Hazara গণহত্যার বিরুদ্ধে মিছিলের ভিডিও পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বলে ভাইরাল

বুম দেখে ভিডিওটি Ladakh Kargil এর। Pakistan ISI দ্বারা Hazara দের গণহত্যার বিরুদ্ধে এক সংস্থা প্রতিবাদ মিছিল বার করে।

বালুচস্তানের (Baluchistan) মাচ অঞ্চলে হাজারা (hazara0 সম্প্রদায়ের মানুষদের হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে ভারতের কার্গিলে (Kargil) একদল মানুষের প্রতিবাদ মিছিলের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতে দাবি করা হয়েছে যে, ভিডিওতে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরে (পিওকে) স্থানীয় মানুষদের উপর পাকিস্তানি বাহিনীর অত্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওটি অনেক বার টুইট করা হয়েছে এবং সঙ্গে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, "#পাকিস্তান অধিকৃত #কাশ্মীরে পাকিস্তানি বাহিনী তার নিজের লোকেদের উপর যে অত্যাচার করছে ও মানব অধিকার উল্লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটাচ্ছে, তার বিরুদ্ধে হাজার হাজার স্থানীয় বাসিন্দা প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন। এখানেই কি সামরিক বাহিনী-কেন্দ্রিক রাষ্ট্র পাকিস্তানের শেষের শুরু?" টুইটটির আর্কাইভ দেখা যাবে
এখানে
ভিডিওটি এর আগে রেডিও চিনার নামে একটি কাশ্মিরী (Kashmir) সংবাদ সংস্থার পক্ষ থেকে একই বক্তব্যের সঙ্গে টুইট করা হয়। আর্কাইভ দেখা যাবে এখানে

শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের ১১ জন কয়লা খনি শ্রমিকের মৃত্যুর পরিপ্রেক্ষিতে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। ২০২১ সালের ৩ জানুয়ারি ওই ১১ জন শ্রমিককে উগ্রপন্থী সংগঠন ইসলামিক স্টেট অপহরণ করে ও হত্যা করে। এর পর ওই সম্প্রদায়ের লোকেরা প্রতিবাদ বিক্ষোভ শুরু করে এবং প্রতিবাদের অংশ হিসাবে নিহতদের শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে অস্বীকার করে। ১০ জানুয়ারী কোয়েটায় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান হাজারা এবং শিয়া নেতাদের সঙ্গে দেখা করেন এবং মৃতদের জন্য ক্ষতিপূরণের প্রতিশ্রুতি দেন। তার পর ওই বিক্ষোভ উঠে যায়।

তথ্য যাচাই

বুম ইউটিউবে কিওয়ার্ড সার্চ করে এবং ২০২১ সালের ৮ জানুয়ারী জম্মু ও কাশ্মীরের স্থানীয় দৈনিক ডেলি এক্সেলসিওয়রের আপলোড করা ওই প্রতিবাদের একটি ভিডিও দেখতে পায়। সেখানে প্রতিবাদীদের যে সব ব্যানার হাতে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে, ঠিক সেই সব ব্যানারই ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওটির শিরোনাম দেওয়া হয়েছে, "কার্গিল: পাকিস্তানে হাজারে হত্যার বিরুদ্ধে বিপুল প্রতিবাদ"। সেখানে যে বর্ণনা দেওয়া হয়েছে তাতে জানানো হয়েছে যে, ১১ জন শিয়া হাজারে সম্প্রদায়ের মানুষের হত্যার বিরুদ্ধে কার্গিলে মিছিল করা হয়। আঞ্জুমান জামিয়ত উলামা ইসানা আশ্রিয়া কার্গিল লাদাখের (এজেইউআইএকে) ব্যানারে ওই প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করা হয়। মিছিল ইসনা আশ্রিয়া স্কোয়ার থেকে শুরু হয়ে খোমেনি চক, লাল চক হয়ে আবার ইসনা আশ্রিয়া স্কোয়ারে ফিরে আসে। শত শত মানুষ এই মিছিলে অংশ নেন।
আমরা আরও কিওয়ার্ড সার্চ করে আঞ্জুমান জামিয়ত উলামা ইসানা আশ্রিয়া কার্গিল লাদাখের (এজেইউআইএকে) ইউটিউব চ্যানেলের আপলোড করা এই প্রতিবাদের পুরো ফুটেজ দেখতে পাই।
ওই ফুটেজের ৩ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের পর আমরা ওই একই ক্লিপ দেখতে পাই।

এজেইউআইএকে তাদের ফেসবুক পেজে ওই প্রতিবাদ মিছিলের ছবি আপলোড করে এবং জানায় যে, হাজারা সম্প্রদায়ের ১১জন মানুষের হত্যার বিরুদ্ধে তাদের সংস্থা ওই সম্প্রদায়কে পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছে।ই
কাশ্মিরের সাংবাদিক সাজ্জাদ কার্গিলি ওই ভিডিওটি টুইট করেন।
Claim Review :   ভিডিওতে দেখা যায় পাক অধিকৃত কাশিরে লোকজন পাকিস্তানে হাজারাদের গণহত্যার প্রতিবাদ করছেন
Claimed By :  Twitter, Facebook
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story