বিক্ষোভের সময় টহল দেওয়া পুলিশটি কি একজন আরএসএস কর্মী? একটি তথ্য যাচাই

বুম নিশ্চিত হয়েছে যে, এই ব্যক্তিটি দিল্লি পুলিশের একজন অফিসার বিনোদ নারাং।

নাগরিকত্ব আইন-বিরোধী সাম্প্রতিক আন্দোলনের সময় টহল দেওয়া এক পুলিশ অফিসারের ছবির সঙ্গে আরএসএসের এক কর্মীর ছবি কোলাজ করে ভাইরাল করা হয়েছে এই ভুয়ো ব্যাখ্যা সহ যে, উভয়ে একই ব্যক্তি। বুম এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পেরেছে যে, উক্ত পুলিশ অফিসারটি হলেন দিল্লি পুলিশের কনট প্লেস থানার পদস্থ ইনস্পেক্টর বিনোদ নারাং আর আরএসএসের কর্মী বলে বিবৃত ব্যক্তিটি আরএসএস কর্মী অশোক ডোগরা, যিনি ভারতীয় জনতা পার্টির রাজস্থানের এক নেতা।

রাজধানীতে বর্তমানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জির প্রতিবাদে ব্যাপক আন্দোলন চলছে। দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিবাদী ছাত্রদের উপর পুলিশি দমননীতির প্রতিবাদে এই আন্দোলন আরও জোরদার হয়েছে।

পুলিশ অফিসারটিকে যখন আন্দোলনকারীদের আশেপাশে টহল দিতে দেখা যায় এবং তার উর্দিতে সাঁটা ব্যাচে কোনও নাম-পরিচয় না থাকায় তার পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন করলে তিনি যখন উত্তর এড়িয়ে যান, তার পরই ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

আরএসএস কর্মীর ছবির সঙ্গে কোলাজ করে পোস্ট করা ফেসবুকের এই ছবিটির ভিডিও-র ক্যাপশন হলো: "নির্মম সত্য: আরএসএস-বিজেপির গুণ্ডারা পুলিশের উর্দি পরে উত্তরপ্রদেশে বর্বরতা চালাচ্ছে।" ফেসবুক পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে ভাইরাল


একই দাবি সহ টুইটারেও ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি।

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

পোস্টটির সত্যতা যাচাই করার অনুরোধ নিয়ে বুম-এর হেল্পলাইন নম্বরেও (৭৭০০৯০৬১১১) বার্তা আসে।

তথ্য যাচাই

আরএসএস কর্মী এবং পুলিশ অফিসারটির মুখের আদল তুলনা করলে বেশ কিছু তফাত নজরে পড়ে। আমরা দেখেছি, পুলিশ অফিসারটি দিল্লি পুলিশের ইনস্পেক্টর পদমর্যাদার আর আরএসএস কর্মীটি রাজস্থানের এক বিজেপি নেতা।

পুলিশের উর্দি পরা লোকটি কে?

দক্ষিণ দিল্লির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার চিন্ময় বিশোয়াল আমাদের কাছে লোকটিকে শনাক্ত করেন কনট প্লেস থানার স্টেশন অফিসার বিনোদ নারাং নামে। আমরা পুরনো সংবাদ-প্রতিবেদন থেকেও বিষয়টির সমর্থন পাই এবং নারাং-এর ছবির সঙ্গে তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে দেওয়া ছবিও মিলে যায়।

এরপর আমরা খোদ নারাং-এর সঙ্গেও যোগাযোগ করি এবং তিনি জানান, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে তাকে দেখানো হয়েছে যখন তিনি মন্ডি এলাকায় টহল দিচ্ছিলেন। তিনি অভিযোগ করেন, বিক্ষোভকারীদের মোকাবিলা করার সময়েই তার নামের ব্যাজটি উর্দি থেকে স্থানচ্যুত হয়। আর এর ঠিক পরেই ভিডিওটি তোলা হয়। নারাং-এর কোনও রাজনৈতিক আনুগত্য আছে কিনা কিংবা তিনি আরএসএস করেন কিনা জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করে বলেন—"আমি রাজনীতি করিনা, আরএসএস করার তো প্রশ্নই নেই।"

আরএসএস কর্মীর ছবির ব্যক্তিটি রাজস্থানের বিজেপি নেতা

ভাইরাল হওয়া ছবিতে আরএসএসের তিন জনকে উর্দি পরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। এদের একজন হলেন লোকসভার বর্তমান স্পিকার ওম বিড়লা, আর তার পাশেই যিনি গোল বৃত্ত দিয়ে চিহ্নিত, তিনিও এক আরএসএস কর্মীই, যাকে ভুল করে ভাইরাল ছবিতে দিল্লি পুলিশের ইনস্পেক্টর বলে চালানো হচ্ছে। বুম ওম বিড়লার একাধিক সরকারি পোস্ট খতিয়ে দেখেছে, তাতে এই ব্যক্তিটি রয়েছেন। তার পর রাজস্থানের আরএসএস কর্মী-নেতাদের তালিকা খুঁজে বুম দেখেছে, এই ব্যক্তিটি হলেন রাজস্থানের বুন্দি থেকে নির্বাচিত বিজেপি বিধায়ক অশোক ডোগরা।


অশোক ডেগরার ফেসবুক প্রোফাইল দেখতে ক্লিক করুন এখানে

Updated On: 2019-12-27T21:25:26+05:30
Claim Review :  আরএসএস কর্মী দিল্লি পুলিশের ভেক ধরে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story