বাংলাদেশের সংখ্যালঘু সমাজকর্মী প্রিয়া সাহাকে বিমানবন্দরে আটক করা হয়েছে? খবরটি ভুয়ো

সম্প্রতি প্রিয়া সাহা বংলাদেশের সংখ্যালঘু ধর্মাবলম্বীদের নির্যাতিত হওয়ার কথা আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প আয়োজিত এক বৈঠকে বলেন। তথ্য বিকৃতির অভিযোগে তিনি বাংলেদেশে সমালোচিত হয়েছেন।

সোশাল মিডিয়ায় একটি ইউটিউব লিঙ্ক শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে প্রিয়া সাহাকে বিমানবন্দর থেকে আটক করা হয়েছে। এমন এক সময় এই খবর ছড়ানো হচ্ছে যখন প্রিয়া সাহার সাম্প্রতিক বক্তব্য নিয়ে বাংলাদেশে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

প্রিয়া সাহা ছিলেন বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি আমেরিকার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করে বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে ১ কোটি ৩৭ লক্ষ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা হারিয়ে গেছে।’

ভাইরাল হওয়া পোস্টটিতে একটি ইউটিউব লিঙ্ক শেয়ার করা হয়েছে। যার শিরেনাম লেখা হয়েছে, ‘‘এই মাত্র পাওয়া অবশেষে বিমান বন্দর থেকে আটাক করা হল প্রিয়া সাহাকে।’’

এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত পোস্টটি লাইক করেছেন ৮১২ জন ও শেয়ার করেছেন ৮৭ জন। পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম বাংলাদেশের বিভিন্ন জাতীয় গণমাধ্যমের সংবাদ যাচাই করে দেখেছে প্রিয়া সাহাকে আটাক বা গ্রেফতারির কোনও প্রতিবেদন খুঁজে পায়নি।

২০ জুলাই ২০১৯ তারিখে ওই ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল। অন্তত সে সময়ে প্রিয়া সাহাকে কোথাও আটক বা গ্রেফতার করেনি বাংলাদেশ সরকার।

২০ জুলাই ২০১৯ আপলোড করা হয়েছিল ভিডিও। ইউটিউব স্ক্রিনশট।

পোস্টে শেয়ার করা ইউটিউব লিঙ্কটি নীচে দেওয়া হল। এপর্যন্ত ৪৩,৫৩৫ জন ভিডিওটি দেখেছে।



ভুয়ো খবরের ইউটিউব লিঙ্কটি। ২০ জুলাই ২০১৯ আপলোড করা হয়েছিল ভিডিওটি।

ভিডিওটিতে প্রিয়া সাহা কোন বিমানবন্দরে কবে গ্রেফতার হয়েছে এসব তথ্য উল্লেখ না করে সম্পূর্ণ ভিন্ন প্রসঙ্গ উল্লখ করে বাংলাদেশের আবাস ও পূর্তমন্ত্রী এস এম রেজাউল করিমের বক্তব্য তুলে ধরা হয়। তার পর যোগ করা হয় প্রিয়া সাহা সম্পর্কে বক্তার নিজস্ব ন্যারেটিভ।

ইউটিউব চ্যানেলের লিঙ্কটি আরকে একতা মিডিয়ার। এটি কোনও গণমাধ্যম নয়। কৌশিক আহমেদের ইউটিউব চ্যানেল। এবছরের ২০ ফেব্রুয়ারি কৌশিক তার ফেসবুক প্রোফাইলে এই ইউটিউব চ্যানেলটিকে সাবস্ক্রাইব করার অনুরোধ জানায়।(আর্কাইভ লিঙ্ক)

প্রিয়া সাহা আত্মপক্ষ সমর্থনে যে সমাজবিজ্ঞানীর পরিসংখ্যান তুলে ধরেছিলেন বর্তমানে বংলাদেশ ইকোনমিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক আবুল বরকত অবশ্য প্রিয়া সাহার বক্তব্যে তথ্য বিকৃতির অভিযোগ এনেছেন।

আবুল বরকত বলেন, ‘‘আনুমানিক ১ কোটি ১৩ লক্ষ হিন্দু ১৯৬৪-২০১৩ সাল গত পাঁচ দশকে হারিয়ে গেছেন। এই পরিসংখ্যানের সঙ্গে প্রিয়া সাহা আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বা তার ভিডিও বর্তায় কোট করে যা বলেছেন তার কোনও মিল নেই।’’ প্রিয়া সাহা এখনও পর্যন্ত ১ কোটি ৩৭ লক্ষ সংখ্যালঘু কত সাল থেকে হারিয়েছেন সেকথা ট্রাম্পকে বলা বক্তব্যে বা পরবর্তীতে তার ভিডিও বার্তায় উল্লেখ করেননি।

প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রবিবার সকালে দুটি পৃথক দেশদ্রহিতার মামালা রুজু করা হয়। দু’জন বিচারপতির এজলাসে ওঠে ওই মামলা দুটি। দুটি মামলায় খারিজ করে দেন বিচারপতিরা।

প্রিয়া সাহাকে বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক কাজকর্ম থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচারের একটি ভুয়ো ছবি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। বুমের খন্ডন করা প্রতিবেদনটি পড়া যাবে এখানে

Claim Review :  প্রিয়া সাহা বিমানবন্দরে আটক
Claimed By :  YOUTUBE LINK
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story