বাচ্চা মেয়ের তাক লাগানো উল্টো ডিগবাজির ভিডিওটি ভারতের নয়

বুম যাচাই করে দেখে লাগাতার উল্টো ডিগবাজি খাওয়া বাচ্চা মেয়েটি চিনের নাগরিক।

তাক লাগানো গতিতে একটি বাচ্চা মেয়ে তার বাড়িতে ব্যাক ফ্লিপ (Back Flip) করে চলেছে। এই দৃশ্য সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে এই মিথ্যে দাবি সমেত যে, সেই মেয়েটি ভারতীয়।

বুম দেখে, ৬ বছরের মেয়েটির নাম লি জিয়ামি। সে থাকে চিনের শানসি প্রদেশে।

টোকিওতে অনুষ্ঠিত অলিম্পিক খেলার পরিপ্রেক্ষিতে ওই ভিডিওটি শেয়ার করা হচ্ছে। সেখানে ভারত এখনও পর্যন্ত ২টি পদক জিতেছে।

ভাইরাল ভিডিওটিতে একটি ছোট্ট মেয়েকে অনায়াস ভঙ্গি ও তাক লাগালো গতিতে অ্যাক্রোব্যাটিক খেলা দেখাতে দেখা যাচ্ছে। সে এক মিনিটে ৮০টি ডিগবাজি খাচ্ছে। বা তেমনটাই দাবি করছেন নেটিজেনরা।

একটি ফেসবুক পেজ থেকে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। সেটির হিন্দি ক্যাপশনটি তর্জমা করলে মানে দাঁড়ায়, "বয়স – ৬ বছর, সময় – ৫৩ সেকেন্ড, রাউন্ড – ৮০। প্র্যাক্টিস করতে থাকো। তোমার মতো মেয়েদের জন্য ভারত গর্ব বোধ করে। সত্যি, ভারতীয় শিশুদের মধ্যে প্রতিভার কোনও অভাব নেই্।

(হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: उम्र-6 साल समय-53 सेकेंड राउंड-80 अभ्यास जारी रखो भारत को आप जैसी बेटियों पर गर्व है..... वास्तव मे, भारत के बच्चो मे काबिलियत की कमी नही है}

মেয়েটির একটি কাল্পনিক নাম দিয়ে ভিডিওটি টুইটারেও শেয়ার করা হয়েছে।

টুইটারে দেওয়া হিন্দি ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "নাম – জসপ্রীত সন্ধু, বয়স – ৬ বছর, সময় – ৫৩ সেকেন্ড, রাউন্ড – ৮০।"

(হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন: नाम- जसप्रीत सन्धु उम्र 6 साल समय 53 सेकंड 80 राउंड)


আরও পড়ুন: বিভ্রান্তিকর দাবিতে ছড়াল ২০১২ সালের নেদারল্যান্ডস মহিলা হকি দলের ছবি

তথ্য যাচাই

'লিটিল গার্ল সামারসল্ট ভাইরাল ভিডিও' – এই শব্দগুলি দিয়ে বুম কিওয়ার্ড সার্চ করলে, ওই মেয়েটি সম্পর্কে কয়েকটি ভিডিও ও সংবাদ প্রতিবেদন সামনে আসে।

'সাউথ চায়েনা মর্নিং পোস্ট'র যাচাই করা ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। সেটিতে মেয়েটিকে লি বলে শনাক্ত করা হয়েছে। এবং বলা হয়েছে, সে থাকে চিনের শানসি প্রদেশে। ভিডিওটি ২৫ অগস্ট, ২০২০ তে, এসসিএমপি'র ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা হয়। সেটির শিরোনামে লেখা হয়, "এক মিনিটে, ৮০টি সামারসল্ট করে দেখাল চিনের মেয়ে।"

ভিডিওটির বিবরণে বলা হয়, "চিনের শাঙ্গঝি প্রদেশের ৫ বছরের একটি মেয়ে, এক মিনিটে লাগাতার ৮০ সামারসল্ট করতে পারে। সে তার বাবার সঙ্গে ১.৫ বছর ধরে প্র্যাক্টিস করছে। এবং কোনও একদিন সে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ভাঙ্গতে চায়।"

ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা ভিডিওটি এবং ভাইরাল ভিডিওটি এক নয়। কিন্তু দু'টি ভিডিওতে যে পোস্টারটি দেখা যাচ্ছে ও যে গদিটির ওপর মেয়েটি সামারসল্ট করছে, সেগুলির মধ্যে অনেক মিল রয়েছে।

এসসিএমপি'র ভিডিওটিকে সূত্র ধরে, আমরা 'লি সামারসল্টস' শব্দ দু'টি দিয়ে কি-ওয়ার্ড সার্চ করি। দেখা যায়, একই ভিডিও ২১ এপ্রিল, ২০২১, রাম্বল.কম-এ আপলোড করা হয়। রাম্বল প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভাইরাল ভিডিওর মেয়েটির নাম লি জিয়ামিন।

রাপ্টলি দ্বারা আপলোড করা ৩০ এপ্রিল ২০২১-এর আরেকটি ভিডিও প্রতিবেদন পাই যাতে লি জিয়ামিনের উল্লেখ রয়েছে।

ভিডিওটির সঙ্গে দেওয়া বিবরণে বলা হয়েছে, মেয়েটির বাবার নাম লি এরটঙ্গ এবং তিনি তাঁর মেয়ের কোচও বটে।

আরও পড়ুন: স্কেটিং গ্রান্ড পিক্সে মেডেল বিভ্রাট ছড়াল টোকিও অলিম্পিকের ঘটনা বলে

Updated On: 2021-08-05T19:08:31+05:30
Claim Review :   ৬ বছরের ভারতীয় মেয়েটি ৫৩ সেকেন্ড ৮০ বার ডিগবাজি খাচ্ছে
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story