না ভারতের সংবিধানে আরএসএস-কে নিষিদ্ধ করা নিয়ে কিছু লেখা নেই

বুম দেখে ভারতের সংবিধানের ১৫৬ পাতায় রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘ-কে নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে কিছু লেখা নেই।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টে দাবি করা হয়েছে ভারতের সংবিধানে (Constitution) লেখা আছে রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সংঘ (RSS) নিষিদ্ধ (Ban) করার ব্যাপারে। ভারতীয় জনতা দলের হিন্দু জতীয়বাদী সংগঠন আরএসএস এর মতাদর্শে তৈরি।

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া দাবিটি সঠিক নয়। সংবিধানে সংশ্লিষ্ট পাতায় অন্য বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টটিতে লেখা রয়েছে, "ভারতবর্ষের সংবিধানে কি লেখা আছে প্রত্যেকের জানা উচিত। সেই লেখার কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। অবশ্য পড়ুন। Page No- 132 ১৫ ই অগস্ট ১৯৪৭ দেশ বিভক্ত হওয়ার পর যে সমস্ত মুসলিম ভারতে স্বেচ্ছায় থাকতে চান তারা স্বসম্মানে ভারতে থাকতে পারেন। কারণ এরা সেই সব মুসলিম যাদের পূর্বপুরুষরা স্বাধীনতার যুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছেন আর ভারতের জন্য বলিদান দিয়েছেন। Page No- 156 RSS হচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় শত্রু। আর এই সংগঠনটি স্বাধীনতার আন্দোলনে ভারতের জাতীয় পতাকা পুড়িয়ে ছিল। এই সংগঠনের নেতা মহাত্মা গাঁধীকে হত্যা করেছিল। এই সংগঠনকে ব্যান করা হল। 1956 সালে যখন RSS এর উপর থেকে ব্যান তোলা হল। তখন কিছু শর্ত রাখা হল RSS এর কোনওদিন রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করতে পারবে না। সংবিধানের অংশ কোনও দিনও হতে পারবে না। দেশভক্ত পার্টি হিসেবে কোনওদিন বিবেচনা করা হবে না। শুধুমাত্র একটি সংগঠন হিসাবেই চলবে। এই সব স্বতন্ত্র ভারতের সংবিধানে পরিস্কার করে লেখা আছে। বিজেপি পার্টি মুসলিমদের গদ্দার আর RSS কে দেশভক্ত বলে আখ্যা দেয়। ছদ্মবেশীরা মুসলিমদের ইতিহাসকে বিকৃত করে মুসলিমকে যখন গদ্দারির সার্টিফিকেট দেওয়া হচ্ছে তখন তাদের ইতিহাসও একটু জানা প্রয়োজন।"

নিচে পোস্টটির ছবি দেওয়া হল।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: ১৭ বছরের এলিজা কার্সন মঙ্গলে গিয়ে আর পৃথিবীতে ফিরবে না? তথ্য যাচাই

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল হওয়া পোস্টে দাবি করা বক্তব্য ভারতীয় সংবিধানে লেখা আছে এই দাবিটি সঠিক নয়।

বুম ভারতীয় সংবিধানের ১৫৬ নম্বর পাতা যাচাই করে দেখে। এই পাতায় ২৫৫ ধারায় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকার সম্পর্কের ব্যাপারে আইনি সম্পর্কের কথা বলা হয়েছে। এখানে আরএসএস নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে কিছু লেখা নেই।

আরএসএস সংগঠনকে নিষিদ্ধ করা প্রসঙ্গে বুম একাধিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদন খুঁজে পায়। ১৯৪৮ সালে ৪ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী সর্দারবল্লভভাই পটেল আরএসএস-কে নিষিদ্ধ করেছিলেন। সেসময় সরকারি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, "ঘৃণা ও হিংসার শক্তি নির্মূল" করতে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল।

আরএসএস সংগঠনকে নিষিদ্ধ করা নিয়ে ৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৮ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকায় প্রকাশিত প্রথম পাতার প্রতিবেদন নিচে দেওয়া হল।

আরও পড়ুন: সিএএ সমর্থকদের পুরনো ছবি ফোটোশপ করে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হল

Updated On: 2021-02-28T16:55:38+05:30
Claim :   গ্রাফিক পোস্টের দাবি ভারতের সংবিধানের ১৫৬ পাতায় আরএসএস-কে নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে লেখা আছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.