বাংলাদেশে হিংসা বলে আজতক বাংলা ছাপল ত্রিপুরার অগ্নিকাণ্ডের দৃশ্যের ছবি

বুম দেখে ভাইরাল ভিডিওটি ত্রিপুরার ধলাই জেলার কামালপুরের মরাছড়া বাজারে ১২ অক্টোবর ২০২১ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা।

ত্রিপুরায় পুজো মণ্ডপে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বাংলাদেশের রংপুরে (Rangpur) পুজো মণ্ডপে অগ্নিসংযোগের ঘটনা বলে সোশাল মিডিয়ায় ও গণমাধ্যমের একাংশে ওই ঘটনার দৃশ্যের ছবি ব্যবহার করা হচ্ছে।

১৭ অক্টোবর ২০২১ প্রকাশিত প্রথম আলোর প্রতিবেদন অনুযায়ী রংপুরের করিমপুরে অগ্নিসংযোগ করা হয়। বাংলাদেশের কুমিল্লার দুর্গা পুজো মন্ডপে ধর্ম গ্রন্থ অবমাননার অভিযোগে সাম্প্রদায়িক হিংসার সূত্রপাত হয়। বাংলাদেশ পুলিশ সূত্র উদ্ধৃত করে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন অনুযায়ী ৪৫০ জন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ৭ জন ব্যক্তি এই সাম্প্রদায়িক হিংসায় প্রাণ হারিয়েছেন।

বুম ঘটনাটির বিষয়ে খতিয়ে দেখার সময় খুঁজে পায় সমাজমাধ্যমে অনেকে অগ্নিকাণ্ডের ভিডিওটিকে রংপুরের পীরগঞ্জে সম্প্রতি হওয়া অগ্নিসংযোগের ঘটনা হিসেবে দাবি করেছেন। আজতক বাংলার ওই প্রতিবেদনেও ভিডিওটির একটি স্ক্রিনশট বাংলাদেশে হিংসার ঘটনার দাবি করে ব্যবহার করা হয়।

রংপুরের পীরগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডের দাবি করে অগ্নিকাণ্ডের ভিডিওটি টুইটারেও ভাইরাল হয়। বাংলাদেশ হিন্দু ইউনিটি কাউন্সিল নামের এক ভেরিফায়েড টুইটার পেজ থেকে ভিডিওটি পোস্ট করে লেখা হয়, "এই মুহূর্তে রংপুরের অবস্থা ভয়াবহ। হিন্দুদের বাড়ি ও মন্দির পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার একটি হিন্দু গ্রামে আগুন দিয়েছে মুসলিম জনতা।"


পোস্টটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে। পোস্টটির আর্কাইভ এখানে দেখতে পাওয়া যাবে।

লেখক আনন্দ রঙ্গনাথনও ভিডিওটি শেয়ার করেছিলেন। এখানে টুইটটির আর্কাইভ দেখতে পাওয়া যাবে।

নিচে সোশাল মিডিয়ায় রংপুরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা বলে দাবি করে ভাইরাল হওয়া ভিডিওর একটি স্ক্রিনশট ও একই ঘটনা সংক্রান্ত প্রতিবেদনে বাংলাদেশে হিংসা দাবি করে আজতক বাংলার ছবিটির তুলনা করা হল।

তুলনা

আজতক বাংলার প্রতিবেদনটি আর্কাইভ করা আছে এখানে। প্রতিবেদনটি আজতক বাংলার টুইটার প্রোফাইল থেকেও একই দাবি করে শেয়ার করা হয়।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে মূর্তি ভাঙায় গ্রেফতার ব্যক্তির ছবি ছড়াল কুমিল্লা হিংসা বলে

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির বিষয়ে জানতে তাকে ভালো করে খুঁটিয়ে লক্ষ্য করে। ভাইরাল ভিডিওটির এক অংশে দমকলকর্মীদের জলের পাইপ নিয়ে আগুন নেভাতে দেখা যায়। তবে বাংলাদেশের দমকলকর্মীদের পোশাকের সঙ্গে ভাইরাল ভিডিওর দমকলকর্মীর পোশাকের সাদৃশ্য লক্ষ্য করা যায়নি।

নিচে ভাইরাল ভিডিওয় দেখতে পাওয়া দৃশ্য ও বাংলাদেশের দমকলকর্মীদের পোশাকের ছবির তুলনা করা হল।

তুলনা

এর থেকে সন্দেহ হওয়ায় আমরা অগ্নিকান্ড সংক্রান্ত ফেসবুকে কিছু কীওয়ার্ড সার্চ করে ২০২১ সালের ১৩ অক্টোবর প্রকাশিত এক ফেসবুক ব্যবহারকারীর পোস্টে ভিডিওটিকে খুঁজে পাই। ভিডিওটির ক্যাপশন হিসাবে সেখানে লেখা হয়, "আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল মরাছড়া বাজারের একাংশ দোকান ও দূর্গা পূজা মণ্ডপ"।

মরাছড়া বাজারের দাবি করে ২০২১ সালের ১৩ অক্টোবর প্রকাশিত ভিডিও

বুম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার বিষয়ে জানতে এক নিউজ বুলেটিনে একই ভাইরাল ভিডিওটিও খুঁজে পেয়েছে। খবরটি নিয়ে স্থানীয় ত্রিপুরা র স্থানীয় চ্যানেল ফেসবুক এবং ইউটিউবে রিপোর্ট করা হয়।

ত্রিপুরা নিউজ চ্যানেলগুলির নিউজ বুলেটিনগুলি এখানেএখানে দেখা যাবে।

২০২১ সালের ১৪ অক্টোবর টাইম ৮ এর প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) মধ্যরাতে ত্রিপুরার ধলাই জেলার কমলপুর থানার অন্তর্গত মরাছড়া বাজারে আগুন লাগে। আগুনে চারটি দোকান এবং একটি দুর্গাপূজা প্যান্ডেল পুড়ে যায়। স্থানীয়রা কমলপুর ফায়ার স্টেশনকে অবহিত করার পর দমকল কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে তা নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় বাংলা সংবাদমাধ্যম স্যন্দন পত্রিকার রিপোর্ট অনুযায়ী ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আনুমানিক ১৬ লক্ষ টাকা বলে জানা যায়।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে পুজোয় হিংসা: ধর্মীয় দাবিতে ছড়াল ২০১৫ সালের সম্পর্কহীন ছবি

Updated On: 2021-10-19T18:55:16+05:30
Claim :   ভিডিও দেখায় বাংলাদেশের রংপুরে দুর্গা পুজো মণ্ডপে অগ্নিসংযোগের ঘটনা
Claimed By :  AajTak Bangla, Anand Ranganathan & Facebook Users
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.