সুইডেনের কার্টুন শিল্পীর মৃত্যুতে জুড়ল ২০১৪ সালের অগ্নিদ্বগ্ধ গাড়ি

বুম দেখে ওই দুর্ঘটনাটি উডমুর্ট রিপাবলিকের মজগা-ইজহেভস্ক হাইওয়েতে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ঘটনা।

রাশিয়ার উডমুর্ট রিপাবলিকে (Udmurt Republic) একটি গাড়ি দুর্ঘটনায় গাড়িতে আগুন ধরে যেতে দেখা যাচ্ছে এই অস্বস্তিকর ভিডিও মিথ্যে দাবি সহ সুইডেনের (Sweden) ব্যঙ্গচিত্র (cartoonist) শিল্পী লার্স ভিক্স (Lars Vilks) মৃত্যুর সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ভিক্স ৩ অক্টোবর ২০২১ এক পথ দুর্ঘটনা (accident) এক দুর্ঘটনায় মারা যান।

৭৫ বছর বয়সী লার্স ভিক্স দক্ষিণ সুইডেনের শহর মারকারিডে এক গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা যান। লার্স ভিক্স ২০০৭ সালে কুকুরের দেহে নবী মহম্মদের মুখ বসিয়ে একটি ছবি আঁকলে বিশ্বজুড়ে বিতর্ক শুরু হয়। সুইডেনের পুলিশ তাঁর মৃত্যুর কারণ ক্ষতিয়ে দেখছে। তবে জানা গেছে দুর্ঘটনাটি যে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, তার কোনও সুস্পষ্ট প্রমাণ পুলিশ খুঁজে পায়নি

ভাইরাল ভিডিওতে কিছু লোককে একটি দাউ দাউ জ্বলতে থাকা গাড়ির আগুন নেভানোর মতো ভয়ঙ্কর দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। একটি মুখোমুখি সংঘর্ষের পর গাড়িটিতে আগুন ধরে যায়। বুম দেখে রাশিয়ায় উডমুর্টের রাজধানী ইজহেভস্ক যাওয়ার রাস্তায় ওই দুর্ঘটনাটি ঘটে। গাড়িটিতে আগুন লেগে গেলে, তার মধ্যে আটকে-পড়া এক ব্যক্তি মারা যান।

ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে। সেটির ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "সুইডেনের উন্মাদ কার্টুনিস্ট পুড়ে মরার সময় চিৎকার করছে।"

ভিডিওটিতে অস্বস্তিকর দৃশ্য আছে। দেখার আগে সাবধানতা নিন।

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

'পিওর ইসলাম' নামের একটি ইউটিউবে চ্যানেলেও ভিডিওটিকে আপলোড করা হয়। সেটির শিরোনামে লেখা হয়, "সুইডেনের কার্টুন শিল্পী পুড়ে মরতে মরতে চিৎকার করছে"।

যাচাইয়ের জন্য ভিডিওটি বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনেও পাঠানো হয়।

তথ্য যাচাই

ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখে ভিডিওটির সঙ্গে সুইডেনের কার্টুন শিল্পী লার্স ভিক্স-এর মুত্যুর কোনও সম্পর্ক নেই।

আমরা দেখি ২৩ এপ্রিল ২০১৪ একই ভিডিও 'সারগেই সারগেই' নামের এক ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা হয়। রুশ ভাষায় লেখা ক্যাপশনে বলা হয়, "পথদুর্ঘটনা ০৯/২১/২০১৪। ইজহেভস্ক-মোজগা রাস্তায় ঘটে। লোকটি জীবন্ত পুড়ে মারা যান!!!"

এই সূত্র ধরে সার্চ করলে আমরা দেখি, রুশ ভাষার আরইএন টিভি ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ওই ভিডিওটি আপলোড করে। শিরোনামে বলা হয়, "ইজহেভস্ক'এর কাছে হাইওয়েতে গাড়ির চালক জীবন্ত পুড়ে মারা যান"।

ক্যাপশন দিয়ে সার্চ করলে আমরা ওই ঘটনা সংক্রান্ত বেশ কিছু সংবাদ প্রতিবেদন দেখতে পাই।

রুশ সংবাদ সংস্থা 'ফনটাঙ্কা' ওই মুখোমুখি সংঘর্ষের ওপর রিপোর্টে বলে, ইজহেভস্ক-মজগা হাইওয়েতে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ওই দুর্ঘটনা ঘটে। উডমুর্টের রাজধানী হল ইজহেভস্ক।

আরইএন টিভির প্রতিবেদনে প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণ প্রকাশ করা হয়।"একটি মালবোঝাই ট্রাক গাড়িটিকে পিষে দেয়। গাড়ির আগুন নেভানোর যন্ত্র যথেষ্ট পরিমাণে ছিল না। তারা জল দিয়ে আগুনটি লেভানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তারা আগুন পুরোপুরি নেভাতে পারে না। এবং চালক গাড়ির মধ্যেই মারা যায়"।

উডমার্টিয়ার আরও একটি সংবাদ সংস্থা 'ইজহেভস্ক নিউজ লাইফ' তাদের রিপোর্টে লেখে, "এই ঘটনায় পুলিশ একটি অপরাধের মামলা দায়ের করেছে। ৩৯ বছরের মৃত ব্যক্তিকে ইজহেভস্ক'এর বাসিন্দা বলে শনাক্ত করা হয়েছ।"

ওই ঘটনা সম্পর্কে প্রতিবেদন এনটিভিকমসোমলস্কায়া প্রাভদা-তেও পড়া যাবে।

আরও পড়ুন: ২০১৬ সালে সীতারাম ইয়েচুরির এথেন্সে ভাষণের ছবি সাম্প্রতিক বলে ভাইরাল

Updated On: 2021-10-10T15:27:33+05:30
Claim Review :   ভিডিও দেখায় সুইশ কার্টুন শিল্পীর আগুনে পুড়ে মরণ চিৎকার
Claimed By :  Facebook Posts, YouTube & WhatsApp Message
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story