ফের বিভ্রান্তিকর দাবিতে ছড়াল মধ্যপ্রদেশ সরকারের জবরদখল উচ্ছেদের ঘটনা

বুম উজ্জয়িনীর পুলিশ সুপার সত্যেন্দ্র কুমার শুক্লর সঙ্গে অগস্ট মাসে কথা বলেছিল। তখন তিনি দাবিটি ভুয়ো বলে উড়িয়ে দেন।

Claim

প্রশাসনের নিরাপত্তায় মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর রেডোর হরি ফটকে সরকারি এলাকায় বেআইনি জবরদখল উচ্ছেদের ভিডিও বিভ্রান্তিকর দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে। ভিডিওটি শেয়ার করে ফেসবুক পোস্টে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়নীর গফুর বস্তি যেখানে তালিবান এবং পাকিস্তানের পক্ষে স্লোগান উঠেছিলো, শিবরাজ সিং সরকারের প্রশাসন পুরো বস্তিকেই ধ্বংস করে দিয়েছে, প্রশাসন হো তো এ্যাইসা.........."

Fact

বুম দেখে মূল ভিডিওটি মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়িনীর ইন্দোর রোডের হরি ফটক এলাকায় সরকারি জমি জবরদখল উচ্ছেদের ঘটনা। ২০২১ সালের অগস্ট মাসে উজ্জয়িনীর পুলিশ সুপার সত্যেন্দ্র শুক্লর সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ওই এলাকায় স্লোগান ওঠার ব্যাপারটা নস্যাৎ করে দেন। হিন্দি সংবাদমাধ্যম দৈনিক ভাস্কর, অগ্নিবাণ এবং দৈনিক অবন্তিকায় উচ্ছেদ অভিযান নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, উজ্জয়িনীর হরি ফটক সেতু ও মন্নত গার্ডেন এলাকার আশেপাশে বেআইনিভাবে গড়ে ওঠা প্রায় ২০০টি গ্যারেজ, মোটর গাড়ির যন্ত্রাংশের দোকান উচ্ছেদ করে। বুম উজ্জয়িনীর জিয়াজিগঞ্জ পুলিশ স্টেশনের আধিকারিকের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারে, পাকিস্তানের সমর্থনে স্লোগান ওঠার অভিযোগের ঘটনাটি ঘটে গীতা কলোনিতে। বুম ওই অভিযোগের সত্যতা স্বাধীনভাবে যাচাই করেনি।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2021-09-16T18:53:25+05:30
Claim Review :   তালিবান এবং পাকিস্তানের পক্ষে স্লেগান দেওয়ার পর মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়িনীর গফূর বস্তি ভেঙে ফেলা হল
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story