ট্রেনে থুতু ফেলায় ফ্রান্সে মুসলিমরা গ্রেফতার? ছড়াল রোমানিয়ার ভিডিও

ফ্রান্সে পুলিশ আধিকারিকদের মুসলিমদের গ্রেফতার করার দৃশ্য এই ভুয়ো দাবি সহ ভিডিওটি ছড়়ানো হচ্ছে।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে রোমানিয়ার বুখারেস্টে দুটি ফুটবল ক্লাবের সমর্থকদের মধ্যে মারামারির ঘটনায় জড়িত, এই সন্দেহে পুলিশ কয়েকজনকে মেট্রো ট্রেনের মধ্যে গ্রেফতার করে। মাস্ক না পরার জন্য এবং অন্যদের উপর থুতু ফেলার জন্য প্যারিসে মুসলমানদের পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে মিথ্যে দাবি করে এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে।

এক ইসলামিক উগ্রপন্থী ফ্রান্সে এক স্কুল শিক্ষকের মাথা কেটে খুন করার পর ওই ঘটনার বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হয়। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই ভিডিওটি ফেসবুক ও টুইটারে শেয়ার করা হয়েছে। বাক স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে ক্লাসে প্রফেট মহম্মদের কার্টুন দেখানোর জন্য স্যামুয়েল প্যাটি নামে ওই শিক্ষকের মাথা কেটে খুন করা হয়। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকঁর এই আক্রমণকে ইসলামিক আতঙ্কবাদী আক্রমণ বলে অভিহিত করায় ফ্রান্সে এবং সারা বিশ্বে মুসলিমদের মধ্যে বিক্ষোভ তৈরি হয়। ফেসবুকে ভিডিওটি যে ক্যাপশনের সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে, "প্যরিসে মুসলিমরা মাস্ক না পরে অন্য যাত্রীদের উপর থুতু ফেলে। দেখুন পুলিশ তাদের কী হাল করে"।

ভিডিওটি বুমের টিপলাইন নম্বরেও শেয়ার করা হয় সঙ্গে হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন দেওয়া হয়, "फ्रान्स की राजधानी पैरिस में मुसलमानों द्वारा ट्रेन में दूसरों पर थूकने के कारण वहां की पुलिस ने क्या एक्सन लिया देखिये।"

আরও পড়ুন: ভারতীয় আহমেদ খান বাইডেনের পরামর্শদাতা নিযুক্ত হয়েছেন দাবিটি মিথ্যে

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে, ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে রোমানিয়ার বুখারেস্টে স্টেয়া এবং ডিনামো নামে দুই ক্লাব সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধার পর পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

ভিডিওটি এর আগে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত মিথ্যে দাবি নিয়ে ভাইরাল হয়। তখন মিথ্যে দাবি করা হয় যে ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, "কী ভাবে ইউনাইটেড নেশনসের পুলিশ রোমানিয়ায় মাস্ক পলিসি চাপিয়ে দিচ্ছে"। কয়েক জন টুইটার ব্যবহারকারী জানিয়ে দেন ভিডিওতে আসলে দুটি প্রতিদ্বন্দ্বী ফুটবল দলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের পর পুলিশকে তাদের গ্রেফতার করতে দেখা যাচ্ছে।


ডিজিস্পোর্ট নামে রোমানিয়ার খেলাধুলা সংক্রান্ত খবরের মাধ্যমে আমরা একটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখতে পাই। ওই প্রতিবেদনে ভাইরাল হওয়া ভিডিওর স্ক্রিনশট দেওয়া হয় এবং জানানো হয় যে, ১ অক্টোবর বুখারেস্টের স্তেফান সেল মেয়ার মেট্রো স্টেশনে একদল ফুটবলপ্রেমী হিংসাত্মক হয়ে ওঠে এবং রোমানিয়ার দাঙ্গা নিবারণকারী বিশেষ পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

ওই প্রতিবেদন অনুসারে স্টেয়া এবং ডিনামো নামের দুই ফুটবল ক্লাবের মধ্যের একটি ম্যাচের পর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। তার পর পুলিশ সংঘর্ষ থামানোর জন্য দুই দলকে আলাদা করে দেয়। যাদের আটক করা হয় তাদের কাছে ছুরি এবং ধারালো অস্ত্র পাওয়া যায়। রোমানিয়ার নিউজ পোর্টাল ইভিজেড একই ঘটনার উপর প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্যরিসের শিক্ষক খুন হওয়ার পর ওই ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কহীন বিভিন্ন ভিডিও এবং ছবি মিথ্যে দাবির সঙ্গে শেয়ার করা হয়। বুম এর আগে সে ধরনের ভুয়ো তথ্যের সত্যতা যাচাই করেছে এবং সেগুলিকে মিথ্যে প্রমাণ করেছে।

Updated On: 2020-11-17T18:42:54+05:30
Claim :   ভিডিওর দাবি ফ্রান্সে ট্রেনে থুতু ফেলার জন্য মুসলিম গ্রেফতার
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.