ভুয়ো দাবি: নিউ ইয়র্ক টাইমসের সম্পাদক মোদীর বিদেশনীতির প্রশংসা করলেন

নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক মুখপাত্র বুমকে জানান ভাইরাল বার্তাটি মনগড়া ও অসত্য।

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর (New York Times) জনৈক জোসেফ হোপ, প্রধান সম্পাদক-এর নামে একটি বার্তা ছড়ানো হয়েছে, যাতে তিনি নাকি নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) বিদেশ নীতির প্রশংসা করেছেনl কিন্তু বার্তাটি ভুয়ো, কেননা ওই নামে ওই সংবাদপত্রের কোনও কর্মীই নেই।

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর সংযোগ বিভাগের অধিকর্তা নিকোল টেলর বুম-কে ই-মেল মারফত জানিয়েছেন যে, বার্তাটি সম্পূর্ণ বানানো এবং অসত্য।

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এ প্রকাশিত একটি চাকরির বিজ্ঞাপন ভাইরাল হয়, যাতে লেখা ছিল— "ভারতের ভবিষ্যত্ এখন এক সন্ধিক্ষণে এসে দাঁড়িয়েছে l নরেন্দ্র মোদী হিন্দু গরিষ্ঠতা-কেন্দ্রিক একটি পেশীবহুল আত্মনির্ভর জাতীয়তাবাদের আবাহন করছেন l" বেশ কিছু দক্ষিণপন্থী মহল থেকে বিজ্ঞাপনটির সমালোচনাও করা হয়।

এই বিজ্ঞাপনের প্রেক্ষিতেই বার্তাটি ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হয়, যার দাবি—নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর প্রধান সম্পাদক জোসেফ হোপ নাকি মোদীর বিদেশনীতির ভূয়সী প্রশংসা করেছেনl তাঁর মতে "নরেন্দ্র মোদীর একমাত্র লক্ষ্য ভারতকে একটি উন্নততর দেশে পরিণত করা এবং তাঁকে যদি কোনও ভাবে থামিয়ে দেওয়া না হয়, তাহলে ভবিষ্যতে ভারতই হবে বিশ্বের সর্বাপেক্ষা শক্তিশালী রাষ্ট্র l"

আরও দেখতে এখানে ক্লিক করুনl

ফেসবুকেও ভাইরাল

একই ক্যাপশন দিয়ে খোঁজ করে আমরা দেখি, ভুয়ো বার্তাটি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়েছে:

আরও পড়ুন: হাসপাতালে দিলীপ কুমারের শেষ মুহূর্তের দৃশ্য? ছড়াল পুরনো ভিডিও

তথ্য যাচাই

বুম দেখেছে, বার্তাটি পুরোপুরি ভুয়ো এবং জোসেফ হোপ নামে নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর কোনও কর্মীও নেইl ওই সংবাদপত্রের তরফে একটি ই-মেল বার্তায় সে কথা স্পষ্টভাবে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। পত্রিকার জনসংযোগ দফতরের আধিকারিক নিকোল টেলর সেই বার্তায় জানিয়েছেন, "জোসেফ হোপ নামে নিউ ইয়র্ক টাইমসের কোনও সম্পাদক নেই, এই সংবাদপত্রের সম্পাদকের নাম ডিন বাকেট l আমাদের সংবাদ দফতর একটি স্বাধীন বিভাগ এবং আপনারা যে-কেউ ইচ্ছা করলে ভারত সম্পর্কে আমাদের পত্রিকার আসল প্রতিবেদন www.nytimes.com/india-তে দেখে নিতে পারেন l"

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর সম্পাদকদের তালিকা তার ওয়েবসাইটে খুঁজলে ডিন বাকেট-কে পত্রিকার কার্যনির্বাহী সম্পাদক হিসাবে দেখতে পাওয়া যাবে।

সম্পাদকমণ্ডলীর কয়েকজনকে নীচে দেখে নিতে পারেন:

আরও পড়ুন: সিংহ শাবক শুঁড়ে চাপিয়ে নিয়ে যাচ্ছে হাতি, "হাঁসজারু" ছবিটি ফোটোশপ করা

Updated On: 2021-07-09T16:14:12+05:30
Claim Review :   নিউ ইয়র্ক টাইমসের সম্পাদক এক বিবৃতিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিদেশনীতির প্রশংসা করেছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story