বিহারের ঋতুরাজ চৌধুরি গুগল হ্যাক করেননি, তিনি একটি বাগ সম্পর্কে জানান

বুমকে ঋতুরাজ চৌধুরি বলেন গুগল তাদের গবেষকদের তালিকায় ঋতুরাজকে নথিভুক্ত করে পুরস্কৃত করেছে কিন্তু কোনও চাকরি দেয়নি।

মনিপুর আইআইটির বিটেকের ছাত্র ঋতুরাজ চৌধুরি (Rituraj Choudhary) ৫১ সেকেন্ডের জন্য গুগল হ্যাক করে রেখেছিলেন। এই খবরে সোশাল মিডিয়ায় সাড়া পড়ে গেছে। সোশাল মিডিয়া পোস্টগুলিতে আরও দাবি করা হয়েছে যে, গুগল (Google) চৌধুরীকে " ৩.৬৬ কোটি টাকা প্যাকেজের" চাকরিও অফার করেছে।

বুম যাচাই করে দেখে এই দাবি আসলে মিথ্যে। বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে চৌধুরি গুগুলের একটি গলদ খুঁজে বার করেছে যা গুগল স্বীকার করে নেয়। আমরা চৌধুরির সঙ্গেও কথা বলি। তিনি এইসব দাবি উড়িয়ে দিয়ে এগুলি ভুয়ো দাবি বলে জানিয়ে দেন। তিনি আমাদের জানান যে, গুগল তার গবেষকদের তালিকায় ঋতুরাজকে নথিভুক্ত করে তাঁকে পুরস্কৃত করেছে কিন্তু কোনও চাকরির অফার দেয়নি।

একটি বার্তায় ঋতুরাজ জানিয়েছেন, " আমি গুগলের কাছ থেকে কোনো প্যাকেজ বা চাকরির অফার পাইনি। আমি গুগুলের কিছু হ্যাকও করিনি। শুধু একটা বাগ ছিল যা আমি রিপোর্ট করি। আর এখন আমি বি টেকের দ্বিতীয় বর্ষেই পড়ি। এইসব খবর আসলে ভুয়ো।"

ভাইরাল হওয়া পোস্টগুলির মধ্যে একটিতে চৌধুরীর ছবি দিয়ে যে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে তার অনুবাদ।

" পরশুদিন রাত ১:০৫:০৯ বিহারের ছেলে ঋতুরাজ চৌধুরী গুগলকে জোর ধাক্কা দেয়। সে গুগুলকে ৫১ সেকেন্ডের জন্য হ্যাক করে রাখে। হ্যাক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে বসে থাকা গুগল কর্মকর্তাদের মধ্যে সাড়া পড়ে যায়। আমেরিকার অফিসে তোলাপাড় শুরু হয়ে যায়। কি হচ্ছে তারা বুঝে ওঠার আগেই ৫১ সেকেন্ডের মধ্যে ঋতুরাজ সার্ভিস রেস্টোর করে দেয় এবং গুগলকে মেইল করে জানিয়ে দেয় যে তোমাদের ভুলের জন্য আমি হ্যাক করতে সক্ষম হয়েছি।

এখানে যেহেতু তখন রাত ছিল তাই এরপর ঋতুরাজ ঘুমিয়ে পড়ে। কিন্তু ই-মেইলের ওই লেখা পড়ে আমেরিকানরা শান্ত হয়ে বসে থাকতে পারেনি। ই-মেইলে যেসব তথ্য দেওয়া হয়েছিল সেসব ফলো করে তাঁরা ১ সেকেন্ডের জন্য গুগল হ্যাক করতে সক্ষম হন এবং নিজেদের ভুল বুঝতে পারেন। আমেরিকায় ১২ ঘন্টা ধরে মিটিং চলে এবং শেষ পর্যন্ত ওই ছেলেটিকে ডাকার সিদ্ধান্ত হয়। রাত ২ টার সময় ঋতুরাজের কাছে একটি ই-মেইল আসে যাতে লেখা হয়, ' আমরা তোমার দক্ষতাকে কুর্নিশ জানাই, তুমি আমাদের সঙ্গে কাজ করো … আমাদের আধিকারিকরা তোমাকে নিতে আসবে।" তারপরই দ্বিতীয় একটি মেইলের মাধ্যমে গুগুল ঋতুরাজকে জয়েনিং লেটার পাঠায় যাতে ৩.৬৬ কোটি টাকার প্যাকেজের উল্লেখ করা হয়।

