ভারত বন‍্ধের খণ্ডচিত্র বলে ছড়াল বিভ্রান্তিকর সম্পর্কহীন পুরনো ছবি

বুম যাচাই করে দেখে সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো বেশ কিছু ছবি পুরনো এবং ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ হওয়া ভারত বন‍্ধের সঙ্গে সম্পর্কহীন।

সম্পর্কহীন একগুচ্ছ পুরনো ছবি সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হল দেশের নানা প্রান্তে ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ সংযুক্ত কিশান মোর্চার (Samyukta Kishan Morcha) সংগঠিত ভারত বন‍্ধের (Bharat Bandh) প্রভাবের দৃশ্য।

২০২০ সালে সংসদে পাশ হওয়া তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে চলা আন্দোলনের ১০ মাসব্যাপী লাগাতার আন্দোলনের ও দেশের "অন্নদাতা"-দের অধিকারের দাবিতে সোমবার ভারত বনধের ডাক দিয়েছিল ৪০ টি কৃষক সংগঠনের জোট সংযুক্ত কিশান মোর্চা। ভারত বনধকে সমর্থন জানায় বাম, কংগ্রেস সহ বিভিন্ন বিরোধী দলগুলি। তৃণমূল কংগ্রেস আন্দোলনে সমর্থন জানালেও রস্তায় নামেনি। ভোর ৬ টা থেকে বিকেল ৪টে অবধি চলে বন্ধ। দেশের সব রাজ্যে সংযুক্ত কিশান মোর্চা বন‍্ধে ইতিবাচক ও স্বতঃস্ফূর্ত প্রভাব পড়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানায় সংযুক্ত কিশান মোর্চা।

দেশের নানা প্রান্তে ও এরাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ভারত বন‍্ধের প্রভাব বলে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ১০ টি ছবি শেয়ার করেছেন। প্রতিটি ছবিতে বিভিন্ন জায়গার নাম ও সময় দেওয়া রয়েছে। ছবিগুলি শেয়ার করে ফেসবুক পোস্টটির ক্যাপশন লেখা হয়, "আজকের খন্ডচিত্র। এতো ট্রেলর, পিকচার আভি বাকি। আমি লজ্জিত এবং দুখিত কারণ, সাঁইথিয়া চৌরাস্তা যে ছবির উপরে লেখা, ওই জায়গা আসলে—রামপুরহাট পাঁচমাথার। ভুল সংশোধনের সুযোগ দেওয়ায় আমি ধন্যবাদ জানাই।"

ছবিগুলি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

আরও পড়ুন: বিভ্রান্তিকর দাবিতে ছড়াল রাকেশ টিকাইতের "আল্লা হু আকবর" ধ্বনি ভিডিও

তথ্য যাচাই

বুম যাচাই করে দেখে ফেসবুকে শেয়ার করা ছবি গুলির মধ্যে বেশ কয়েকটি ছবি পুরনো ও সম্পর্কহীন।

প্রথম ছবি

দুজন বাইক আরোহী কে দুই ব্যক্তি লাঠি দিয়ে মারতে যাওয়ার ছবিতে লেখা রয়েছে বিহার-ঝাড়খণ্ড হাইওয়ে ৭ টা। বুম ছবিটি রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ২০১৮ সালের ১০ অগস্ট প্রকাশিত এনডিটিভি-র একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পায়। এনডিটিভির রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৮ সালে পেট্রোল ও ডিজেলের ক্রমবর্ধমান মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে কংগ্রেস সহ বিভিন্ন বিরোধী দলের ডাকা ভারত বন‍্ধের সময় ছবিটি ওড়িশায় তোলা হয়। ছবির ক্যাপশন অনুযায়ী ভুবনেশ্বরের জয়দেব বিহারে দলের কর্মীদের এক বাইক আরোহীকে থামানোর দৃশ্য।

দ্বিতীয় ছবি

বিহার পাটনা সকাল ৮ টা লেখা একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি দোকানের শাটরে তালা ঝোলানো রয়েছে। ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বরে প্রকাশিত ওড়িশা পোস্টের একটি প্রতিবেদন ওই ছবি ব্যবহার করা হয়। প্রতিবেদনে ছবিটি প্রতীকী ছবি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। বুম নিশ্চিত হয়েছে ছবিটি ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ভারত বন‍্ধের প্রভাবের দৃশ্য নয়। ছবিটি কোথায় কবে তোলা হয়েছে বুমের পক্ষে স্বাধীনভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

তৃতীয় ছবি

নিউ দিল্লি সকাল ৮টা লেখা একটি ফাঁকা ফ্লাইওভারের ছবিটিতে আমরা দেখতে পাই ইকনমিক টাইমসের লোগো রয়েছে। রিভার্স ইমেজ সার্চ করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে সূত্র ধরে ইকনমিক টাইমস ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায়। ছবিটির ক্যাপশনে লেখা হয়, "গুয়াহাটির বিভিন্ন স্থানে দোকানপাট এবং ব্যবসা বন্ধ"। প্রতিবেদন থেকে আমরা জানতে পারি এই ছবিটিও ২০১৮ সালে পেট্রোল ও ডিজেলের ক্রমবর্ধমান দামের বিরুদ্ধে কংগ্রেস সহ বিভিন্ন বিরোধী দলের ডাকা ভারত বন‍্ধের সময় অসমের গুয়াহাটির দৃশ্য।

চতুর্থ ছবি

দিল্লি মিরাট এক্সপ্রেসওয়ের ছবিটি সাম্প্রতিক বলে শেয়ার করা হচ্ছে। পিটিআইয় সূত্র উদ্ধৃত করে ইকনমিক টাইমসের ৫ ডিসেম্বর ২০২০ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ছবিটিকে আমরা খুঁজে পাই। ইকনমিক টাইমস ছবিসূত্র হিসেবে সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে সৌজন্যে দেয়। বুম নিশ্চিত হয়েছে ছবিটি ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ সংযুক্ত কিশান মোর্চার ডাকা ভারত বন‍্ধের দৃশ্য নয়, তবে বুমের পক্ষে স্বাধীনভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি ছবিটি কবে কোথায় তোলা হয়েছে।

বুম ওই ফেসবুক পোস্টের বাকি ছবিগুলি যাচাই করেনি।

আরও পড়ুন: ২০১৮ সালে মজদুর কিশান সংঘর্ষ র‍্যালির ছবিকে বলা হল দিল্লিতে কৃষকদের ঢল

Updated On: 2021-09-28T20:03:32+05:30
Claim Review :   দেশের বিভিন্ন জায়গায় কৃষকদের ডাকা ভারত বন‍্ধের প্রভাব
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story