সাঁতারু সায়নী দাসের সদ্য রেকর্ড ভুয়ো দাবিতে ছড়াল বুলা চৌধুরির ছবি

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল ছবিটি পদ্মশ্রী বুলা চৌধুরির। সায়নী দাস ২০১৯ সালে উত্তর আমেরিকার ক্যাটালিনা চ্যানেল জয় করেন।

সোশাল মিডিয়ায় সাঁতারু পদ্মশ্রী বুলা চৌধুরির (Bula Chowdhury) ছবি ভুয়ো দাবি সহ আরেক নবীনা সাঁতারু সায়নী দাসের (Sayani Das) সদ্য সাঁতারের (Swimming) স্বীকৃতি বলে ভুয়ো দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে।

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল ছবিটি পদ্মশ্রী বুলা চৌধুরির। সায়নী দাস ২০১৯ সালে উত্তর আমেরিকার ক্যাটালিনা চ্যানেল জয় করেন।

জলের মধ্যে সুইমিং স্যুট পরে দাঁড়িয়ে থাকা এক মহিলার ছবি সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করে গ্রাফিক পোস্টে লেখা হয়েছে, "সায়নী দাস। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশান্ত মহাসাগরের প্রচন্ড ঠান্ডা, তীব্র স্রোত, বিশাল ঢেউ আর হাঙর-তিমির আতঙ্ক উপেক্ষা করে ৩৩ কিমি সাঁতার কেটে টানা ১২ ঘন্টা ৪৬ মিনিট অতিক্রম করে বিজয়ী হয়ে ইতিহাস গড়লেন ২১ বছর বয়সী পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার কালনার সাহসিনী মেয়ে সায়নী দাস। আজ বঙ্গ নারীর জন্য গোটা দেশ গর্বিত। অনেক অনেক অভিনন্দন রইলো তোমার জন্য।"

এরকম দুটি ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানেএখানে




তথ্য যাচাই

সাঁতারু বুলা চৌধুরির ছবি

২০১৮ সালের ২ সেপ্টেম্বর লোকমত হিন্দি প্রকাশিত প্রতিবেদনে বুলা চৌধুরির জলের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা সুইমিং শুট পরা ছবিটি প্রকাশিত হয়। ২০১৯ সালে দ্য বেটার ইন্ডিয়া ও ক্রীড়া সাংবাদিকতার ওয়েবসাইট দ্য ব্রিজ-এ ২০১৯ একই ছবি বুলা চৌধুরির ছবি বলে প্রকাশ করা হয়।

সাঁতারু বুলা চৌধুরির ফেসবুক প্রোফাইল চিত্র হিসেবে বর্তমানে ভাইরাল হওয়া ছবিটি রয়েছে।


সায়নী দাসের ক্যাটালিনা জয় ২০১৯ সালে

বুম "আমেরিকার চ্যানেল জয় সায়নী দাস" কিওয়ার্ড সার্চ করে সায়নী দাসের ক্যাটালিনা চ্যানেল জয় বিষয়ে ২০১৯ সালের একাধিক প্রতিবেদন খুঁজে পায়। ৮ জুন ২০১৮ সায়নী আমেরিকার ক্যাটেলিনা চ্যানেলে সাঁতার শুরু করে সেদিন রাতে শেষ করেন তিনি। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে সংবাদ প্রতিদিনে

১২ জুন ২০১৯ প্রকাশিত দ্য ব্রিজের প্রতিবেদনেও ২১ বছর বয়সী সায়নীর উত্তর আমেরিকার ক্যাটালিনা চ্যানেল জয়ের খবরটি প্রকাশিত হয়। সান্টা ক্যাটালিনা দ্বীপ ও দক্ষিন ক্যালিফোর্নিয়ার ৩৩ কিমি দীর্ঘ ওই চ্যালেন পেরতে ১২ ঘন্টা ৪৬ মিনিট সময় নেন তিনি।

এ বিষয়ে ১০ জুন ২০১৯ প্রকাশিত আজকালের প্রতিবেদন পড়া যাবে এখানে

সায়নী দাসের বিবৃতি

সাঁতারু সায়নী দাস ১১ নভেম্বর ২০২১ ফেসবুকেবিবৃতি জারি করে লেখেন, "কয়েকদিন ধরে আমার ক্যাটালিনা চ্যানেলের (২০১৯) তথ্যের ভিত্তিতে একটি ভুল ফেসবুক পোস্ট ঘুরছে। পোস্টটি তে স্বনামধন্য সাঁতারু শ্রীমতি বুলা চৌধুরীর ছবিকে ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে আমাকে নিয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে।"

সায়নী দাস এই মুহূর্তে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের মলকাই চ্যানেল অতিক্রম করার জন্য কঠিন অনুশীলন করছেন। ২০২২ সালের এপ্রিল মাসে মলকাই-এ সাঁতারে নামবেন তিনি।


বিভ্রান্তিকর পোস্টের কারণে তাঁর অনুশীলনে মনসংযোগ বিঘ্ন হচ্ছে। অবিলম্বে ওই পোস্ট ডিলিট না হলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও ফেসবুকে জানান সাঁতারু সায়নী দাস।

পূর্ব বর্ধমানের কালনার বাসিন্দা সায়নী দাস আগে ইংলিশ চ্যানেল পেরিয়েছেন। ২০১৮ সালে রটনেস্ট চ্যানেল সাঁতরে অতিক্রম করেন তিনি।

আরও পড়ুন: তৃণমূল ও বিজেপি শাসনে দীপাবলি পালন ভুয়ো তুলনায় ছড়াল সম্পর্কহীন ছবি

Claim Review :   ছবির দাবি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশান্ত মহাসাগর সাঁতরে পেরলেন কালনার মেয়ে সায়নী দাস
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story