উত্তরপ্রদেশে দলিত নিগ্রহের ঘটনাকে বাংলাদেশে পারিবারিক নির্যাতন বলা হল

বুম দেখে ছবিটি ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে উত্তরপ্রদেশে দলিত পরিবারকে হেনস্থার ঘটনা, বাংলাদেশের সঙ্গে ছবিটির কোনও যোগ নেই।

Claim

২০১৫ সালে উত্তরপ্রদেশে এক দলিত পরিবারকে নগ্ন করে হেনস্থার ছবি ফেসবুকে বিভ্রান্তিকর দাবি সহ শেয়ার করা হচ্ছে। ফেসবুক পোস্টে দাবি করা হয়েছে বাংলাদেশে সহায়সম্বলহীন এক বাবা, তার মেয়ে ও নাতনিকে নির্যাতন করেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজন। পোস্টটিতে আরও দাবি করা হয় মেয়েটির স্বামী ভারতে শরনার্থী হয়ে থাকার পর আবার বাংলাদেশে ফিরে আসে। বিয়েরপর স্ত্রীকে ভারতে নিয়ে যওয়ার স্বপ্ন দেখায় এবং পরে মেয়েটির উপর নির্যাতন শুরু করে।

Fact

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ছবিটি উত্তর প্রদেশের গৌতমবুদ্ধ নগর দানকাউরের। ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে এক দলিত ব্যক্তি সুনীল গৌতম চুরির অভিযোগ জানাতে থানায় গেলে পুলিশ আধিকারিকরা সুনীলকে হেনস্থা করে। পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধে জাতিব‍ৈষম্য ও নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ আনা হয়। এর প্রতিবাদে তিন মহিলা থানায় গেলে পুলিশ একজনকে শ্রীলতাহানির চেষ্টা করে। ঘটনার প্রতিবাদে দুই মহিলা বিবস্ত্র হয়ে প্রতিবাদ করেন। ছবিটি ২০১৯ সালের জুন মাসে বাংলাদেশে হিন্দু পরিবারের উপর নির্যাতনের ঘটনা বলে ভাইরাল হয়েছিল। বুম সেসময় ছবিটিকে খণ্ডন করে।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2020-04-16T21:32:10+05:30
Claim Review :  ছবির দাবি বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপর ধর্মীয় নির্যাতনের ঘটনা
Claimed By :  Facebook posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story