চিনের জমি দখল করল ভারতীয় সেনা, ভুয়ো দাবি সহ ভাইরাল হল সম্পর্কহীন ছবি

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি ২৯-৩০ অগস্ট লাদাখের প্যাংগং লেকের দক্ষিণ পাড়ে চিনের সেনা অগ্রাসনের আগে তোলা।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর তিনটি অসম্পর্কিত ছবি সহ একটি ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে ভুয়ো দাবি করা হয়েছে যে ২৯-৩০ অগস্ট ভারতীয় সেনা চিনের সীমানায় ঢুকে চিনের জায়গা দখল করেছে।

বুম যাচাই করে দেখে যে ফেসবুক পোস্টে ব্যবহার হওয়া ছবিগুলো পুরনো ও পরস্পরের অসম্পর্কিত। ভারতীয় সেনাবাহিনী সোমবার ৩১ অগস্ট বিবৃতি প্রকাশ করে জানায় যে, গত ২৯ ও ৩০ অগস্ট রাতে প্যাংগং লেকের দক্ষিণ পাড়ে চিন কূটনৈতিক স্থিতাবস্থা ভাঙার চেষ্টা করেছে। ভারতের সেনা উপযুক্ত ব্যবস্থা নিয়ে তা প্রতিহত করার চেষ্টা করেছে।

জুন মাসে লাদাখের গালওয়ান ভ্যালিতে
প্রকৃত নিয়ন্ত্রন রেখায় ভারতের ও চিনের সেনা সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা মারা যায়। তারপর থেকে এই এলাকাটিকে ঘিরে দু-দেশের মধ্যে অস্থিরতা চলছে।
এরই প্রেক্ষিতে ফেসবুকে ভারতীয় সেনা জাওয়ানদের বিভিন্ন মুহূর্তের তিনটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে ক্যাপশন লেখা হয়, "জীবনে এই প্রথম শুনলাম #চীনারা_চিল্লাচ্ছে ভারতীয় সেনা আমাদের জায়গা দখল করে নিয়েছে, 29-30 আগষ্ট ইতিহাস সৃষ্টি করলো ভারতীয় জওয়ানরা। জয় জওয়ান ভারত মাতা কি জয় "

ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। আর্কাইভ করা আছে এখানে


তথ্য যাচাই

বুম ফেসবুক পোস্টে সম্প্রতি ব্যবহার হওয়া ছবি যাচাই করে দেখে, তা ২৯-৩০ অগস্ট লাদাখের প্য়াৎগং লেকে ভারতের সঙ্গে চিনের স্থিতাবস্থা লঙ্ঘনের ছবি নয়। সোমবার ৩১ অগস্ট ২০২০ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে কর্ণেল আমন আনন্দ ওই দু'দিনের ঘটনা নিয়ে বিবৃতি প্রকাশ করেন। ওই বিবৃতিতে বলা হয় ভারতীয় সেনার চিনা সেনার উস্কানিমূলক সামরিক কার্যকলাপ প্রতিহত করেছে দক্ষিণ লাদাখের প্যাংগং লেক এলাকায়। ভারতের সেনা কড়া অবস্থান নিয়েছে। সমস্যা নিরসনে চুশহুল এলাকায় বিগ্রেডার পর্যায়ে ফ্ল্যাগ বৈঠক করা হয়েছে।
সোমবার ৩১ অগস্ট, ২০২০ প্রকাশিত প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের বিবৃতি।
এই বিবৃতিতে ভারতের সেনাদের চিনের জায়গা দখলের কোনও ইঙ্গিত নেই।
বুম নীচে ফেসবুক পোস্টে থাকা ২৯-৩০ অগস্টের সঙ্গে সম্পর্কহীন ছবিগুলির উৎস সহ তথ্য-যাচাই করছে।
প্রথম ছবি

সেনা জাওয়ানদের ভারতের পতাকা হাতে সারিবদ্ধভাবে মার্চ করে যাওয়ার ছবিটি এবছরের ১৫ অগস্টের। ছবিটি ভারত-তিব্বত সীমান্ত পুলিশের ১৬,০০০ ফুট উচ্চতায় ভারতের স্বাধীনতা দিবস পালনের। সংবাদ সংস্থা এএনআই ছবিটি স্বাধীনতা দিবসের দিন টুইট করেছিল।

দ্বিতীয় ছবি
পাহাড়ের মাথায় বন্দুক কাঁধে দুই সেনার টহল দেওয়ার ছবিটি ৯ জুন ও ১৬ জুন আউটলুকডেকান হেরাল্ডে লাদাখ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে ব্যবহার করা হয়েছে। ছবিটির ক্যাপশনে লাদাখে সেনা পাহারা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ছবির সূত্র হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে। বুমের পক্ষে ছবিটি ঠিক কবে তোলা হয়েছে স্বাধীনভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি।
৯ জুন ২০২০ প্রকাশিত আউটলুকের প্রতিবেদনে থাকা ছবি।
তৃতীয় ছবি
চিন ও ভারতের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় সেনাদের টহল দেওয়ার ছবিটি ২৭ মে ২০২০ দ্য হিন্দুতে প্রকাশিত একটি
প্রতিবেদনে
দেখতে পাওয়া যায়। ছবিটির স্বত্ব দেওয়া রয়েছ দিনাকর পেরি'কে।
গালওয়ান উপত্যকায় সেনা সংঘর্ষ হয় এবছরের জুন মাসে। ছবিটি গালওয়ানে সেনা সংঘর্ষের আগের।

Claim Review :   ছবির দাবি ২৯ ও ৩০ অগস্ট ভারতীয় সেনা চিনের জমি দখল করেছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story