তারকেশ্বরে মরফিন ভাইরাস সংক্রমণ বলে ফের ছড়াল চিকেন পক্সের পুরনো ছবি

বুম যাচাই করে দেখে চিকেন পক্স আক্রান্ত রোগীর ২০১৫ সালের ছবি ব্যবহার করে মরফিন ভাইরাসের গুজবটি বেশ কয়েক বছর ধরে ছড়াচ্ছে।

Claim

চিকেন পক্স আক্রান্ত এক ব্যক্তির ছবি সোশাল মিডিয়ায় মিথ্যে দাবি সহ হুগলি জেলার তারকেশ্বরে মরফিন ভাইরাসের প্রকোপ বলে ছড়ানো হচ্ছে। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টটির সারমর্ম হল—“ডাক্তার রজ্ঞন ডি সিলভা বলেছেন এই রোগ হুগলীর তারকেশ্বর এলো পোলট্রি মুরগির মাংস এর মাধ্যমে ছড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত অনেক রোগীকে বর্ধমানের মেডিক্যালে কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সবাইকে জানানো হচ্ছে যে আপনারা কেউ মুরগির মাংস বর্তমানে এক মাস পর্যন্ত খাবেন না এবং বাচ্চাদেরকে এর থেকে দূরে রাখবেন।” দাবি করা হচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে জনস্বার্থে নাকি প্রচার করা হচ্ছে ওই বার্তা। বুম এই বার্তাটি হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনেও পেয়েছে।

Fact

বুম মরফিন নামের কোনও ভাইরাসের অস্তিত্ব খুঁজে পায়নি। ভাইরাল ছবিটিকে ২০১৫ সালে ব্রিটিশ গণমাধ্যম মিররের একটি প্রতিবেদনে খুঁজে পাওয়া যায়। ছবিটিকে ওই প্রতিবেদনে ভাইরাস ঘটিত চিকেন পক্স আক্রান্ত ব্যক্তির বলে উল্লেখ করা হয়। বসন্তকালে সচরাচর এই রোগের প্রকোপ দেখা যায়। ২০১৮ সাল থেকে কখনও ভিডিও, আবার ছবির সাথে বারবার মরফিন ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ভুয়ো এই খবর জিইয়ে উঠেছে। ৪ জন ব্যক্তিকে সেবছর এই ভুয়ো খবর ছড়ানোর জন্য রাজ্য পুলিশের গোয়েন্দা দপ্তর গ্রেফতার করেছিল। বুম ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পরে আরও একবার ২০২১ সালের মে মাসে এই গুজবটি খণ্ডন করেছিল।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2022-05-05T10:01:45+05:30
Claim :   পশ্চিমবঙ্গের তারকেশ্বর এলাকার মানুষ মরফিন ভাইরাসে আক্রান্ত
Claimed By :  Facebook Posts & WhatsApp Message
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.