পাকিস্তানে তেরঙা পতাকা অমর্যাদা করার ভিডিও ভারতের ঘটনা বলে ছড়াল

বুম দেখে ভাইরাল ভিডিওটি ভারতের ঘটনা নয়, পাকিস্তানের করাচির দৃশ্য।

পাকিস্তানের করাচিতে রাস্তায় পড়ে থাকা ভারতীয় পতাকা গাড়ির চাকা দিয়ে মাড়ানো হচ্ছে, এ ধরনের একটি দৃশ্যকে ভারতের ঘটনা বলে মিথ্যে করে চালানো হচ্ছে।

ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, একটি ব্যস্ত সড়কের উপর পর-পর কয়েকটি গাড়ির চাকা ভারতের জাতীয় পতাকা মাড়িয়ে চলে যাচ্ছে এবং দৃশ্যটিতে কয়েকজন লোককে পাকিস্তানের ঝান্ডা হাতেও দেখা যাচ্ছে।

ভুয়ো ক্যাপশন দিয়ে অনেকে ভিডিওটিকে তামিলনাড়ু বা কেরালার ঘটনা বলে শেয়ার করেছে। একটি হিন্দি ক্যাপশনের অনুবাদ এই রকম, "কেরলের এই ঘটনার ভিডিওটি দেখুন এবং যত জনকে সম্ভব ছড়িয়ে দিন। আজ যদি নীরব থাকেন, তাহলে যে ক্ষতি হয়ে যাবে, ৬ মাস পরে আর তা সংশোধন করা যাবে না...।"


পোস্টটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

(মূল হিন্দিতে ক্য়াপশন - केरल के इस विडियो को देखें और इसे जितना हो सके उतना फॉरवर्ड करें .... अगर आप यू आज चुप रहते हैं तो हमें नुकसान होगा ... क्योंकि *6 महीने के बाद इसे आगे बढ़ाने का कोई फायदा नहीं होगा* ... उँगलियाँ घुमाएँ और इसे आगे बढ़ाएँ अभी)

হিন্দি ক্যাপশনেই একই অনুরোধ সহ অন্য একটি পোস্টও শেয়ার করে ছড়িয়ে দেওয়ার আর্জি জানানো হয়েছে, তবে এ ক্ষেত্রে ঘটনাটিকে তামিলনাড়ুর তাঞ্জোরের ঘটনা বলে চালানো হয়েছে।


ফেসবুক পোস্টটি দেখুন এখানে

(মূল হিন্দিতে ক্যাপশন - इस विडियो को देखें और इसे जितना हो सके उतना फॉरवर्ड करें .... अगर आप यू आज चुप रहते हैं तो हमें नुकसान होगा ... उँगलियाँ घुमाएँ और इसे आगे बढ़ाएँ अभी- तांजोर, तमिलनाडु)

আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইন নম্বরেও (৭৭০০৯০৬৫৮৮) বহু বার এই ভিডিওটি পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: শিক্ষাঙ্গনের নামফলকে 'বিশ্ববিদ্যালয়' বানান ভুল, ছবি কি পশ্চিমবঙ্গের?

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া ভিডিওর দৃশ্য দাবি মত কেরালা বা তামিলনাড়ুর নয়, পাকিস্তানের করাচি শহরের।

পাকিস্তানি পতাকা ওড়ানোর দৃশ্য দেখেই আমাদের সন্দেহ হয়েছিল, এটি পাকিস্তানের কোনও জায়গার দৃশ্য। জায়গাটা ঠিক কোথায়, তা বুঝতে আমরা আশপাশের দোকানের সাইনবোর্ডের ওপর নজর বোলাই। আর তাতেই স্পষ্ট হয়, ঘটনাস্থল পাকিস্তানের করাচি শহর।

ভিডিওটির ৩ মিনিট ৪৩ সেকেন্ডের মাথায় একটি টয়োটা গাড়ির নম্বর-প্লেটে আমাদের নজর পড়ে, যাতে লেখা—বিএফকে-৬২৫। খবর নিয়ে আমরা জানতে পারি, এই বিএফকে সিরিজের নম্বর-প্লেট পাকিস্তানের গাড়িতেই লাগানো হয়।

নীচের এই ফেসবুক পোস্টে আমরা দেখতে পাচ্ছি, বিএফকে সিরিজের নম্বর-প্লেট লাগানো গাড়ি পাকিস্তানে পুনরায় বিক্রির জন্য আনা হয়েছে।


পোস্টটি দেখুন এখানে

উপরন্তু, ভিডিওটির শুরুতেই "সনম বুটিক" নামে একটি দোকানের সাইনবোর্ড আমাদের নজরে পড়েছে। এই সূত্র অনুসরণ করে আমরা 'গুগল ম্যাপ'-এ সনম বুটিক-এর খোঁজ করি এবং দেখি, পাকিস্তানের করাচিতে ওই একই নামের একটি দোকান রয়েছে।

গুগল ম্যাপে-এর সেই ছবির সঙ্গে ভাইরাল ভিডিওতে দেখা দোকানটির ছবির যে সাদৃশ্য রয়েছে, তা নীচের দুটি ছবির তুলনা করলেই স্পষ্ট হয়ে যায়।


ভাইরাল ভিডিওয় দেখা অন্য একটি বাড়ির সঙ্গেও গুগল ম্যাপে দেখানো একই বাড়ির মিলও আমাদের বক্তব্য সমর্থন করেl নীচের দুটি ছবির তুলনাতেও তা বোঝা যাবে।


ভিডিওটিকে কয়েকটি মূল ফ্রেমে ভেঙে নিয়ে খোঁজখবর চালিয়ে দেখা গেছে, ২০২০ সালের মার্চ মাসে একই ভিডিও টুইট করা হয়েছিল, যার অর্থ ঘটনাটি বেশ পুরনো।

বুম নিজে থেকে ঘটনাটির সত্যতা যাচাই করে উঠতে পারেনি। তবে ঘটনাটি যে পাকিস্তানের করাচি শহরের, সেটা নিশ্চিত করতে পেরেছে।

আরও পড়ুন: নূপুর শর্মার মন্তব্যের প্রতিবাদে বাংলাদেশ ও ভারতের বাণিজ্য বন্ধ হয়নি

Claim :   ভিডিও দেখায় অটোয় চড়ে ভারতের পতাকার অবমাননা করা হচ্ছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.