বিভ্রান্তি সহ ছড়াল গুজরাতের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণীর লালবাতি খোলার পুরনো ভিডিও

বুম দেখে ভাইরাল ভিডিওটি ২০১৭ সালের। গুজরাতের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণী স্বহস্তে নিজের গাড়ির লালবাতি খুলে নেন।

গুজরাতের (Gujarat) প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণীর (Vijay Rupani) ২০১৭ সালে নিজের গাড়ি থেকে লালবাতি (Red Beacon) খুলে নেওয়ার ভিডিও বিভ্রান্তিকর দাবি (Misleading Claim) সহ সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে।

২০১৭ সালে রাজকোট পশ্চিম কেন্দ্র থেকে জিতে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়া বিজয় রূপাণীর পদত্যাগের পর ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়ায় নেটিজেনরা সাম্প্রতিক ঘটনা বলে ভুল করছেন।

১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার গুজরাতের সপ্তদশ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ঘাটলোধিয়া থেকে জিতে আসা প্রথমবারের বিধায়ক পাতিদার সম্প্রদায়ভুক্ত ভূপেন্দ্র পটেল (Bhupendra Patel)। ২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে পাতিদার সম্প্রদায়ের ভোট নিজেদের বশে রাখতে এই রদবদল বলে মনে করছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ৩০ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে দেখা যায় একটি গড়ির ছাদে লাগানো লালবাতি (Red Beacon) নিজের হাতে খুলে নিরাপত্তরক্ষীর হাতে দেন।

ভিডিওটি শেয়ার করে ফেসবুক পোস্টে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "সম্মান ও প্রশংসা চাইলে পাওয়া যায় না একে অর্জন করতে হয়... কোন অভিযোগ ছাড়াই যে ব্যক্তি নিজের হাতে নিজের গাড়ীর লালবাতি সরিয়ে দিতে পারে সেই ব্যক্তি সবসময় মানুষের হৃদয়ে বিরাজ থাকে পৃথিবীর কোনো শক্তিই তাকে সেখান থেকে সরাতে পারে না... আপনি সত্যিই মহান রুপানিজী।" (বানান অপরিবর্তিত)

ভিডিওটি দেখা যাবে এখানে


আরও পড়ুন: না, এই নন্দী মূর্তিটি কোনও মসজিদের নিচে পাওয়া যায়নি

তথ্য যাচাই

'বিজয় রূপাণী লালবাতি খুলছেন' লিখে গুগলে গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করলে দেখা যায় ভাইরাল ভিডিওটি সাম্প্রতিক ঘটনা নয়।

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে গুজরাতি গণমাধ্যম "এবিপি অস্মিতা"-র লোগো দেওয়া রয়েছে। এই সূত্র ধরে বুম সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যম এবিপি অস্মিতার ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৭ সালের ২০ এপ্রিল প্রকাশিত রিপোর্টের একটি ভিডিও খুঁজে পায়।

ওই ভিডিওটে নিজের গড়ির ছাদে লাগানো লালবাতি (Red Beacon) স্বহস্তে খুলে নিরাপত্তরক্ষীর হাতে দেন বিজয় রূপাণী। বর্তমানে ভাইরাল হওয়া ভিডিও এবং এবিপি অস্মিতার ওই রিপোর্টটি আসলে একই।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ায় ২০ এপ্রিল ২০১৭ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, কেন্দ্র সরকার নির্দেশিকা জারি করার পর গুজরাতের রাজ্য সরকারও "অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি"-দের ক্ষেত্রেও লালবাতি ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নেয়। বিজয় রূপাণীর লালবাতি খোলার ছবি রয়েছে ওই প্রতিবেদনে।

সেসময় কেন্দ্র সরকার নির্দেশিকা জারি করে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মুখ্য বিচারপতি এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সহ অন্যান্য অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিও তাঁদের গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার করতে পারবে না। শুধুমাত্র জরুরি বা আপৎকালীন পরিষেবার গাড়ি ট্রাফিকের ভিড় ঠেলে এগিয়ে যেতে সাইরেন বাজাতে পারবে বলে জানানো হয় ওই নির্দেশিকায়। সুপ্রিম কোর্টের ২০১৩ সালের এক রায় বাস্তবায়ন করতে সরকার ওই পদক্ষেপ গ্রহণ করে।

Updated On: 2021-09-14T18:07:40+05:30
Claim Review :   গুজরাতের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপাণী নিজে হাতে গাড়ির লালবাতি খুলছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story