না, ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরকে রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত করেনি তৃণমূল

বুম রাজ্যসভার ওয়েবসাইটের সদস্য তালিকা যাচাই করে দেখে তৃণমূল কংগ্রেস ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকে উচ্চ-কক্ষে সদস্য করেনি।

সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো একটি গ্রাফিক পোস্টে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে ভোট কুশলী আইপ্যাক সংস্থার প্রধান প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishor) তৃণমূলের (TMC) সদস্য হিসেবে রাজ্যসভায় সাংসদ (Rajya Sabha) হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

বুম দেখে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকে তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্যসভার সংসদ করেছে এই দাবিটি অসত্য।

ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতিশ কুমারে জনতা দল ইউনাইটেডে (জেডিইউ) যোগ দেন ২০১৮ সালে। সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল নিয়ে জেডিইউ দলের অবস্থান নিয়ে সরব হন ২০২০ সালে, তার পরে তাঁকে বরখাস্ত করা হয় দল থেকে। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা তৃণমূল কংগ্রেসে ভোট কুশলী হিসেবে যোগ দেয়। নির্বাচনী ফলে ২৭১ টি আসন পায় তৃণমূল কংগ্রেস। ৫ জুন ২০২১ প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের সাংগঠনিক সভায় উপস্থিত ছিলেন। এর পর সাংগঠনিক রদবদল হয় তৃণমূলে। দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই আবহেই গ্রাফিক পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে।

প্রশান্ত কিশোরের ছবিসহ গ্রাফিক পোস্টটিতে লেখা হয়েছে, " বাংলার অজস্র বাঙালির ভালোবাসা ফেলতে না পেরে প্রশান্ত কিশোর রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হয়ে বাংলার সাথেই থেকে গেলেন, এর ফলে ২০২৪ এ পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন সফল হতে চলেছে, আমার মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী রূপে সর্বোচ্চ উপহারটা তুলে দেবেন দেশবাসীকে। তুমি এগিয়ে চলো মাগো, আমরা তোমার সাথেই আছি।"

ফেসবুক পোস্টটির ক্যাপশন লেখা হয়েছে, " আমরা তোমার সাথে আছি এবং থাকব।" পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম দেখে ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষাণার পর একই দাবিতে গ্রাফিক পোস্টটি সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: করোনাকালে তাইল্যান্ডের ক্লাস নেওয়ার ছবি ছড়াল কেরলে বোর্ড পরীক্ষা বলে

তথ্য যাচাই

বুম রাজ্যসভার ওয়েবসাইটে সদস্য তালিকা যাচাই করে দেখে সেখানে প্রশান্ত কিশোরের নাম নেই। তৃণমূল কংগ্রেস প্রশান্ত কিশোরেকে রাজ্যসভায় সাংসদ করেছে এব্যাপারে কোনও প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়নি গণমাধ্যমে।

তৃণমূল কংগ্রেসের এই মুহূর্তে রাজ্য সভায় দুটি পদ খালি হয়েছে। দিনেশ ত্রিবেদী ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে হঠাৎ তৃণমূলের রাজ্যসভার পদ থেকে ইস্তফা দেন। পরের মাসেই তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল ও বিজেপি সভপতি জেপি নাড্ডার উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন।

তৃণমূলের আরও একটি রাজ্যসভার পদ শূণ্য হয়েছে সম্প্রতি। পশ্চিম মেদিনীপুরে সবং আসনে তৃণমূলের টিকেটে লড়ে বিধায়ক হিসেবে ভোটে জিতে রাজ্য সভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন মানস ভূঁইয়া।

৭ মে ২০২১ প্রকাশিত আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদন অনুযায়ী ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের সমর্থনে রাজ্যসভায় যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

২ মে ২০২১ এনডিটিভিকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রশান্ত কিশোর বলেন অদূর ভবিষ্যতে তিনি ভোট কুশলীর দায়িত্বভার থেকে অব্যাহতি নিতে চান। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংহ ১ মার্চ ২০২১ টুইট করে জানান প্রশান্ত কিশোর মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হিসেবে নিযুক্ত করেছেন। ২০২২ সালে পাঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই দায়িত্বভার যথেষ্ঠ গুরুত্বপূর্ণ বলে ধারণা অভিজ্ঞ রাজনৈতিক মহলের।

আরও পড়ুন: ইউপিএসসি সংরক্ষণ-বিরোধী মোচড় দিয়ে ভাইরাল হল বাংলাদেশি সমাজকর্মীর ছবি

Updated On: 2021-06-18T17:06:10+05:30
Claim Review :   প্রশান্ত কিশোর তৃণমূলের সদস্য হিসেবে রাজ্যসভার সাংসদ হলেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story