রিকশাচালকের হাহাকারের ভাইরাল ভিডিওটি আসলে বাংলাদেশের

বুম যাচাই করে দেখে ঘটনাটি ঢাকার ধানমন্ডির। স্থানীয় প্রশাসন ৫ অক্টোবর ২০২০ একটি উচ্ছেদ অভিযান চালায় সেখানে।

বাংলাদেশের একটি বেদনাদায়ক ভিডিওতে দেখা যায় ট্রাকে করে তাঁর রিকশা নিয়ে চলে যাওয়ায় এক রিকশাওয়ালা খুব কাঁদছেন। ভিডিওটি ভারতের বলে বিভ্রান্তিকর দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

বুম যাচাই করে যে, ভিডিওটি বাংলাদেশের ঢাকায় তোলা হয়েছে। সেখানে পৌরসভার আধিকারিকরা একটি উচ্ছেদ অভিযানের সময় তাঁর রিকশাটি বাজেয়াপ্ত করেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে এক ব্যক্তিকে কাঁদতে দেখা যাচ্ছে, আর তাঁর চারপাশের সাংবাদিকদের তাঁদের বাংলায় প্রশ্ন করতে শোনা যাচ্ছে। পিছনে যে সাইনবোর্ড আর হোর্ডিং দেখা যাচ্ছে, সবই বাংলায় লেখা। ভিডিওর নেপথ্যে অন্য মিউজিক দেওয়া হয়েছে।

অনেক সোশাল মিডায়া ব্যবহারকারী ক্লিপটি শেয়ার করেছেন এবং সঙ্গের ক্যাপশনে দেশের আইনকানুনের অবনতি নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেছেন এবং ভারতীয় রাজনৈতিক নেতাদের ট্যাগ করেছেন।

পোস্টগুলি নীচে দেখা যাবে। পোস্টগুলি আর্কাইভ করা আছে এখানে এখানে


অনেকগুলি টুইটারহ্যান্ডেল থেকে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে যাতে ভারতীয় রাজনৈতিক নেতাদের সাহায্য চাওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: অমতে বিয়ে না করতে বাবার অনুরোধের ভিডিও সাম্প্রদায়িক বার্তা সহ ভাইরাল

তথ্য যাচাই

বুম খুব ভাল করে ভিডিওটি যাচাই করে দেখতে পেয়েছে যে, ওই ব্যক্তির মুখের কাছে একটি বুম মাইক দেখা যাচ্ছে, যেখানে যমুনা টিভির লোগো দেখা যাচ্ছে।

আমরা দেখি যমুনা টিভির ইউটিউব চ্যানেলে ৬ অক্টোবর ২০২০ এই একই ভিডিও আপলোড করা হয়েছে।


যমুনা টিভি বাংলাদেশের একটি ২৪ ঘণ্টা ব্যাপী সংবাদ চ্যানেল

ভিডিওটিতে হেডলাইন দেওয়া হয়েছে: "এখন আমি খামু কী, গলায় দড়ি দিমু; এক রিকশাচালকের আর্তনাদ"। # রিকশা_পুলার।

ওই ব্যক্তিকে বাংলায় বলতে শোনা যাচ্ছে, "আমি এখন কি খাব? আমি গলায় দড়ি দিব। আমি ১৫ দিন আগে কিস্তিতে রিকশা কিনেছি। ট্রাফিক সার্জেন্টরা কিছু জানায়নি। আমি ধার শোধ করব কী ভাবে?"

২ মিনিট দীর্ঘ ভিডিওতে কিছু সূত্র আছে যা দেখে বোঝা যায় যে, ঘটনাটি ঢাকার। পিছনে সি মাইনর ক্যাফে দেখা যাচ্ছে, যেটি ঢাকার ধানমন্ডিতে রয়েছে।


আমরা টুইটারে অনেকগুলি পোস্ট দেখতে পাই যাতে ওই একই ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। যে সব ছবি শেয়ার করা হয়েছে তার মধ্যে একটিতে যে জেসিবিটি দেখা যাচ্ছে, তার উপর ঢাকা সাউথ সিটি কথাটি পরিষ্কার করে লেখা আছে। ছবিটির উপর বিডিনিউজ২৪.কম লেখার জলছাপ দেখা যাচ্ছে।


২০২০ সালের ৬ অক্টোবর বিডিনিউজ২৪-এর ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা একটি সংবাদ প্রতিবেদন আমরা দেখতে পাই।

ভিডিওটির সঙ্গে যে বর্ণনা দেওয়া হয়েছে তাতে লেখা হয়েছে, "ঢাকা সাউথ সিটি কর্পোরেশন জিগাতলা অঞ্চলে উচ্ছেদ অভিযান চালানোর সময় অনেকগুলি ব্যাটারি চালিত রিকশা তুলে নিয়ে যায়। এই রিকশাচালক তাঁর রোজগারের উপায় রিকশাটি হারিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন"।

বুম এর পর প্রাসঙ্গিক কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করে এবং ঢাকা ট্রিবিউনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন দেখতে পায়।

ওই প্রতিবেদনে শোকাহত এই ব্যক্তির নাম ফজলুর রহমান বলে জানানো হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয় যে, ঢাকা সাউথ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) চালানো একটি উচ্ছেদ অভিযানে রহমান তাঁর ব্যাটারিচালিত রিকশা হারিয়েছেন। রিকশাটি তিনি ৮০,০০০ টাকা (বাংলাদেশি মুদ্রা) ধার করে কিনেছিলেন। শহরকে ব্যাটারিচালিত রিকশা মুক্ত করতে ওই অভিযান চালানো হয়।

ওই প্রতিবেদন অনুসারে ঘটনাটি ৫ অক্টোবর ঘটে। রহমানের ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রিটেল চেন স্বপ্নের ডিরেক্টর তাঁকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন।

আরও পড়ুন: কুম্বলে ও দ্রাবিড়ের রাজনীতিতে যোগ না দেওয়ার খবরটি সাম্প্রতিক নয়

Claim Review :   ভিডিও দেখায় রিকশাচালকের রিকশা নিয়ে নিয়েছে প্রশাসন
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story