জলমগ্ন ঘরের ভেতর এক দম্পতির সাঁতার কাটার ভিডিও পশ্চিমবঙ্গের নয়

বুম দেখে দম্পতির ঘরে সাঁতার কাটার ভিডিওটি ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজের ঘটনা বলে ভাইরাল হয়েছিল।

বুক সমান জলে দাঁড়িয়ে ঘরের ভেতর এক ব্যক্তির তাঁর স্ত্রীকে (couple) সাঁতার (swimming) শেখানোর ভিডিওকে সোশাল মিডিয়ায় বিভ্রান্তিকর দাবি (misleading) সহ শেয়ার করা হচ্ছে। রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জলায় অতি (heavy rainfall) বৃষ্টিতে প্লাবনের পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় ওই দৃশ্যটিকে পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) বন্যার (Floods) সঙ্গে সম্পর্কিত বলে দাবি করা হচ্ছে।

বুম যাচাই করে দেখে ভিডিওটি (Uttar Pradesh) উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজের (Prayagraj)। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজের ঘটনা বলে ভিডিওটি (video) ভাইরাল হয়েছিল।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে পর পর নিম্নচাপের জেরে ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে দক্ষিণবঙ্গের জেলা গুলির বিভিন্ন জায়গায় বন্যা পরিস্থিতি দেখা যায়। কলকাতার বিভিন্ন এলাকায় জল জমে ভোগান্তির শিকার হন সাধারণ নাগরিকরা। আবার নতুন করে ২৮ সেপ্টেম্বর বঙ্গোপসাগরে উদ্ভূত নিম্নচাপের জেরে দুই ২৪ পরগণা, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে গত ২৪ ঘন্টায়।

আরও পড়ুন: পাঞ্জাবের জলমগ্ন রাস্তায় চা-চক্রের ছবি পশ্চিমবঙ্গের বলে ফের ছড়াল

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ২৫ সেকেন্ড সময়ের ভিডিওটিতে দেখা যায়, ঘরের ভেতর বুক সমান জলে দাঁড়িয়ে এক ব্যক্তি গেরুলা শাড়ি পরিহিত এক মহিলাকে সিঁড়ির রেলিং ধরে সাঁতার শেখাচ্ছেন। ভিডিওটি শেয়ার করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের "দুয়ারে সরকার" প্রকল্পকে কৌতুক করা হয়েছে। ২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে পশ্চিমবঙ্গের নাগরিকদের ঘরের কাছে জনপরিসেবার সুবিধা পৌছে দিতে রাজ্য সরকার "দুয়ারে সরকার" (Duare Sarkar) নামে প্রকল্প চালু করে। ভাইরাল ভিডিওটিতে লেখা হয়েচ্ছে, "অনুপ্রেরণায় দুয়ারে সাঁতার শেখানোর প্রকল্প চালু।"

ভিডিওটি শেয়ার করে ফেসবুকে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "দুয়ারে সাঁতার। ও লাভলি"।

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

বুম দেখে একই দাবি সহ অনেকেই ফেসবুকে ওই ভিডিও শেয়ার করেছেন।


আরও পড়ুন: ভারত বন‍্ধের খণ্ডচিত্র বলে ছড়াল বিভ্রান্তিকর সম্পর্কহীন পুরনো ছবি

তথ্য যাচাই

বুম ইউটিউবে কিওয়ার্ড সার্চ করে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ আপলোড করা একটি ভিডিও খুঁজে পায়। ভিডিওটি "ইন খবর" নামে একটি যাচাই করা ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপলোড করা হয়। ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে,"ঘরে আসা গঙ্গায় ডুব, স্বামী-স্ত্রী প্রয়াগরাজের বন্যায় সাঁতার কাটার ভিডিও ভাইরাল"।

ভিডিওটির ৩২ সেকেন্ড সময় পর্যন্ত গেরুয়া শাড়ি পরিহিত ওই মহিলাকে সিঁড়ির রেলিং ধরে সাঁতার কাটা শিখতে দেখা যায়। ওই দম্পতিকে (স্ত্রী নীল শাড়ি পরিহিত অবস্থায়) ভিডিওর পরের দৃশ্যে ভক্তি ভরে প্লাবিত ঘরে জলে ডুব দিতে দেখা যায়।

(ভিডিওটিক মূল ক্যাপশন: घर में आई गंगा में डुबकी, Husband-Wife swimming in Prayagraj Flood, Video Get Viral | India News)।

বুম দেখে একাধিক গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়েছে। ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ প্রকাশিত পত্রিকার প্রতিবেদনেও বলা হয় ভিডিওটি উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজেররই।

ওই প্রতিবেদনে ওই সাঁতারে অংশ নেওয়া দুজনকে দম্পতি বলা হয়েছে।

বুম দেখে জনসত্তা, জাগরণ, জি নিউজ হিন্দি এবং পাঞ্জাব কেশরী তাদের প্রতিবেদনে এই ভাইরাল ভিডিওটিকে প্রয়াগরাজ ঘটনা বলে দাবি করেছে।

২০২০ সালের অগস্ট মাসে একই ভিডিও দিল্লির ঘটনা বলে সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলে বুম সেটির তথ্য যাচাই করেছিল।

আরও পড়ুন: ভুয়ো দাবি: জরাজীর্ণ ভাঙাচোরা বাড়িতে পশ্চিমবঙ্গের সিআইডি দপ্তর

Updated On: 2021-09-29T18:59:18+05:30
Claim Review :   পশ্চিমবঙ্গে দুয়ারে সাঁতার শেখানোর প্রকল্প চালু
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story