আরমেনিয়া-আজারবাইজান যুদ্ধ বলে টিভি৯ ভারতবর্ষ দেখাল ভিডিও গেমের দৃশ্য

আরমা-৩ গেমের স্থল ও আকাশে আক্রমণের দৃশ্যকে একটু বদলে নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার হিন্দি সংবাদ চ্যানেল 'টিভি৯ ভারতবর্ষ' ভিডিও গেম আরমা-৩ থেকে নেওয়া কিছু দৃশ্য আরমেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে যুদ্ধের ফুটেজ বলে চালানর চেষ্টা করে।

বুম দেখে, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ তে ওই দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হওয়ার এক মাস আগে, ২২ অগস্ট ২০২০ থেকে ক্লিপটি ইন্টারনেটে আছে। কোনও বাস্তব সামরিক পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে, ক্লিপটি তা দেখায় না।
সাবেক সোভিয়েত রিপাবলিক আরমেনিয়া ও আজারবাইজানের (দ্বিতীয় দেশটির পেছনে রয়েছে তুরস্কের সমর্থন) মধ্যে নগোরনো-কারাবাখ বলে এক অঞ্চলের অধিকার নিয়ে বিবাদ চলছে। বর্তমান যুদ্ধ সেই অমীমাংসিত সামরিক ও আঞ্চলিক সংঘাতেরই তীব্রতর রূপ। ২৭ সেপ্টেম্বর দুই দেশের মধ্যে সংঘর্ষে ৪০০ জন নিহত হন। ফলে, ওই সংঘাত এখন ক্রমশ আন্তর্জাতিক দৃষ্টি আকর্ষণ করছে।
টিভি৯ ভারতবর্ষের প্রতিবেদন নীচে দেখা যাবে। চ্যানেলটি দাবি করে যে, যুদ্ধক্ষেত্রের এক্সক্লুসিভ ছবি তারই দেখাচ্ছে। এমনকি যে ফুটেজে স্থল আর আকাশ থেকে গোলাবর্ষণের দৃশ্য আছে, সেটিতে ওই চ্যানেলের লোগোর ওয়াটার-মার্কও রয়েছে।

সঞ্চালক দাবি করেন যে, আরমেনিয়ার 'শিলকা' বায়ু প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আজারবাইজানের একটি মিগ-২৫ বিমানকে গুলি করে নামাতে দেখা যাচ্ছে ছবিতে।
ভিডিওটির দ্বিতীয় ভাগে তুরস্কের সাহায্যে আজারবাইজানের একটি পাল্টা দ্রোণ আক্রমণ দেখান হচ্ছে বলে দাবি করা হয়। আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ফুটেজটি শেয়ার করেছে, কিন্তু তাতে দ্রোণ আক্রমণের কোনও উল্লেখ নেই।
ইউটিউবে টিভি৯-এর ফুটেজের আর্কাইভ সংস্করণ এখানে দেখা যাবে।
বুম এই ভিডিওটি তার হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনেও (৭৭০০৯০৬১১১) পায়। নীচের ক্যাপশন সহ ভিডিওটি প্রচার হচ্ছে।
"শিলকা অস্ত্র ব্যবহার করে আর্মেনীয়রা একটি জঙ্গি বিমানকে গুলি করে নামায়। স্থলে আরমেনিয়ার প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে আঘাত করার জন্য পাইলট নানা ভাবে চেষ্টা করে। এক ভয়ঙ্কর যুদ্ধ চলেছে। একটি দেখার মত ক্লিপ।"
সম্পূর্ণ ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে।

বুমের হেল্পলাইনে আসা ভিডিও ও ক্যাপশন

বুম দেখে ভিডিওটি একই ক্যাপশন সহ ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে। তার মধ্যে একটি পোস্ট ৮১,০০০-এরও বেশি বার দেখা হয়।
তথ্য যাচাই
ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখে সেটি 'এ-১০ওয়ারথগ থান্ডারবোল্ট সেআরএএম' নামের একটি ভিডিওটি থেকে নেওয়া। সেটির বিবরণে বলা হয় ভিডিওটি আরমা-৩-এর সঙ্গে যুক্ত। গেম বা খেলাটি ২০৩০ সালের এক কাল্পনিক পরিস্থিতি নিয়ে। তাতে মার্কিন করপোরাল (সেনা অফিসার) বেন কেরির মাধ্যমে নানা ধরনের সামরিক অভিযান চালান যায়।
ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে। সেটি ২২ অগস্ট আপলোড করা হয়েছিল। অর্থাৎ, সাম্প্রতিককালের আরমেনিয়া-আজারবাইজান সংঘর্ষ শুরু হওয়ার এক মাস আগে। এ পর্যন্ত সেটি ১৩ লক্ষবার দেখা হয়।

ভিডিওটিকে একটু বদলে নেওয়া হয়েছে। সেটি আসল খেলাটির অংশ নয়। যাঁরা গেমটি খেলেন, তাঁরা নিজেদের মত খেলাটি অদল-বদল করতে পারেন। ফলে, আসল খেলাটির সঙ্গে সেটি মেলেনা। এর আগেও আরমা-৩ ব্যবহার করে, একটি মিথ্যে ভিডিও তৈরি করা হয়েছিল। সেই ভিডিওটিতে দাবি করা হয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র হানা চালিয়েছে। ভিডিওটি এমন এক সময় শেয়ার করা হয় যখন ৪ জানুয়ারি ইরানের জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে বাগদাদে হত্যা করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।
বুম এখানে সেই দাবিটিকে খণ্ডন করেছে।
আগের খণ্ডন-করা ভিডিওটি সম্পর্কে বলতে গিয়ে এএফপি-র তথ্য যাচাই বিভাগকে বোহেমিয়া ইন্টারন্যাশনাল
বলে
যে, আরমা-৩ গেমটিকে নিজের ইচ্ছে মত বদলান যায়।
টিভি৯-এর প্রতিবেদনের দ্বিতীয় ভাগে থার্মাল ইমেজারির মাধ্যমে একটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্যের ওপর আক্রমণের ছবি দেখান হয়। টিভি৯-এর দাবি, সেটি হল তুরস্কের টিবি২ দ্রোণের সাহায্যে আরমেনিয়ার ওপর আজারবাইজানের আক্রমণ।
আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ফুটেজটি প্রকাশ করে। তাতে বলা হয়, আরমেনিয়ার অস্ত্র ও গোলাবারুদ ডিপো এবং "সদরদপ্তরের" ওপর রাতের আক্রমণের দৃশ্য সেটি। কিন্তু কোথাও দ্রোণের মডেল বা তুরস্কের সাহায্যের উল্লেখ করা হয়নি।
Updated On: 2020-10-12T17:57:45+05:30
Claim Review :   ফুটেজে দেখায় আর্মেনিয়া আজারবাইজানের মিগ২৫ ক্ষেপণাস্ত্রকে নিষ্ফল করছে
Claimed By :  TV9 Bharatvarsh and users of social media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story