Farmers Protest: রাস্তায় লুটিয়ে পড়া বৃদ্ধ শিখ কৃষক জীবিত আছেন

বুম দেখে ইকবাল সিংহ (৭৭) হৃদরোগে আক্রান্ত হন এবং এখন অমৃতসরে তাঁর চিকিৎসা চলছে।

দিল্লিতে কৃষক আন্দোলনের (Farmers Protest) মধ্যে এক বর্ষীয়ান শিখকে মাটিতে লুটিয়ে পড়তে দেখা যাচ্ছে একটি ভিডিওতে। সেটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এই দাবি করে যে, ভিডিওটিতে ওই ব্যক্তির জীবনের শেষ মুহূর্তটি ধরা পড়েছে। কিন্তু বুম জেনেছে যে, ইকবাল সিংহ (Iqbal Singh) নামের ওই ব্যক্তি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এবং এখন অমৃতসরে তাঁর চিকিৎসা চলছে।

একজন আন্দোলনকারী কৃষকের মৃত্যুতে দুঃখ প্রকাশ করে নেটিজেনরা ভিডিওটি শেয়ার করছেন। শেষ খবর অনুযায়ী. দিল্লির চরম আবহাওয়ার কারণে, এ পর্যন্ত ৫০ জন আন্দোলনকারী কৃষক মারা গিয়েছেন।
প্রবল ঠান্ডা উপেক্ষা করে, কয়েক হাজার কৃষক দিল্লির সীমান্ত ও তার চারপাশে অবস্থান করছেন। কেন্দ্রের নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন তাঁরা। কারণ, তাঁরা মনে করছেন, ওই আইন তাঁদের আয় বেঁধে দিয়ে, কৃষি ও বিপনন ক্ষেত্রে সুবিধে করে দেবে বড় কম্পানিগুলিকে।
ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে। সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হচ্ছে যে, "সিঙ্গু সীমান্তে ক্যামেরার সামনেই মারা গেলেন একজন কৃষক।"
পোস্টটি এখানে দেখা যাবে; আর্কাইভ এখানে
একই বক্তব্য সমেত ভিডিওটি ফেসবুকে বাংলা ক্যাপশন সহও শেয়ার করা হচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, "কৃষক বিদ্রোহ হঠাৎ ক্যামেরাবন্দি হয়ে যাওয়া অত্যন্ত মর্মান্তিক ঘটনা 'মৃত্যু')।
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে ; আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

ভাইরাল ভিডিওতে যে ব্যক্তিকে দেখা যাচ্ছে, বুম তাঁকে ৭৭ বছর বয়সী ইকবাল সিংহ হিসেবে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এবং এখন অমৃতসরে চিকিৎসাধীন আছেন। তাঁর এক আত্মীয় বলেন যে, ওই ঘটনার তিন দিন আগে থেকেই উনি আন্দোলনের জায়গায় ছিলেন।
'ফারমার ডায়িং অন ক্যামেরা সিঙ্গু বর্ডার' (সিঙ্গু বর্ডার: ক্যামেরার সামনে মারা যাচ্ছেন কৃষক) – এই কিওয়ার্ডগুলি দিয়ে সার্চ করি আমরা। তার ফলে, চন্ডীগড়ের সাংবাদিক গগনদীপ সিংহের (
Gagandeep Singh
) একটি টুইট দেখতে পাই। ৩ জানুয়ারি ২০২১-এ, গগনদীপ সিংহ একই ভিডিও টুইট করেন। সেটির বিবরণে উনি লেখেন, "আন্দোলনের জায়গায় একজন কৃষক লুটিয়ে পড়েন। এখন তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। আসুন, আমরা তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করি। এই ঠাণ্ডায় যাঁরা প্রতিবাদ করছেন, আসুন আমরা তাঁদের জন্য প্রার্থনা করি। #ফারমারপ্রোটেস্ট #ফারমার্স #আইস্ট্যান্ডউইথফারমার্স।" ৭৭ বছর বয়সের ওই কৃষককে উদ্ধার করার একটি ছবিও উনি টুইট করেন
এরপর, বুম লাভপ্রীত পাবলার (Lovepreeet Pabla) সঙ্গে যোগাযোগ করে। উনিই ইকবাল সিংহকে উদ্ধার করে তাঁকে ফার্স্ট-এড দেন। উনি বলেন, ৩ জানুয়ারি সকাল ১১.৩০-এ ঘটনাটি ঘটে। "একটি মুসলিম ফেডারেশনের দ্বারা আয়োজিত 'লঙ্গর'-এ যাওয়ার সময় উনি আমাদের তাঁবুর সামনে হঠাৎ পড়ে যান (ভাইরাল ভিডিওতে একটি হলুদ তাঁবু দেখা যাচ্ছে)। আমরা তাঁকে তুলে আমাদের টেন্টে নিয়ে এসে ফার্স্ট-এড দিই। আমরা তাঁর রক্তচাপও পরীক্ষা করি। এবং তাঁর আত্মীয়দের খবর দিই। দু ঘন্টা পরে ইকবালের আত্মীয়রা এসে তাঁকে চিকিৎসার জন্য অমৃতসর নিয়ে যান," বলেন পাবলা।
বুম ইকবালের 'নেফিউ'র (ভাইপো/বোনপো) আমনদীপ সিংহের সঙ্গে যোগাযোগ করে। উনি জানান যে, ইকবাল সিংহের অবস্থা এখন স্থিতিশীল। "রবিবার আমার আঙ্কল (ইকবাল সিং) বেশ জোরাল হৃদরোগে আক্রান্ত হন। এখন উনি ভাল আছেন," বলেন আমনদীপ।
Claim Review :   ভিডিও দেখায় সিংঘু সিমান্তে রাস্তায় আন্দোলনকারী এক কৃষক মৃত্যুর কোলে ঢলে পরছেন
Claimed By :  Facebook & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story