ভাইরাল ছবি নেপালের হাইকু পাখি বা অলৌকিক প্রাণী নয়

সুদৃশ্য পালকওয়ালা এই পাখির ছবি আমেরিকার শিল্পী ক্যালইন ম্যাকলিড এর শৈল্পিক সৃষ্টি।

কুমার শানু নামের একটি ছদ্মবেশী সোস্যাল মিডিয়া পেজ ৪ এপ্রিল ২০১৯ একটি ফেসবুক পোস্টে ক্যাপশন লিখেছেন - “বিরল সৃষ্টি, হাইকু পাখি পাওয়া গেল শুধুমাত্র নেপালে।” (বঙ্গানুবাদ)। পোস্টটিতে সুদৃশ্য পালকওয়ালা একই রকমের দুটি পাখির ছবি দেওয়া হয়েছে। এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত ৬ হাজারটি লাইক ও ১১ হাজার বার পোস্টটি শেয়ার হয়েছে।

পোস্টের আর্কাইভ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

তথ্য যাচাই

বুম হাইকু পাখি, নেপাল ইত্যদি শব্দে ইউটিউব ও গুগুল সার্চ করে দেখেছে কিছু ভিডিওতে একে নেপালের অলৌকিক প্রাণী ক্লাউড অ্যান্টিলোপ নামে দাবি করা হয়েছে। বাস্তবে এই নামের কোনও পাখি নেই।



বুম ছবিটি রিভার্স সার্চ করে দেভিয়ান্ট আর্ট নামে একটি ওয়েবসাইটের সন্ধান পায়। যেখানে ক্যালইন ম্যাকলিড ওরফে সিএমউইভার্ন, ক্লাউড অ্যান্টিলোপ নামে একজন আমেরিকার শিল্পী এই পুতুলরূপী শিল্প তৈরি করেছেন। এই ওয়েবসাইটে ও তার ব্যক্তিগত ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে ক্লিক করে এই রকমের নানা শৈল্পিক সৃষ্টি দেখা যাবে।

এখানে শিল্পীর ইন্সটাগ্রামের পেজ দেখুন।

হোয়াক্সফ্যাক্ট দুবছর আগে হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল হওয়া এরকম ছবি নিয়ে ছড়ানো গুজব খন্ডন করেছিল যা পড়া যাবে এখানে

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সোস্যাল মিডিয়ায় ছদ্মবেশি অ্যাকাউন্ট থেকে গুজব ছড়ানোর প্রবনতা সবচেয়ে বেশি। এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত কুমার শানু নামের এই ছদ্মবেশী অ্যাকাউন্টটি লাইক ও ফলো করেছেন যথাক্রমে ৩৬২১৪৪৪ ও ৩৬২৯২৪ জন। অ্যাকাউন্টটি সক্রিয় হয়েছে ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭। অপরদিকে নীল টিক দেওয়া কুমার শানুর আসল অ্যাকাউন্টটি সক্রিয় হয় ৭ মে ২০১৪। প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত যার লাইক ৩২৯৪৮২২ ও ফলোয়ার সংখ্যা ৩২৩৫০২৫।

ছদ্মবেশি অ্যাকাউন্ট অনেক সময় উগ্র রাজনৈতিক মতাদর্শ ও ধর্মীয় উস্কানিমূলক প্রচারের আঁতুরঘর হয়ে ওঠে। এনিয়ে বুম আগে খবর প্রকাশ করেছে যা পড়া যাবে এখানে

Claim Review :  ভাইরাল ছবি নেপালের হাইকু পাখি বা অলৌকিক প্রাণীর
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story