Gulbarga-তে Ram Navami মিছিলের পুরনো ভিডিও সাম্প্রদায়িক রঙ সহ ভাইরাল

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল হওয়া ক্লিপটি কর্নাটকের, মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়নের নয়—যেখানে ২৫ ডিসেম্বর সাম্প্রদায়িক হিংসা হয়।

একটি মসজিদের (Mosque) সামনে গেরুয়া পতাকা হাতে প্রচুর মানুষ দাঁড়িয়ে আছে, এমন একটি ভিডিও একটি মিথ্যে দাবির সঙ্গে ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতে (Viral Video) দাবি করা হয়েছে যে, মধ্যপ্রদেশের (Madhyapradesh) উজ্জয়নে (Ujjain) ২৫ ডিসেম্বর যে পাথর ছোঁড়ার (stone pelting) ঘটনা ঘটে, তার জবাব দিতে হিন্দুরা নিজেদের শক্তি প্রদর্শনের জন্য ওই মিছিলের আয়োজন করে।

বুম যাচাই করে দেখে যে, ওই ভিডিওটি কর্নাটকের গুলবর্গার এবং ভিডিওটি ইন্টারনেটে আছে ২০১৯ সাল থেকে। ওই ভিডিওতে রাম নবমীর একটি শোভাযাত্রা দেখা যাচ্ছে।

২০২০ সালের ২৫ ডিসেম্বর মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়ন-এ যে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ হয়, তার পরিপ্রেক্ষিতে এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদন অনুসারে, অযোধ্যায় মন্দির নির্মাণের জন্য অর্থ সংগ্রহ করার উদ্দেশ্যে আয়োজিত একটি বাইক মিছিলে পাথর ছোঁড়া হয়।

সংবাদ প্রতিবেদনগুলিতে বলা হয় যে, মিছিলটি যখন উজ্জয়নের বেগমবাহার অঞ্চল দিয়ে যাচ্ছিল, তখন মুসলিম সম্প্রদায়ের লোকেরা মিছিলের দিকে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে। ওই ঘটনার একটি ভিডিও তারপর থেকে সোশাল মিডিয়ায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। অতঃপর ওই অঞ্চলে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, মিছিলে পাথর ছোড়ায় অভিযুক্তরা যে বাড়িতে থাকত তার একটি শনিবার উজ্জয়নের জেলা কর্তৃপক্ষ একেবারে ভেঙ্গে দিয়েছে ও অন্যটি আংশিক নষ্ট করে দিয়েছে। টাইমস নাউতে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়, "কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে বেআইনি নির্মাণ সরানোর জন্য এই ভাঙ্গার কাজ করা হয় এবং তার জন্য আগেই বাড়ির মালিক টিকারাম ও হামিদকে যথাযথ নোটিস দেওয়া হয়েছিল।"

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে বিপুলসংখ্যক মানুষকে গেরুয়া পতাকা হাতে রাস্তায় মিছিল করতে দেখা যাচ্ছে। পরে ক্যামেরা ঘুরলে রাস্তার উপর একটি মসজিদ দেখা যায়। ভাইরাল হওয়া ভিডিওর সঙ্গে হিন্দিতে যে ক্যাপশন লেখা হয়েছে তার অনুবাদ, " গতকাল উজ্জয়নে যেখানে পাথর ছোঁড়া হয়েছে সেখানকার দৃশ্য। এই হল হিন্দুদের শক্তি"।

হিন্দি ভাষায় লেখা মূল লেখা: कल जहा पथराव किया गया था उज्जैन मे" ये आज का दृश्य है ये हिन्दूओं की ताकत)

এরকম একটি পোস্ট আর্কাইভ করা আছে এখানে


ফেসবুকে ভাইরাল


বিভিন্ন ফেসবুক পেজের পাশাপাশি টুইটারেও একই দাবি সহ ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ডন-এ প্রকাশিত খবর পাকিস্তানি বিমান চালক এফ-১৬ বিমানে প্রসাব করেছেন

তথ্য যাচাই

ভাইরাল হওয়া ক্লিপের একটি স্ক্রিনশট নিয়ে বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে এবং ২০১৯ সালের ১৩ এপ্রিল ইউটিউবে আপলোড করা ভিডিওটির একটি অপেক্ষাকৃত লম্বা ভার্সন দেখতে পায়। ইউটিউব ভিডিওটির শিরোনামে লেখা হয়, "গুলবর্গায় রাম নবমী উদযাপনের বিরাট শোভাযাত্রা, ২০১৯"।

আমরা দুটি ভিডিওই খুব ভাল করে লক্ষ করি এবং বুঝতে পারি দুটি একই ভিডিওর অংশ। নীচে মূল ইউটিউব ভিডিও ও এখন ভাইরাল হওয়া ভিডিওর স্ক্রিনশটের তুলনাটি ভাল করে দেখতে পাবেন।

বামে ভাইরাল ভিডিও ও ডানে ইউটিউব ভিডিও।


বামে ভাইরাল ভিডিও ও ডানে ইউটিউব ভিডিও।

ফেসবুকের ভিডিওটি স্পষ্ট ছিল না, তাই বুম ইউটিউবের ভিডিওটি ভালো করে লক্ষ করে এবং একটি সাইনবোর্ডে বাসবগঙ্গা মেডিকেল এন্টারপ্রাইজ নামটি দেখতে পায়। এই সূত্র ধরে আমরা গুগুল ম্যাপে ওই ওষুধের দোকানের খোঁজ করি এবং একটি মসজিদের পাশে তা দেখতে পাই। দেখা যায় যে পাশাপাশি অঞ্চলের ছবিও একই ধরনের।


বুম এরপর ওই ওষুধের দোকানের সঙ্গে যোগাযোগ করে এবং যাচাই করার জন্য তাদের এই ভিডিওটি দেখায়। শিবরাজ নামে ওই দোকানের এক ব্যক্তি নিশ্চিত করে জানান যে ভিডিওটি গুলবর্গার।

শিবরাজ বুমকে বলেন, "রাম নবমী উদযাপনের পুরানো ভিডিও এটি। ঠিক কত পুরানো তা আমি জানি না। তবে এটা ঠিক যে এই ভিডিওতে এই বছরের উৎসবের দৃশ্য দেখা যাচ্ছে না। কারণ এবার অতিমারির কারণে সব কিছু বন্ধ ছিল।"

আরও পড়ুন: পুরুষের জননাঙ্গে দেওয়া হবে কোভিড-১৯ টিকা? ভাইরাল হল ভুয়ো সিএনএন স্ক্রিনশট

Claim Review :   ভিডিও দেখায় উজ্জয়ন-এ পাথর ছোঁড়ার ঘটনা
Claimed By :  Facebook Posts & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story