ঋতুরাজের পাসপোর্ট ছিল না। গুগল ভারতীয় কতৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এবং দুঘন্টার মধ্যে পাসপোর্ট তাঁর বাড়িতে পৌঁছে যায়। ঋতুরাজ আজ প্রাইভেট জেটে চেপে আমেরিকা যাবে। ঋতুরাজ মনিপুর আইআইটির বি টেকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। ঋতুরাজ #বেগুসরাইয়ের কাছে #মুঙ্গেরগঞ্জ নামে একটি #ছোটো গ্রামের বাসিন্দা। জয় বিহার…।"- ভাইরাল হওয়া বার্তা।


আমরা হিন্দিতে লেখা কিছু পোস্টও দেখতে পাই যেখানে চৌধুরি গুগুল হ্যাক করেছে এবং তারপর চাকরির অফার পেয়েছে বলে এই একই দাবি করা হয়েছে। পোস্ট দেখুন এখানেএখানে


আমরা নিউজ নেশনের করা একটি প্রতিবেদনও দেখতে পাই। ওই প্রতিবেদনের শিরোনামে দাবি করা হয়েছে যে গুগলে 'বাগ' ধরে ফেলার পর চৌধুরী কোটিপতি হয়ে গেছে। তবে প্রতিবেদনের ভিতর অন্য কোথাও চৌধুরির কোটিপতি হওয়ার বিষয়ে বা গুগুল হ্যাক হওয়ার বিষয়ে কোনো উল্লেখ নেই।

আরও পড়ুন: কর্নাটক হিজাব বিতর্ক: সাংবাদিক রানা আয়ুব ও রাজনীতিক নাজমা নাজিরের ছবি ছড়াল মুসকান বলে

তথ্য যাচাই

আমরা "ঋতুরাজ চৌধুরী গুগল" কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করি এবং তাঁর উপর কয়েকটি প্রতিবেদন দেখতে পাই। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার করা এরকমই একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, চৌধুরি গুগুলে একটি বাগ শণাক্ত করেছেন এবং সেটি কোম্পানীকে জানিয়েছেন।

ওই প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করা হয় যে, গুগুল তাঁকে নিজেদের গবেষকদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে তাঁকে পুরস্কৃতও করেছেন। গুগলের একজন 'বাগ হান্টার' হিসাবে চৌধুরীর নাম দেখতে পাওয়া যাবে।

চৌধুরী টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন যে তিনি গুগলের যে গলদটি ধরে ফেলেছেন সেটি দিয়ে " অনায়াসেই হ্যাকাররা হ্যাক করতে পারে এবং সমস্ত গোপনীয়তা ভেঙ্গে সব তথ্য চুরি করতে পারে।" তবে ঐ প্রতিবেদনে কোথাও উল্লেখ করা হয়নি যে চৌধুরি নিজে গুগল হ্যাক করেছেন। এমনকি ভাইরাল মেসেজে যেমন দাবি করা হয়েছে যে গুগুল তাঁকে চাকরি অফার করেছে বা দু'ঘণ্টায় তাঁকে পাসপোর্ট জোগাড় করে দিয়েছে এসব কোনো বিষয় ওখানে উল্লেখ করা হয়নি।

গুগল সার্চ করে আমরা ঋতুরাজ চৌধুরীর নামে একটি 'লিঙ্কডইন' অ্যাকাউন্ট দেখতে পাই। সেখানে তিনি নিজেকে মনিপুর আইআইটির দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সেইসঙ্গে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ে উৎসাহী, 'বাগ হান্টার' এবং কোডার হিসাবে নিজের পরিচয় দিয়েছেন।

লিঙ্কডইনের একটি পোস্টে চৌধুরী জানিয়েছেন যে তিনি গুগলের কাছ থেকে কোনো প্যাকেজ বা কোনো চাকরির অফার পাননি। তিনি গুগল হ্যাকও করেননি।

আমরা এরপর ঋতুরাজের সঙ্গে মেসেজের মাধ্যমে যোগাযোগ করি এবং তিনি লিঙ্কডইন-এ যে পোস্ট দিয়েছেন সেটি সঠিক বলে জানান।

আরও পড়ুন: হিজাব বিতর্ক: মিথ্যে দাবিতে ছড়াল ছেলেদের গেরুয়া পাগড়ি ফেরানোর ভিডিও

Claim :   বিহারের ঋতুরাজ চৌধুরি ৫১ সেকেন্ড গুগল হ্যাক করেছিল, গুগল চাকরি অফার করেছে
Claimed By :  Facebook Post, News Nation
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.