শীতলকুচি ঘটনা নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য অমিত শাহের

বুম দেখে কোচবিহারে একই বুথে ৫ জন নিহত হননি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শহীদ বেদিতে নিহত ৫ জনের নামেই শ্রদ্ধাঞ্জলি দেন।

শীতলকুচিতে (Sitalkuchi) মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে রবিবার সংবাদ সম্মেলনে (press conference) বিভ্রান্তিকর তথ্য (misleading claims) পরিবেশন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। শান্তিপুরে (Santipur) নির্বাচনী প্রচারের ফাঁকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বক্তব্য রাখার সময় তথ্য-ভ্রান্তি ঘটান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সাংবাদিকদের বলেন, "ওই বুথে সকালে আনন্দ বর্মনকে মেরে ফেলা হয়। ওই বুথেই সিআইএফএস-এর হাতিয়ার ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু মমতা দিদি শুধু ৪ জনকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেয় কিন্তু আনন্দ বর্মনের মৃত্যুতে কিছু যায় আসে না।''

নিচের ভিডিওটিতে ওই বক্তব্য দেখা যাবে ১ মিনিট ৫২ সেকেন্ড সময়ের পর। সংবাদ প্রতিদিনের ইউটিউব চ্যানেলে ওই প্রেস কনফারেন্স দেখা যাবে এখানে (২৮ সেকেন্ড সময়ে)।

দুটি পৃথক ঘটনা

শীতলকুচিতে শনিবার চতুর্থ দফার ভোট গ্রহণের দিন দুটি কোচবিহার জেলায় দুটি পৃথক হিংসার ঘটনা ঘটে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে শনিবার মারা যায় ৪ পরিযায়ী শ্রমিক। ওই ঘটনটি ঘটে জোরপাটকি গ্রামের আমতলি মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রের ১২৬ নম্বর বুথে। জোরপাটকি মাথাভাঙ্গা ১ ব্লকে।

অন্যদিকে ২৮৫ নম্বর বুথে দুস্কৃতকারীদের গুলিতে নিহত হয় আনন্দ বর্মা। জায়গির গোলেনাওহাটি ফিফথ প্ল্যান প্রাইমারি স্কুলের বুথ ছিল সেটি। জোরপাটকি শীতলকুচি ব্লকে।

আরও পড়ুন: শীতলকুচির জখম জওয়ান বলে ধানবাদের ছবি ছড়ালেন বাংলার বিজেপি নেতারা

শহীদ বেদিতে ৫ জনের নাম

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আনন্দ সহ মোট ৫ জন ব্যক্তির নাম লেখা শহিদ বেদিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে শ্রদ্ধার্ঘ জানান জলপাইগুড়ির নাগরাকাটার জনসভায়।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেসবুক লাইভে দেখানো শহীদ বেদিতে ৫ ব্যক্তির নামই রয়েছে।

রাজ্যসভার তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন-এর পোস্ট করা ছবিতে ৫ ব্যক্তির নামই রয়েছে।

Updated On: 2021-04-12T20:10:35+05:30
Show Full Article
Next Story