রাজীব গাঁধীকে সুরক্ষা দিতে এসপিজি কি একজন ভিখারিকে গুলি করেছিল?

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিরাপত্তার বিচ্যুতি হওয়ার প্রেক্ষাপটে এমনই একটি ভুয়ো দাবি সহ একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গাঁধীর (Rajiv Gandhi) একটি অনুষ্ঠান গুলি চালনার কারণে বিঘ্নিত হওয়ার একটি দৃশ্য সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দাবি করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (SPG) জওয়ানরা এক ভিখারিকে ভয়ংকর ভেবে গুলি (Shot) চালিয়ে দিয়েছিল।

বুম দেখলো, এই দাবিটি সম্পূর্ণ ভুয়ো, কেননা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) যে ভিডিও আর্কাইভে এই ফুটেজটি রয়েছে, সেখানে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ভিডিওটি এক বন্দুকবাজের তোলা, যে রাজীব গাঁধীকে হত্যা করার চেষ্টা করেছিল। সংবাদপত্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই বন্দুকবাজকে রাজীব গাঁধীর নিরাপত্তা রক্ষীরা পাকড়াও করে ফেলেছিল।

বিজেপির নেতা নীরজ জৈন এই ভিডিওটিই শেয়ার করে হিন্দিতে ক্যাপশন দিয়েছেন, "রাজীব গাঁধী তখন প্রধানমন্ত্রী। তিনি প্রার্থনা করতে রাজঘাটে গিয়েছিলেন। তাঁর নিরাপত্তার ভারপ্রাপ্ত এসপিজি কোনও এক ব্যক্তিকে দেখতে পায় এবং সঙ্গে-সঙ্গেই তাকে গুলি করে। পরে দেখা যায়, লোকটি একজন ভিখারি। আর আজ কংগ্রেসিরা প্রশ্ন করছে—কেউ কি নরেন্দ্র মোদীর দিকে ইঁট-পাথর ছুঁড়েছিল, কিংবা গুলি চালিয়েছিল?"

(মূল হিন্দিতে ক্যাপশন: ,"राजीव गांधी PM थे। राजघाट पर प्रार्थना के लिए गए थे तभी झाड़ियों में कुछ हलचल हुई एक व्यक्ति SPG को नजर आया तुरंत Spg ने गोली चला दी ! बाद में पता चला कि वह व्यक्ति एक भिखारी था ! आज यही कांग्रेसी कह रहे हैं क्या ⁦@narendramodi⁩ पर किसी ने पत्थर फेंके क्या किसी ने गोली चलाई")


টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

টুইটারে ওই হিন্দি ক্যাপশন থেকে কয়েকটি মূল শব্দ বেছে খোঁজ করে আমরা দেখি, এপি-র ওই একই ভিডিও একই বিবরণী ও ক্যাপশন সহ ভাইরাল হয়েছে।


একই ভাবে ফেসবুকেও পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে।


প্রধানমন্ত্রীর পাঞ্জাব সফরের সময় সম্প্রতি একটি উড়াল পুলের ওপর বিক্ষোভকারীদের দ্বারা তাঁর কনভয় অবরুদ্ধ হওয়ার পরই এই সব পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ভুয়ো দাবিতে ছড়াল সচিন তেন্ডুলকরের শেষকৃত্যে অংশ নেওয়ার পুরনো ছবি

তথ্য যাচাই

বুম 'অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস...রাজীব গাঁধী...গুলি চালনা...'এই শব্দগুলি বসিয়ে এপি-র আর্কাইভ খোঁজ করে ফুটেজটি দেখেছে।

সর্বপ্রথম যে ফুটেজটি দেখা যায়, সেটি এপি-র নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলেই আপলোড হয়েছিল।

এই ভিডিওটির ক্যাপশন অনুসারে এটি ১৯৮৬ সালের ২ অক্টোবর তোলা, যেদিন গান্ধী-জয়ন্তী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী রাজীব গাঁধী রাজঘাটে একটি প্রার্থনাসভায় নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। ক্যাপশনে লেখা— "জনৈক শিখ আততায়ী কাছাকাছি একটা খোলা ছাদের ওপর লুকিয়েছিল।"

আমরা ঘটনাটির প্রতিবেদনের খোঁজ করি এবং লস এঞ্জেলেস টাইমস-এ একটি রিপোর্টও প্রকাশিত হতে দেখি। সেখানে লেখা ছিল, "আততায়ী লতাগুল্মে ঢাকা একটি ছাদের ওপর লুকিয়ে রাজীব গাঁধী ও রাষ্ট্রপতি জৈল সিংকে লক্ষ করে একটি দেশি পিস্তল থেকে গুলি ছোঁড়ে।"

প্রতিবেদনটিতে জানানো হয়, আততায়ীর কোনও পরিচয় সেভাবে জানা যায়নি এবং সে একাই ছিল, কোনও সন্ত্রাসবাদী দল বা গোষ্ঠীর সঙ্গে তার কোনও যোগাযোগ ছিল না।

ওয়াশিংটন পোস্টেও ঘটনাটির বিবরণ প্রকাশিত হয়, তবে সেখানে আততায়ী নিজেকে "মনমোহন দেশাই" নামে পরিচয় দেয়, যদিও পরে অনেকবারই নিজের নাম পাল্টাতে থাকে।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তরপ্রদেশের বিদ্যুৎ মাশুলের তুলনা গ্রাফিক বিভ্রান্তিকর

Claim :   রাজীব গাঁধীর এসপিজি নিরাপত্তারক্ষী তাঁকে বাঁচাতে এক ভিখারিকে গুলি করে
Claimed By :  Neeraj Jain, Facebook Posts & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.