যাপটপে হাথরসের গণধর্ষণের অভিযোগের ঘটনায় নির্যাতিতার দেহ দাহ করার দৃশ্য দেখছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, এই ছবিটি ভুয়ো। ছবিটি ফোটোশপ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে।

২৯ সেপ্টেম্বের ২০২০ তে ঘোরতর আঘাতপ্রাপ্ত হাথরসের ১৯ বছরের এক দলিত মেয়ে দিল্লির সফদর জং হাসপাতালে মারা যাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই ফোটোশপ করা ছবি শেয়ার করা হচ্ছে। ১৪ সেপ্টেম্বর মেয়েটি যখন মাঠে পশুখাদ্য সংগ্রহ করছিল তখন উচ্চবর্ণের চারজন লোক তাকে নির্মমভাবে অত্যাচার ও গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। চার অভিযুক্তই গ্রেপ্তার হয়েছে।
হাথরাস পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা মৃতের পরিবারের অনুমতি ছাড়াই ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০-র ভোর রাত্রে তার মরদেহ পুড়িয়ে দেয়। পুলিশ অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
ল্যাপটপের কিবোর্ডের ওপর জুড়ে দেওয়া 'লাইভ' শব্দটি বুঝিয়ে দেয় যে, ফোটোশপের কারসাজিটি খুব কাঁচা হাতের কাজ। ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "এটা দেখুন *** এঁর নির্দেশেই রাতে দেহ পোড়ান হয়।"
ফেসবুকে ভাইরাল
আমরা দেখি একই ফোটোশপ-করা ছবি সেখানেও মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে।
(একটি ক্যাপশান ইংরেজিতে লেখা। বাংলায় অনুবাদ করলে দাঁড়ায়: "ইউপি পুলিশ হাথরাস গণধর্ষণের বলির মৃতদেহ পোড়াচ্ছে আর সেই দৃশ্য লাইভ দেখছেন উত্তরপ্রদেশের অপদার্থ মুখ্যমন্ত্রী")
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে; আর্কাইভ করা আছে এখানে

(হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: हाथरस गैंग रेप पिड़िता को युपी की जल्लाद पुलिस वालों ने कैसे जलाया उसकी लाइव वीडियो देखता हुआ एक नाकारा मुख्यमंत्री)
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে, আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: ভুয়ো স্ক্রিনশট: ইউপির মুখ্যমন্ত্রী বলেননি, 'ঠাকুররা ভুল করতে পারে'

তথ্য যাচাই
বুম দেখে ছবিটি ফোটোশপে তৈরি করা। আসল ছবিতে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে হাথরসের নির্যাতিতার বাবার সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করতে দেখা যাচ্ছে।
পরিবারের সম্মতি ছাড়াই ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০-র ভোর রাতে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ মৃতের দেহ পুড়িয়ে দেওয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠায়, ৩০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ভিডিও সংযোগের মাধ্যমে মৃতের বাবার সঙ্গে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ।
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ তে আসল ছবিটি প্রকাশ করে বৈদ্যুতিন সংবাদ সংস্থা এএনআই। তাতে ওই ল্যাপটপটি দেখা যাচ্ছে, যার স্ক্রিনটি ঝাপসা হয়ে আছে। কারণ, মুখ্যমন্ত্রী কথা বলছেন মৃতের বাবার সঙ্গে, যাঁর মুখ ঝাপসা করে দেওয়া হয়েছে।
এএনআই-এর ছবির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়: "লখনউ: উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলছেন হাথরসের নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে।"
মৃতের বাবার কথা এএনআই টুইটও করে। তিনি এএনআই-কে জানান যে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন এবং মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে ন্যায়বিচারের আশ্বাস দেন।
তাছাড়া, ফোটোশপ-করা ছবিতে দাহ করার দৃশ্যটি ৩০ সেপ্টেম্বর সকালে সংবাদ মাধ্যমে সম্প্রচারিত ছবি থেকে নেওয়া হয় এবং ফোটোশপ করে ল্যাপটপের স্ক্রিনের ওপর বসিয়ে দেওয়া হয়।
ফোটোশপ-করা ছবি আর আসল ছবিটি মিলিয়ে দেখলেই তফাৎটা স্পষ্ট দেখা যায়। আসল ছবিটিতে ল্যাপটপের স্ক্রিনে দাহ করার কোনও দৃশ্য নেই। তাছাড়া 'লাইভ' শব্দটি নেই আসল ছবিটিতে, যেমনটি আছে ফোটোশপ-করা ছবিতে।
তুলনা
হাথরসের ঘটনা সংক্রান্ত ভুয়ো খবর বুম আগেও খণ্ডন করেছে। যেমন, আখের খেতের সামনে দাঁড়িয়ে-থাকা এক অল্পবয়সী মহিলার ছবি শেয়ার করা হচ্ছিল এই বলে যে, ওই মহিলাই হলেন হাথরসের নির্যাতিতা। বুম সেটিকে ভুয়ো প্রমাণ করে।
Updated On: 2020-10-08T12:56:17+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হাথরসের নির্যাতিতার শেষকৃত্য লাইভ দেখছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story