মিথ্যে সাম্প্রদায়িক দাবিতে ছড়াল বাংলার সিএএ-বিরোধী বিক্ষোভের পুরনো দৃশ্য

বুম দেখে ভিডিওটি সম্পর্কে বর্তমান দাবি মিথ্যে। মুর্শিদাবাদ জেলায় সিএএ-বিরোধী বিক্ষোভের সময় ঘটনাটি ঘটে।

পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) একটি রেল স্টেশন ভাঙচুর করার পুরনো ভিডিও মিথ্যে ও সাম্প্রদায়িক দাবি সমেত ব্যাপক ভাবে শেয়ার করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে যে, আজানের সময় ট্রেনের হুইসিল বাজানো হলে, স্থানীয় মুসলমানরা (Muslims) ক্ষিপ্ত হয়ে স্টেশনের ভেতর ভাঙচুর চালান।

বুম দেখে, ঘটনাটি পুরনো। পশ্চিমবঙ্গে সিএএ বা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন-বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে ওই ঘটনা ঘটে। সেই পুরনো ক্লিপটিকে, এক অদ্ভুত ও সাম্প্রদায়িক দাবি সমেত আবার ছড়ান হয়েছে।

ভিডিওটির ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "ট্রেনের হুইসিল নামাজে বিঘ্ন ঘটাচ্ছে, এই বলে পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে মহিষাসুর রেল স্টেশনটি ভাঙচুর করা হয়। আমরা ভারতের ভবিষ্যৎ দেখতে পাচ্ছি।"

পোস্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

পোস্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

আরও পড়ুন: ভুয়ো পীর বাবার কেরামতি ফাঁসের ভিডিও পাকিস্তানের, ভারতের নয়

তথ্য যাচাই

ভিডিওটিতে একটি সাইনবোর্ড দেখা যাচ্ছে। তাতে লেখা আছে 'নাওপাড়া মহিষাসুর'। এই সূত্র ধরে আমরা বাংলায় কি-ওয়ার্ড সার্চ করি। তার ফলে, আমরা দেখি যে, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ভাঙচুর করার একই রকম একটি ভিডিও ইউটিউব-এ আপলোড করা হয়। আপলোড করার তারিখ দেখিয়ে দেয় যে, ভিডিওটি সাম্প্রতিক নয়।

ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা হয়, "সাগড়দিঘির নওপাড়া মহিষাসুর স্টেশনে ক্যাব ও এন আর সি বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল"।

আমরা দেখি, একই ধরনের দৃশ্য আছে এমন কয়েকটি ভিডিও ওই সময় ফেসবুকে আপলোড করা হয়েছিল।

পশ্চিমবঙ্গে সিএএ-বিরোধী প্রতিবাদ বিষয়ে আমরা ইউটিউব-এও একটি কি-ওয়ার্ড সার্চ করি। তার ফলে, ১৮ নভেম্বর, ২০২০ 'ওয়াইল্ডফিল্মসইন্ডিয়া'র' অফিসিয়াল চ্যানেলে ওই একই ভিডিওটির একটি বড় সংস্করণ আমরা দেখতে পাই। সেটির ক্যাপশনে লেখা হয়, "পশ্চিমবঙ্গে অল্পবয়সীরা একটি রেল স্টেশন ভাঙচুর করে। ভারতে সিএএ/এনআরসি সংক্রান্ত ঘটনা।"

ভিডিওটির বিবরণে বলা হয়, "পশ্চিমবঙ্গে, দৃষ্টি আকর্ষণ করার উদ্দেশ্যে, একটি রেল স্টেশনের আশেপাশে বসবাসকারী লোকেরা কাঠের ডান্ডা নিয়ে সরকারি সম্পত্তির ওপর চড়াও হন ও ভাঙচুর চালান। অল্পবয়সী ছেলেরা বাড়ির ভেতরে লাঠি দিয়ে দেওয়ালে আঘাত করছেন। যুবকরা ঘরটির মধ্যে তাণ্ডব চালালে, সেখানে ভাঙ্গা আসবাবপত্র পড়ে থাকে।"

ভাইরাল ভিডিওটি ও ইউটিউবে ওয়াইল্ডফিল্মসইন্ডিয়া'র আপলোড করা ফুটেজ নীচে তুলনা করা হল।

তুলনা

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ বর্তমান পত্রিকায় প্রকাশিত ওই ঘটনা সম্পর্কে একটি রিপোর্ট দেখতে পাই আমরা।

সাগরদিঘি থানার সাব-ইনস্পেক্টর প্রিয়তোষ সিন্হা'র সঙ্গে এবিষয়ে জানতে যোগাযোগ করে বুম। উনি নিশ্চিত করেন যে, ২০১৯-এ, সিএএ-বিরোধী বিক্ষোভ চলাকালে ঘটনাটি ঘটে। এবং ভাইরাল দাবিটি মিথ্যে।

আরও পড়ুন: ভারতীয় সেনার বিজেপি-আরএসএস বিরোধী স্লোগান ভুয়ো দাবিতে ফের ছড়াল ভিডিও

Updated On: 2022-04-29T16:48:59+05:30
Claim :   পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের মহিষাশুর রেলওয়ে স্টেশন ট্রেনের হুইসেলের শব্দ নামাজে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে বলে ধ্বংস করা হয়েছে
Claimed By :  Social Media Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.