জখম মহিলার পুরনো ছবি জোড়া হল মডেল পুনম পাণ্ডের সঙ্গে

বুম যাচাই করে দেখে যে ২০১৮ সালে এক সশস্ত্র ডাকাতিতে এই মহিলা জখম হন। ছবিটি মডেল পুনম পাণ্ডের নয়।

তিনটি ছবির একটি কোলাজ সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর দাবি সহ ভাইরাল হল। প্রথম দুটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে মডেল পুনম পাণ্ডেকে (Poonam pandey)। তৃতীয় ছবিতে এক আহত (injured woman) মহিলাকে দেখা যাচ্ছে। কোলাজটি শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে যে, এই আহত মহিলা পুনম পাণ্ডে।

ফেসবুকে ছবিগুলি শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে যে পুনমের স্বামী স্যাম আহমেদ বম্বে (Sam Ahmed Bombay) তাঁকে নিগ্রহ করেছন।

বুম অনুসন্ধান করে দেখল যে, স্বামী তাঁকে নিগ্রহ করেছেন, এই অভিযোগ করে পুনম সত্যিই সম্প্রতি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কিন্তু এই কোলাজে যে আহত মহিলার ছবিটি দেখা যাচ্ছে, সেটি পুনমের ছবি নয়।

বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদন অনুসারে, মডেল-অভিনেত্রী পুনম পাণ্ডে সম্প্রতি সংবাদ শিরোনামে ছিলেন। কিছু দিন আগেই মাথায়, মুখে এবং চোখে আঘাত নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি তাঁর স্বামী স্যাম বম্বের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করলে ৮ নভেম্বর মুম্বই পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে।

এই পরিপ্রেক্ষিতেই ফেসবুক পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুকে একটি হিন্দি ক্যাপশন দিয়ে ছবির কোলাজটি শেয়ার করা হয়েছে। সেই ক্যাপশনে লেখা হয়েছে: "এই হল পুনম পাণ্ডে, যে হিন্দুত্ব, হিন্দু ও হিন্দু ধর্মের দেবদেবীদের সম্বন্ধে অভদ্র মন্তব্য করে। ধর্মনিরপেক্ষ সাজার তাড়নায় সে শামশেদ আলি ওরফে স্যাম বম্বেকে বিয়ে করেছিল। তার পর শামশেদ তাকে এমন মারে যে তাঁর চোয়াল ভেঙে যায়, ঘাড়ে এবং চোখেও আঘাত লাগে। পুনম এখন হাসপাতালে ভর্তি আছে। #LoveJihadIsReal"

(মূল হিন্দিতে: ये पूनम पांडे है जो अक्सर हिंदुत्व, हिंदुओं को हिंदू देवी देवता पर अभद्र टिप्पणी करती रहती है। सेकुलरिज्म की चुल्ल मिटाने इसने शमशाद अली उर्फ सैम बॉम्बे से निकाह किया। चुल्ल मिटने पर शमशेद ने इसे इतना कुटा कि जबड़ा टूट गया आंख पर चोट आई गर्दन में मोच आई अभी अस्पताल में भर्ती है। #LoveJihadIsReal)

পোস্টটি দেখার জন্য ক্লিক করুন এখানে

একই দাবির সঙ্গে এই ছবির কোলাজটি বিভিন্ন ফেসবুক পেজ ও টুইটার হ্যান্ডল থেকে শেয়ার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: সাঁতারু সায়নী দাসের সদ্য রেকর্ড ভুয়ো দাবিতে ছড়াল বুলা চৌধুরির ছবি

তথ্য যাচাই

বুম দেখল যে, কোলাজে ব্যবহৃত ছবিগুলির মধ্যে দুটি পুনম পাণ্ডে ও তাঁর স্বামী স্যাম বম্বের। তৃতীয় যে ছবিটি কোলাজে ব্যবহৃত হয়েছে, হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে থাকা এক গুরুতর আহত মহিলার সেই ছবিটি কার, জানতে আমরা সেই ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করি।

