অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট সমর্থকের 'ভারত মাতা' ধ্বনির পুরনো ভিডিও ফের ছড়াল

বুম দেখে ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলে অস্ট্রেলীয় অনুরাগীর স্লোগান তোলা ভিডিওটি জানুয়ারি মাসের, যখন ভারত অস্ট্রেলিয়াকে হারায়।

গত জানুয়ারি মাসে ক্রিকেট মাঠে অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর পর এক ক্রিকেট অনুরাগী ভারতের নামে জয়ধ্বনি (Cheering India) দিচ্ছে, এই পুরনো ভিডিওটিকে পাকিস্তান বনাম অস্ট্রেলিয়ার (Australia Vs Pakistan) সদ্য-অনুষ্ঠিত আইসিসি টি-২০ (T20) প্রতিযোগিতার সময়কার দৃশ্য বলে মিথ্যে করে শেয়ার করা হচ্ছে।

সোশাল মিডিয়ায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার জয় ভারতীয় সমর্থকদের উদযাপন করার দৃশ্য রিপোর্ট হয়েছে। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে শেষের আগের ওভারে অস্ট্রেলীয় ব্যাটার ম্যাথু ওয়েড-এর পর-পর তিনটি ছক্কা পাকিস্তান দলের টি-২০ বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন ধূলিসাত্ করে দেয়l রবিবারের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হতে চলেছেl এর আগেই গত ২৪ অক্টোবর ভারতীয় দল আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় পাকিস্তানের কাছে প্রথম বার পরাজিত হয় টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেইl

বৃহস্পতিবার তীব্র উত্তেজনাপূর্ণ পাক-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের পর ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি ভারতেই বেশি শেয়ার হচ্ছে।

ভারতের নামে জয়ধ্বনি দেওয়া দর্শকটিকে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের জার্সি পরে থাকতে দেখা যাচ্ছে এবং 'ভারত মাতা কি জয়' ও 'বন্দে মাতরম' স্লোগান দিতেও শোনা যাচ্ছে, যা অন্য দর্শকদেরও আনন্দ দিচ্ছে।

ভাইরাল ভিডিওটির ক্যাপশন হলো, বন্দে মাতরম অস্ট্রেলিয়া বনাম পাক!


টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

অন্য একটি ক্যাপশনেও ভিডিওটি ভাইরাল করা হয়েছে, তা হল "ভারত-অস্ট্রেলিয়া আঁতাতের যথার্থ ভাবনা—অস্ট্রেলিয়া বনাম পাকিস্তান: ভারত মাতা কি জয় !


টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে


টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুক-এও বাংলায় একই ধরনের ক্যাপশন দিয়ে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে।


পোস্টটি দেখা যাবে এখানে

জি সালাম ভিডিওটিকে সাম্প্রতিক বলে শেয়ার করেছে

সংবাদমাধ্যম জি সালাম একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এবং একটি টুইটে দাবি করেছে যে ভিডিওটি নাকি সাম্প্রতিকl প্রতিবেদনটির শিরোনাম হল— পাকিস্তান বনাম অস্ট্রেলিয়া, ম্যাচের মাঝপথেই স্লোগান ওঠে—"ভারত মাতা কি জয়" আর "বন্দে মাতরম্"l ভিডিও দেখুন!

উপরন্তু এই একই ভিডিও ইউটিউবেও ভাইরাল হয়েছে, যেখানে বেশ কয়েকটি ইউটিউব চ্যানেল আবার ওই দর্শকটিকে ম্যাথু ওয়েড বলে শনাক্ত করে বসে আছে. যিনি পর-পর তিনটি ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ করে দেন> সেই ভিডিওর আবার ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, ম্যাথু ওয়েড ড্রেসিং রুমে 'ভারত মাতা কি জয়' গাইছেন!

আরও পড়ুন: সাঁতারু সায়নী দাসের সদ্য রেকর্ড ভুয়ো দাবিতে ছড়াল বুলা চৌধুরির ছবি

তথ্য যাচাই

বুম ভাইরাল ভিডিওটিকে কয়েকটি মূল ফ্রেমে ভাগ করে অনুসন্ধান চালিয়ে এবং ১৮ জানুয়ারি ২০২১-এর একটি টুইটে দেখে এই ক্যাপশন— "এ বছর গাব্বা স্টেডিয়ামে ভারতের প্রতি কিছু অসাধারণ প্রেম দেখা গেল"l টুইটকারী ডঃ আশুতোষ মিশ্র লিখেছেন, "আমি খুবই ভাগ্যবান যে, ঠিক সময়ে, ঠিক জায়গায় হাজির থাকায় ওই ব্যক্তির এমন সঠিক উচ্চারণে এই অসামান্য উচ্ছ্বাসের ভিডিও তুলে রাখতে পেরেছি!"

ওই একই দিনে একই ভিডিও পোস্ট করা হয় ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট ফ্যানস নামের একটি পেজ থেকেও, যার কৃতিত্বও মিশ্রকেই দেওয়া হয়।


এই সূত্র অনুসরণ করে আমরা আরও খোঁজখবর চালিয়ে ২১ জানুয়ারি ২০২১ প্রকাশিত ইন্ডিয়া টুডে ভিডিও রিপোর্টে ঘটনাটি প্রকাশিত হতে দেখি। সেই রিপোর্টে লেখা হয়, "বর্ডার-গাভাস্কর ট্রফির অন্তিম ম্যাচে ভারত অস্ট্রেলিয়াকে পরাস্ত করার পর এক অস্ট্রেলীয় সমর্থককে 'ভারত মাতা কি জয়' এবং 'বন্দে মাতরম' স্লোগান দিতে দেখা গিয়েছিল। ভিডিওতে সমর্থকটিকে ভারতের হয়ে গলা ফাটাতে শোনা যাচ্ছিল, যাতে ভারতীয় সমর্থকরাও উৎসাহে গলা মেলাচ্ছিল। গাব্বা টেস্ট ম্যাচের চতুর্থ দিনেই এই একমাত্র অস্ট্রেলীয় সমর্থককে ভারতীয় দলের হয়ে গলা ফাটাতে দেখা যায়।"

রিপোর্টটিতে আরও লেখা হয়, ভারতীয় দল গাব্বার ওই ম্যাচটিতে জয়ী হয়, যে-গাব্বায় গত ৩২ বছর ধরে অস্ট্রেলিয়া অপরাজিত ছিল।

২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি ওই ভিডিওটিই জি নিউজ রিপোর্টও প্রকাশ করে। ২১ জানুয়ারি নিউজ টোয়েন্টিফোর-এর মনক গুপ্ত একটি টুইটে অন্য একটি কোণ থেকে তোলা ভিডিওটি শেয়ার করেন।

Claim Review :   টি ২০ বিশ্ব কাপ সেমি-ফাইনালে পাকিস্তানকে হারানোর পর অস্ট্রেলিয়ায় ভারত মাতা ধ্বনি
Claimed By :  Facebook Posts & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story