ইতালির মিলান নয়, দিল্লির ইসকন মন্দিরে থাকা বৃহত্তম গীতার ছবি এটি

বুম দেখে ২০১৯ সালে দিল্লির ইতালির মিলানে তৈরি শ্রীমদ্ভাগবত গীতাটি রয়েছে দিল্লির ইসকন মন্দিরে।

২০১৯ সালে দিল্লির ইসকন মন্দিরে পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহত্তম (largest) মুদ্রিত আকরে ধর্ম গ্রন্থ 'শ্রীমদ্ভাগবত গীতা' (Gita) উদ্ধোধনের দুটি ছবিকে মিথ্যে দাবি সহ শেয়ার করা হচ্ছে। ওই ফেসবুক পোস্টে মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে ৮০০ কেজি ওজনের (800 kg) এই গীতা রয়েছে ইতালির মিলান (Milan, Italy) শহরে।

ভাইরাল হওয়া ছবি দুটির মধ্যে একটিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও অন্যান্য দুই ব্যক্তিকে বৃহদাকার একটি বইয়ের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। অন্য একটি ছবিতে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ওই বৃহদাকার বইয়ের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন।

ফেসবুকে ছবি দুটি শেয়ার করে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ''পৃথিবীর সর্ববৃহৎ #শ্রীমদ্ভাগবত_গীতা। দেড় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই মহাগ্রন্থের ওজন ৮০০ কেজি। এটি ইতালির মিলানে অবস্থিত। জয় গীতা''

ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে


তথ্য যাচাই

বুম ৮০০ কেজি গীতা লিখে কিওয়ার্ড সার্চ করলে ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ প্রকাশিত বিজনেস টুডের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায়।

দৈর্ঘে ৯ ফুট ও প্রস্থে সাড়ে ৬ ফুট পরিমাপের ৮০০ কেজি ওজনের ওই ধর্ম পুস্তকটি রয়েছে দক্ষিণ দিল্লির কৈলাসের পূর্বের ইসকন মন্দিরে (ISKCON)।

ভাইরাল হওয়া ছবি দুটি দেখা যাবে ৩ মার্চ ২০১৯ ইসকন নিউজ-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে। প্রথম ছবিটিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছে গোপাল কৃষ্ণ গোস্বামী।


ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে জাপানি পদ্ধতিতে মুদ্রিত ওই বিশেষ ইস্পাতের স্ক্রু দিয়ে ওই বইয়ের বাঁধাই করা হয়েছে। ইতালির মিলানের বিশেষজ্ঞরা এটি মুদ্রণ ও প্রস্তুত করেছেন। বিশেষ কার্বন তন্তু দিয়ে তৈরি হয়েছে এর মলাট। পাতায় হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে সিন্থেটিক ওয়াইইউপিও কাগজ। বইটি জলরোধী ও ভঙ্গুর নয়। উপযুক্ত যত্নে বইটিকে রাখা হলে এটি অক্ষয় হতে পারে হাজার হাজার বছর।

এই উদ্বোধনের ঘটনা নিয়ে ডিডি নিউজ ও ইন্ডিয়ান একপ্রেসের প্রতিবেদন পড়া যাবে এখানেএখানে

আরও পড়ুন: করিনার দ্বিতীয় সন্তান বলে ক্লিকবেইট রিপোর্ট ছড়াল তৈমুর-এর পুরনো ছবি

Claim Review :   ছবি দেখায় ইতালিতে ৮০০ কেজি ওজনের সর্ববৃহঃত্তম গীতা
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story