না, এই নন্দী মূর্তিটি কোনও মসজিদের নিচে পাওয়া যায়নি

বুম দেখে নন্দীর ভাইরাল ছবিটি খনন কাজ চলার সময় তামিলনাড়ুর নামাক্কল জেলায় সেল্লানদিয়াম্মান মন্দিরের তলায় পাওয়া যায়।

তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) নামাক্কল জেলায়, একটি মন্দিরের নিচে মাটিতে চাপা পড়ে থাকা হিন্দু দেবতা নন্দীর (Nandi Idol) একটি ছবি এই বলে শেয়ার করা হচ্ছে যে, সেটি এক মসজিদের (Mosque) নিচে খনন কাজ চালানোর সময় পাওয়া গেছে।

ছবিটির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়েছে। "সব মসজিদের নিচে এই সত্য চাপা পড়ে আছে।"



টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

(হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: हर मजार या मस्जिद कि यही सच्चाई है।)


তথ্য যাচাই

বুম দেখে যে, তামিলনাড়ুর নামাক্কল জেলায় একটি মন্দিরে খনন কাজ চলাকালে নন্দীর মূর্তিটি পাওয়া যায়। কোনও মসজিদের তলায় পাওয়া যায়নি সেটি, যদিও তেমনটাই দাবি করা হচ্ছে।

গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে বুম দেখে, ছবিটি সেল্লানদিয়াম্মান মন্দিরের। তামিলনাড়ুর নামাক্কল জেলার আরিয়ু গ্রামে খনন কাজ চলাকালে সেটি পাওয়া যায়।

ওই একই ফটো এর আগে টুইটার হ্যান্ডল 'লস্ট টেম্পলস' টুইট করে ছিল। সঙ্গের ক্যাপশনে লেখা ছিল, "গতকাল নামাক্কল জেলার মহানুর এরিয়ুর আরুলমিগু সেল্লানদিয়াম্মান মন্দির চত্বর সম্প্রসারণের জন্য খনন কাজ করার সময়, মাটির তলায় একটি বড় নন্দীর মূর্তি পাওয়া যায়।"

নামাক্কল জেলার উল্লেখ থাকায়, আমরা সেটিকে সূত্র ধরে কি-ওয়ার্ড সার্চ করি। তার ফলে, ওই ঘটনা সংক্রান্ত কয়েকটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখতে পাই আমরা।

'পুথিয়াথালাইমুরাই'-তে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিটি সেল্লানদিয়াম্মান মন্দিরের। সেটি এখন সংস্কার করা হচ্ছে। মন্দিরটিকে ঘিরে দেওয়াল তোলার জন্য গর্ত খোঁড়ার সময় নন্দীর মূর্তিটি পাওয়া যায়। ভাইরাল ছবিটিকে আমরা ওই রিপোর্টে দেখতে পাই। ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, 'পুথিয়াথালাইমুরাই' টিভির ভিডিওতেও ওই ছবি দেখা যায়।

রিপোর্টটিতে আরও বলা হয় যে, মন্দির কর্তৃপক্ষ মূর্তিটি রাজস্ব দফতরের আধিকারিকদের হাতে তুলে দিয়েছেন এবং প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের বিশেষজ্ঞরা সেটিকে পরীক্ষা করছেন।

তামিল ওয়েবসাইট 'দিনামালার'-এ আমরা ওই ছবিটি সমেত একটি প্রতিবেদন দেখেতে পাই।

Updated On: 2021-09-14T13:41:46+05:30
Claim Review :   মসজিদের নিচে খনন করে পাওয়া গেল নন্দী মূর্তি
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story