Rashrapati Bhavan-এ নেতাজিরই ছবি, অভিনেতা Prasenjit Chatterjee-এর নয়

বুম দেখে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দের উন্মোচিত সুভাষ চন্দ্র বসুর তৈলচিত্রটি তৈরি হয়েছে নেতাজিরই ছবি থেকে।

রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ (Ram Nath Kovind) স্বাধীনতা সংগ্রামী সুভাষ চন্দ্র বসুর (Subhash Chandra Bose) ছবি উন্মোচন করছেন এরকম একটি ছবি সোশাল মিডিয়ায় মিথ্যে ক্যাপশন সহ ভাইরাল হয়েছে যেখানে দাবি করা হচ্ছে ছবিটি আসলে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের (Prasenjit Chatterjee) যিনি বাংলা সিনেমা গুমনামিতে (Gumnaami) সুভাষের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

একাধিক ব্যক্তিত্ব যেমন রাজদীপ সরদেশাই, রিচা চাড্ডা অন্যান্যরা তাঁদের যাচাই করা টুইটার হ্যান্ডেল থেকে ছবিটি টুইট করে দাবি করেন, কোবিন্দের উন্মোচন করা ছবিটি সরকারের পক্ষে লজ্জাজনক ঘটনা কারণ স্বাধীনতা সংগ্রামী হিসেবে ব্যবহার হয়েছে অভিনেতার ছবি। রিচা চাড্ডা ও রজদীপ সরদেশাই পরে তাঁদের টুইট ডিলিট করে দেন।

ছবিটি ভাইরাল হয়েছে ২৩ জানুয়ারি ২০২১ রাষ্ট্রপতি ভবনে নেতাজির ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে তাঁর ছবি উন্মোচন হওয়ার প্রেক্ষিতে।

ওই অনুষ্ঠানের ছবি টুইট করা হয় রাষ্ট্রপতি ভবনের নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডেল থেকে। সঙ্গে ক্যাপশন লেখা হয়, 'রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ রাষ্ট্রপতি ভবনে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্ম বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে তাঁর পোট্রেট উন্মোচন করলেন।'

এর কিছু সময় পর থেকেই সোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা ছবিটিকে বিভ্রান্তিকর দাবি সহ শেয়ার করতে শুরু করে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ২০১৯ সালের সিনেমা গুমনামি সম্পর্কিত বলে।

সাংবাদিক স্বাতী চতুর্বেদী একই ছবি কোট করে লেখেন, 'স্যার, আপনি উন্মোচন করেছেন এক অভিনেতার ছবি যিনি নেতাজির ভূমিকায় অভিনয় করেন...'

রাষ্ট্রপতির ছবিটি একাধিক টুইটারহ্যান্ডেল থেকে ওই মিথ্যে দাবি সহ কোট করা হয়।

ফেসবুকেও একই ছবি শেয়ার করা হয়েছে।


আরও পড়ুন: রাজস্থানে পুরোহিতের সাথে চিতার সখ্যতা বলে জিইয়ে উঠল আফ্রিকার ভিডিও

তথ্য যাচাই

বুম রাষ্ট্রপতি কোবিন্দের উন্মোচন করা নেতাজির ছবিটি রিভার্স সার্চ করে নেতাজির ভ্রাতুঃপ্রোপৌত্র চন্দ্র কুমার বসুর একটি টুইট দেখতে পায়। তিনি ১১ জানুয়ারি ২০২০ নেতাজির ওই একই সাদা কালো ছবি টুইট করেন।

সোমবার, এই প্রতিবেদন প্রকাশের কিছুক্ষণ আগে, চন্দ্র কুমার বসু ছবিটি আরও একবার টুইট করে আঁকা ছবিটি ঘিরে গুঞ্জন খোলসা করেন।

আমরা হুবহু একই সাদা কালো ছবি দেখতে পাই ২০১৫ সালে নেতাজির উপরে লেখা একটি ব্লগ পোস্টে। বুম স্বাধীনভাবে ছবিটির উৎস যাচাই করতে পারেনি। যদিও ওই ব্লগ পোস্ট নিশ্চিত করে যে, বর্তমানে ভাইরাল হওয়া ছবিটি ২০১৯ সালে গুমনামি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার অনেক আগের।

বাংলা সিনেমা গুমনামির পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় নেতাজির ছবিকে ঘিরে বিতর্ক নিয়ে ২৫ জানুয়ারি টুইট করেন।

অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ছবিটি সম্পর্কে টুইট করে অভিনন্দন জানিয়েছেন শিল্পী পরেশ মাইতিকে। প্রসেনজিৎ বলেছেন আমি আনন্দিত যে লোকজন ভেবেছেন ছবিটির সঙ্গে সিনেমায় অভিনীত তাঁর চরিত্রের মিল আছে।

বুম একই ছবি সহ আর্ট অ্যালাইভ গ্যালারি-এর একটি ইনস্টাগ্রাম পোস্ট খুঁজে পেয়েছে। সেখানে লেখা হয়েছে, ''এটি আমাদের কাছে একটি গর্বের মুহূর্ত পরেশ মাইতির সুন্দর শ্রদ্ধা নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুকে যা তাঁর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে রাষ্ট্রপতি ভবনে উন্মোচন করা হয়েছে। পোট্রেটটি উন্মোচন করেন ভারতের মাননীয় রাষ্ট্রপতি শ্রী রাম নাথ কোবিন্দ। আমরা এই পোট্রেটটি শেয়ার করে খুবই গর্বিত যা রাষ্ট্রপতি ভবনের সংগ্রহের অংশ হল।''

আমরা ২৫ জানুয়ারি প্রকাশিত দ্যইকনমিক টাইমস-এর একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায় তাতে রাষ্ট্রপতি ভবনের এক অধিকারিক দাবিটি নস্যাৎ করেছেন সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-এর কাছে।

বুম চিত্রশিল্পী পরেশ মাইতি, চন্দ্র কুমার বসু এবং রাষ্ট্রপতি ভবনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে প্রতিক্রিয়ার জন্য। তাঁদের কাছ থেকে প্রত্যুত্তর পেলে প্রতিবেদনটি সংশোধন করা হবে।

আরও পড়ুন: বঙ্গ বিজেপি ছড়াল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ইসলামি স্তোত্র পাঠের কাটছাঁট ভিডিও

Updated On: 2021-01-25T21:35:57+05:30
Claim :   রাষ্ট্রপতি ভবনে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দের উন্মোচন করা নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর ছবিটি আসলে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের ছবি যিনি নেতাজির চরিত্রে অভিনয় করেন সিনেমায়
Claimed By :  Unknown
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.