উত্তরপ্রদেশে আত্মহননের ঘটনার ছবি কলকাতায় নাবালিকা খুন বলে চালানো হচ্ছে

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি উত্তরপ্রদেশের ইটাহ-এর এক কিশোরীর, সে ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে আত্মহত্যা করে।

উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) এক কিশোরীর আত্মহত্যার ছবি, কলকাতার (কলকাতা) জোড়াবাগানে নৃশংসভাবে ধর্ষিত ও খুন হওয়া আট বছরের মেয়ের বলে শেয়ার করা হচ্ছে।

উত্তরপ্রদেশের ইটাহ (Etah)-তে ১৬ বছরের এক কিশোরী একটি বাড়ি থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করে। অভিযোগ, সে যৌন হেনস্তার শিকার হয় ও তার নির্যাতনকারী তাকে ব্ল্যাকমেল করছিল। সেই ছবিটি সোশাল মিডিয়ায় এই মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে যে, সেটি হল কলকাতার সেই আট বছরের মেয়ের ছবি যার ধর্ষণ ও খুনের ঘটনা পশ্চিমবঙ্গকে স্তম্ভিত করেছে।

শিশুদের ওপের যৌন নিগ্রহ নিরোধক আইনের ধারা অনুযায়ী বুম আত্মহত্যাকারীর নাম ও ছবি অস্পষ্ট করে দিয়েছে।

ছবিটির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়েছে, ঘটনাটি কলকাতায় ঘটেছে ও তার জন্য সমালোচনা করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।


তথ্য যাচাই

আমরা দেখি যে, ভাইরাল ছবির মেয়েটি স্কুলের পোশাক পরে আছে আর তাতে লেখা আছে ইটাহ (Etah)। সেটি হল উত্তরপ্রদেশের একটি জেলার নাম। সেই সূত্র ধরে আমরা ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। তার জন্য 'ইটাহ' শব্দটিকে কি-ওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তার ফলে, আমরা অক্টোবর ২০২০-র কিছু সংবাদ প্রতিবেদন দেখতে পাই। সেগুলিতে বলা হয় একটি নির্মীয়মান বাড়ির সবচেয়ে ওপরের তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে এক কিশোরী আত্মহত্যা করে।

২৭ অক্টোবর ২০২০ তে হিন্দি দৈনিক 'অমর উজালা'য় প্রকাশিত একটি খবর অনুযায়ী, ছবিটি হল এক নাবালিকার। একটি লোক তাকে উত্যক্ত করত বলে সে আত্মহত্যা করে। সেই ব্যক্তি তাদের বাড়িতেই এক সময় ভাড়া থাকত। খবরে বলা হয়, ওই লোকটি নিজের ফোনে মেয়েটির কিছু ছবি রেখে দিয়ে ছিল আর তাই দিয়ে ব্ল্যাকমেল করত তাকে।

'টাইমস নাও', লোকমত ইংরেজি ও 'ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস'-এর মত বেশ কয়েকটি সংবাদ ওয়েবসাইটে ওই ঘটনার খবর বেরয়। তাতে পুলিশকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, অভিযুক্তকে পসকো আইনে গ্রেফতার করা হয়।

কলকাতার জোড়াবাগানে কি ঘটেছিল

আমরা জোড়াবাগানের ঘটনা সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে জানতে পারি যে, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ঘটানাটি ঘটে। কলকাতার জোড়া্বাগানে এক পরিত্যক্ত বাড়িতে ৮ বছরের একটি মেয়েকে নৃশংসভাবে ধর্ষণ করে খুন করা হয়।

আমরা কলকাতার যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মুরলীধর শর্মার সঙ্গে যোগাযোগ করি। উনি জানান যে, ভাইরাল ছবিটি জোড়াবাগানের নির্যাতিতার ছবি নয়। "কলকাতার সাম্প্রতিক ঘটনাটির সঙ্গে ছবিটির কোনও সম্পর্ক নেই," বলেন মুরলীধর। উনি আরও বলেন যে, তদন্তের পর পুলিশ দু'জনকে গ্রেফতার করেছে। একজনের নাম রাম কুমার। মেয়েটি যে বাড়িতে থাকত, লোকটি সেই বাড়িতেই সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করত। দ্বিতীয়জন হল রাম কুমারের সাগরেদ, বিহার থেকে আসা রণবীর তাঁতি।

টাইমস অফ ইন্ডিয়া-র প্রতিবেদনে বলা হয় মেয়েটি শোভাবাজারে থাকত। সে তার মামার বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়।

আরও পড়ুন: দিনেশ ত্রিবেদী প্রয়াত বলে ভুয়ো এবিপি আনন্দের ভুয়ো গ্রাফিক শেয়ার ঘাঘু নেটিজেনের

Updated On: 2021-02-15T19:29:05+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি কলকাতার জোড়াবাগানে খুন হওয়া নাবালিকা
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story