২০২০ সালে লেবাননে বিস্ফোরণের ভিডিও ছড়াল ইউক্রেনের কিয়েভে বিস্ফোরণ বলে

বুম যাচাই করে দেখে ভিডিওটি ২০২০ সালের ৪ অগস্ট লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বিস্ফোরণের ঘটনা।

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে (Beirut) ২০২০ সালে বিস্ফোরণের (Explosion) দৃশ্য (Video) ইউক্রেনের (Ukraine) রাজধানী কিয়েভে (Kyiv) বিস্ফোরণের ঘটনা বলে মিথ্যে দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে।

রাশিয়ার ইউক্রেন আগ্রাসনের চেষ্টার পর পশ্চিমাদেশগুলির তরফে চাপ সৃষ্টি করার চেষ্টা হচ্ছে। এদিন রুশ মুদ্রা রুবেলের দাম পড়ে যায়। শুক্রবার রাশিয়া ইউক্রেন আক্রমণ করলে পরিস্থিতি সংকটপূর্ণ হয়ে ওঠে, সংকট এখনও অব্যাহত। রাশিয়া ইউক্রেন যাতে সমঝোতার দিকে এগোয় সেদিকে তাকিয়ে রয়েছে বিশ্বের অন্যন্য দেশগুলি।

ভাইরাল হওয়া ২ মিনিট ৮ সেকেন্ডের ভিডিওটির প্রথম ১৭ সেকেন্ডে দেখা যায় ওই বিস্ফোরণের দৃশ্য। ১ মিনিট ১১ থেকে ১ মিনিট ১৯ সেকেন্ড সময়েও দেখানো হয় গগনচুম্বী অট্টালিকার পাশে লালাভ লেলিহান শিখা সহ ধোঁয়া।

সংবাদ পাঠিকার কণ্ঠে শোনা যায় হামলার দ্বিতীয় দিয়ে কিয়েভে বিস্ফোরণের শব্দ।

ভিডিওটি ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "রুশ হামলার দ্বিতীয় দিনেও বিস্ফোরণ, কিয়েভের ব্লকে রাশিয়ার বিমান বিধ্বস্ত, পোল্যান্ড সরিয়ে নেয়া হচ্ছে বাংলাদেশিদের।"


ফেসবুক পোস্টটি দেখুন এখানে

আরও পড়ুন: সেনাকর্মীর প্রেয়সীকে আলিঙ্গনের ২০১৫ সালের ছবি ইউক্রেনে যুদ্ধ বলে ছড়াল

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির মূল ফ্রেম রিভার্স ইমেস সার্চ করে ৫ অগস্ট ২০২০ প্রকাশিত গণমাধ্যম সান-এর একটি ১ মিনিট ৫২ সেকেন্ডের ইউটিউব ভিডিও খুঁজে পায়। ওই ভিডিওর ইংরেজিতে শিরোনাম লেখা হয়, "বৈরুতে বিস্ফোরণ-ছত্রাকারের বিস্ফোরণ ছড়িয়ে পড়ে লেবাননের রাজধানীতে।"

(মূল ইংরেজিতে শিরোনাম: Beirut explosion - mushroom shaped blast rips through Lebanese capital)

বুম দেখে একই ভিডিওর দৃশ্য ২০২০ সালের ৪ অগস্ট গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানবিবিসি প্রকাশ করে।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, লেবাননের রাজধানী বৈরুতে বন্দর এলাকার গুদামে জমে থাকা অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকে ওই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী ওই ঘটনায় প্রাণ হারান ২১৮ জন ও আহত হন প্রায় ৭০০০ জনের বেশি।

আরও পড়ুন: ইউক্রেনের আকাশে রুশ প্যারাট্রুপার দাবিতে ছড়াল ২০১৬ সালের ভিডিও

Claim :   ভিডিওর দাবি ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে বিস্ফোরণ
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.