রিভার্স ইমেজ সার্চ করে প্রথমে কোনও রেজাল্ট পাওয়া যায়নি। তার পর, গুগল যে ক্যাপশন ব্যবহারের সাজেশন দিচ্ছিল, 'পুনম পাণ্ডে'-র পরিবর্তে তা ব্যবহার করে আমরা ২০১৮ সালের একটি ইউটিউব ভিডিওর সন্ধান পাই। ভাইরাল কোলাজে থাকা ছবিটি সেই ভিডিওরই একটি স্ক্রিনশট।

২০১৮ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর ইউটিউবে আপলোড করা এই ভিডিওটির ক্যাপশন, "পুনম পাণ্ডে। আশা পাণ্ডে হাসপাতালে ভাইরাল ভিডিও।"

৫৭ সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে দেখা যায়, এই আহত মহিলা কারও সঙ্গে কথা বলছেন।

ভাইরাল ফেসবুক পোস্টে যে মহিলার ছবি রয়েছে, তার সঙ্গে আমরা এই ভিডিওটির একটি স্ক্রিনশটের তুলনা করে দেখি যে, দুটি ছবি এক এবং অভিন্ন।

এই ভিডিওটির সূত্র ধরে বুম হিন্দিতে पूनम पांडेय अर्शा पांडेय'' কথাগুলি দিয়ে ইন্টারনেট সার্চ করে, এবং বেশ কয়েকটি হিন্দি সংবাদ প্রতিবেদনের সন্ধান পায়, যাতে ২০১৮ সালে উত্তরাখণ্ডের হলদওয়ানিতে একটি খুনের মামলার উল্লেখ রয়েছে।

হিন্দি দৈনিক অমর উজালা-তে ২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, পুনম পাণ্ডে নামে এক মহিলা সে বছর অগস্ট মাসে উত্তরাখণ্ডের হলদওয়ানির গোরা পাডব এলাকায় খুন হন। বাড়িতে সশস্ত্র ডাকাতির সেই ঘটনায় তাঁর মেয়ে আশা পাণ্ডে গুরুতর আহত হন।

সংবাদ প্রতিবেদনে আরও জানানো হয় যে, গোরা পাডব এলাকায় এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির চেষ্টায় বাধা দিলে ডাকাতরা সেই ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে গুলি করে হত্যা করে, এবং তাঁদের কন্যা গুরুতর আহত হন।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনেও নিহত মহিলাকে পুনম পাণ্ডে, এবং আহত মহিলাকে আশা পাণ্ডে হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

এখন যে ছবিটি পুনম পাণ্ডের ছবি বলে ভাইরাল হয়েছে, দৈনিক জাগরণের প্রতিবেদনে সেই ছবিটিই ব্যবহৃত হয়েছিল বলে আমরা দেখতে পাই। হিন্দিতে সংবাদ শিরোনামে লেখা হয়, "অর্শী হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেল, বাড়িতে পুলিশ প্রহরা থাকবে"।

(হিন্দিতে: अर्शी अस्पताल से डिस्चार्ज, घर पर रहेगा पुलिस का पहरा)

বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদনে এই আহত মহিলাকে আশা পাণ্ডে, অর্শা পাণ্ডে এবং অর্শী পাণ্ডে হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। তাঁর প্রকৃত নাম কী, বুম তা নিরপেক্ষ ভাবে যাচাই করতে পারেনি।

কিন্তু আমরা নিশ্চিত ভাবে জানতে পেরেছি যে, এই ছবিটি পুরনো—ছবির মহিলা মডেল-অভিনেত্রী পুনম পাণ্ডে নন।

আরও পড়ুন: অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট সমর্থকের 'ভারত মাতা' ধ্বনির পুরনো ভিডিও ফের ছড়াল

Updated On: 2021-11-15T11:56:49+05:30
Claim :   গার্হস্থ্য হিংসার শিকার পুনম পাণ্ডে যিনি হিন্দু ধর্ম, হিন্দু দেবদেবী ও হিন্দুত্ব নিয়ে অবমাননাকর মতামত
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.