শীতলকুচির জখম জওয়ান বলে ধানবাদের ছবি ছড়ালেন বাংলার বিজেপি নেতারা

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ছবিটি ধানবাদের ভিমাকানালী সিআইএসএফ ক্যাম্পে ৯ এপ্রিল ২০২১ এএসআই এসপি শর্মার উপর লেঙ্গুর হানার।

ঝাড়খন্ডের ধানবাদের বাঘমারার ভিমাকানালী সিআইএসএফ ক্যাম্পে এএসআই এসপি শর্মার (SP Sharma) উপর লেঙ্গুর (langoor attack) হানার ছবিকে মিথ্যে দাবি সব বলা হল কোচবিহারের শীতকুচিতে (Sitalkuchi) আহত হওয়া জওয়ান (jawan)।

চতুর্থ দফার নির্বাচনে ১০ এপ্রিল ২০২১ কোচবিহারের শীতলকুচির জোরাপাটকি গ্রামের ১২৬ নম্বর বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মারা যায় ৪ ব্যক্তি। ওই দিন দুস্কৃতকারীদের গুলিতে জায়গির গোলেনাওহাটি ফিফথ প্ল্যান প্রাইমারি স্কুল ২৮৫ নম্বর বুথে মৃত্যু হয় আরেক বিজেপি কর্মীর। ঘটনা দুটি নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর চলছে।

নির্বাচন কমিশনের তরফে বিস্তারিত রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে ওই ঘটনার। কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গ্রামবাসীরা ঘেরাও করলে তাঁরা গুলি চালাতে বাধ্য হন বলে পুলিশের রিপোর্ট। কমিশন বা প্রশাসনের তরফে এখনও পর্যন্ত ঘটনার কোনও ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করা হয়নি। তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটানাকে "গণহত্যা" বলে আখ্যা দিয়েছেন।

আহত এক নিরাপত্তা কর্মী যার গালের পাশে মাংস ঝুলে রয়েছে এরকম একটি ছবি রবিবার রাতের দিকে টুইট করেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। ওই টুইটে লেখা হয়, "চতুর্থ দফার ভোটের দিন কোচবিহারের শীতলকুচি-তে @CISFHQrs সিআইএসএফ জওয়ানদের উপর হামলা চালায় @AITCofficial তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। বন্দুক ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। গুরুতর জখম হন এক জওয়ান। তাই আত্মরক্ষার্থে গুলি চালাতে বাধ্য হয় কেন্দ্রীয় বাহিনী।"

টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

সতর্কতা: ছবিটি অস্বস্তিকর

একই বয়ানে ছবি টুইট করেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ ও দক্ষিণ কলকাতার বিজেপি মহিলা মোর্চার সহ-সভাপতি কেয়া ঘোষটুইটারে একাধিক বিজেপি সমর্থকরাও ব্যাপকভাবে শেয়ার করেন ওই ছবি।

ওই একই ছবি টুইট করেছেন বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ। তিনি লেখেন, "একটি ছবি হাজার শব্দের থেকে ওজনে ভারি। মমতা দাবি করেছেন শিতলকুচিতে সিএসআইএফ জওয়ানদের উপর হামলা করা হয়নি। জঘম জওয়ানের ছবির হামলার ভয়াবহতা খোলসা করে। মমতার উস্কানিতে তৃণমূলের গুন্ডারা কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর হামলা করেছিল। সব কিছু পরিস্কার।"

টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

(মূল হিন্দিতে টুইট: "एक तस्वीर हजारों शब्दों पर भारी होती है। @MamataOfficial ने दावा किया कि शितलकुची में @CISFHQrs के जवानों पर हमला नहीं किया गया। घायल जवान की तस्वीर हमले की भयावहता को उजागर करती है। ममता के उकसावे पर @AITCofficial के गुंडों ने सेंट्रल फ़ोर्स पर हमला किया था। सब कुछ साफ हो गया।")

ফেসবুকে ভাইরাল

এই আহত জওয়ানের ছবিটি ফেসবুকে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।


আরও পড়ুন: বিজেপির প্রতীক সহ পুরনো গাভীর ছবি বাংলায় ভোট প্রচার বলে ছড়াল

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল জওয়ানের ছবিটি ১০ এপ্রিলের ঘটনায় কোচবিহারের শীতলকুচিতে আহত হওয়া জওয়ানের ছবি নয়।

বুম ছবিটিকে রিভার্স সার্চ করে জাগরণে প্রকাশিত শনিবার ১০ এপ্লিল ২০২১ এর একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায়। ঝাড়খন্ডের ধানবাদের বাঘমারার ভিমাকানালী সিআইএসএফ ক্যাম্পে এএসআই এসপি শর্মার উপর লেঙ্গুর হানার ছবি এটি। শুক্রবার এএসআই এসপি শর্মার চোয়ালের পাশে গালের মাংস খুবলে নেয় লেঙ্গুর। শর্মা ডিউটি করার সময় ৪ টে লেঙ্গুর আক্রমণ করে। লাঠি দিয়ে তাড়নোর চেষ্টা করলে লেঙ্গুরে আঁচড়ে মাংস খুবলে নেয় গালের।

বুমের তরফে সিআইএসএফ ধানবাদ সদর দফতরে যোগাযোগ করা হয়ে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করা হয়। এসআই প্রদীপ কুমার বুমকে বলেন, "৯ এপ্রিল সন্ধ্যে ৬ টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। বাঘমারার বিকে২ এলাকার কয়লা খাদান এলাকা যা লেঙ্গুর আক্রমণের জন্য কুখ্যাত সেখানে এএসআই শর্মা কর্তব্যরত ছিলেন। সূত্র অনুযায়ী আক্রমণ করা লেঙ্গুরটি মানসিক ভারসাম্যহীন। প্রদীপ আরও বলেন তড়িঘড়ি ধানবাদ কেন্দ্রীয় হাসপাতালে শর্মাকে নিয়ে যাওয়া হয় সেখানে তিনি এখনও চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন: ছাপ্পা ভোটের পুরনো ভিডিও ছড়াল পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা ভোটের ঘটনা বলে

Updated On: 2021-04-13T19:02:29+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি কোচবিহারের শীতলকুচিতে তৃণমূল কর্মীদের হাতে জঘম হওয়া জওয়ান
Claimed By :  Suvendu Adhikari, Arjun Singh, Saumitra Khan & Keya Ghosh
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story