কানাডায় গাড়ির গতিবেগ কমাতে রাস্তায় লাগানো হয় বিভ্রম স্টিকার?

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি ‘পায়োনিয়ার অটোমেটিভ’ সংস্থার সাসপেনসন যন্ত্রাংশের ‘গেরিলা বিজ্ঞাপন’ আর তা থেকেই ছড়াচ্ছে ভুয়ো খবর।

সোশাল মিডিয়ায় গাড়ির যন্ত্রাংশ নির্মান সংস্থা পায়োনিয়ার অটোমোটিভ-এর ঝাকুনিরোধী যন্ত্রাংশ সাসপেনশনের একটি বিজ্ঞাপনের ছবিকে বিভ্রান্তিকর মিম হিসেবে শেয়ার করা হচ্ছে। ফেসবুকে শেয়ার করা ওই মিমটিতে দাবি করা হচ্ছে গাড়ির গতি কমাতে কানাডায় স্টিকার ব্যবহার করা হয়।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ওই মিমটিতে উপর নীচে ৪ টি ছবির তুলনা করা হয়। একটি ছবিতে দেখা যায় এক ব্যক্তি ত্রিমাত্রিক খানাখন্দের স্টিকার বসাচ্ছে রাস্তার উপর। পাশের ছবিতে সেই স্টিকার বাসানো রাস্তা দেখে বিভ্রম হয় যেন সত্যি খানাখন্দ। আর নীচের দুটি ছবিতে দেখা যায় সত্যিকারের কাদাজল জমা খানাখন্দ।

মিমটিতে ইংরেজিতে বাস্তবের খানাখন্দকে কটাক্ষ করে ইংরেজিতে লেখা হয়েছে, ''কানাডায় তারা গাড়ির গতি কমাতে স্টিকার ব্যবহার করে। আমার দেশে, আমরা ব্যবহার করি ত্রিমাত্রিক প্রযুক্তি।''

(মূল ইংরেজিতে লেখা: "In Canada, They use special stickers to slow the car. In my country, We use the 3D techinques.")

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে



তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল ছবিগুলি কানাডায় গাড়ির গতিবেগ কমাতে কোনও নকল ত্রিমাত্রিক খানাখন্দের ছবি লাগানো নয়, এটি আসলে পায়োনিয়ার সাসপেনশনের বিজ্ঞাপন।

বুম 'কানাডায় স্টিকার' 'গাড়ির গতি কমাতে' ইত্যাদি কিওয়ার্ড সার্চ করে অ্যাডস অফ ওয়ার্লডস ওয়েবসাইটে ২০০৭ সালের একটি বিজ্ঞাপনের হদিস পায়। মুম্বাইয়ের ওয়াই অ্যান্ড এভারেস্ট সংস্থার তরফে বিজ্ঞাপনটির শিল্প নির্দেশক ছিলেন মাকারান্ড পাতিল। বিজ্ঞাপনটির ক্যাপশন লেখা হয় ''ফিলস লাইক পায়োনিয়ার সাসপেনসন।'' ভিনাইল ইলিউশান স্টিকার ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় এই ধরণের বিজ্ঞাপন করা হয়ে থাকে। বিজ্ঞাপনটির অদূরে ''Feels Like Pioneer Suspension" লেখা ছিল ইংরেজিতে।


বিজ্ঞাপনের সঙ্গে যুক্ত কলাকুশলীদের ব্যাপরেও বর্ণনা দেওয়া হয়েছে এই ওয়েবসাইটে। বুম ফটোগ্রাফার সন্দীপ সুবর্ণের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সমর্থ হয়েছে তিনি বুমকে জানান তিনি এই ছবিটি তোলেন সান্তাক্রুজের ওয়েস্টার্ণ এক্সপ্রেস হাইওয়েতে।



অপ্রথাগত উপায়ে এই ধরণের পরিসেবা বা পণ্যের বিজ্ঞাপনকে 'গেরিলা বিপনন' বা গেরিলা বিজ্ঞাপন বলে। ১৯৮৪ সালে গেরিলা মার্কেটিং নামের বইয়ে শব্দবন্ধটি উল্লেখ করেন আমেরিকার লিওবার্ণেট সংস্থার কর্মী জে কর্নার্ড লেভিনসন। তিনিই গেরিলা মার্কেটিং জনপ্রিয় করেন জীবদ্দশাতে।

২০১৯ সালে আফ্রিকা চেক তথ্য-যাচাইকারী সংস্থা সহ একাধিক ওয়েবসাইটে বিষয়টির তথ্য যাচাই করা হয়েছে।

অন্য খানাখন্দ রাস্তার একটি ছবি ২০১৬ সাল থেকে অনলাইনে রয়েছে। বাকি আরেকটি ছবির হদিস পয়নি বুম।

আরও পড়ুন: এডওয়ার্ড মরড্রেক ও দুমুখো মানুষের গুজব

Claim Review :   কানাডায় গাড়ির গতি কমাতে রাস্তায় স্টিকার ব্যবহার করা হয়
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story