চিনে মানব দেহাংশ দিয়ে তৈরি হচ্ছে কর্নড বিফ, দাবি করা হল ভুয়ো বার্তায়

কিছু সম্পর্কহীন বিপণনের ছবি ও ভীতি উদ্রেককারী একটি ভিডিও ব্যবহার করে হোয়াটসঅ্যাপে বার্তাগুলি ছড়ানো হচ্ছে।

কয়েকটি ছবির সেট সহ একটি ভিডিও হোয়্যাটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভারতে ছড়িয়ে পড়েছে। এই ভিডিওতে দাবি করা হয়েছে যে চিন মৃত মানব দেহাংশ দিয়ে কর্নড বিফ তৈরি করছে আফ্রিকায় রফতানি করার জন্য। বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে যে দাবিটি মিথ্যে। যে ভিডিওটি হোয়্যাটসঅ্যাপে শেয়ার করা হয়েছে, তার সঙ্গে চিনে প্যাকেটজাত গোমাংস উৎপাদন এবং তা আফ্রিকা বা অন্যান্য দেশে রফতানির কোনও সম্পর্ক নেই।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, লম্বা গাউন পরিহিত এক জন লোক, যার মুখ টুপি এবং মুখোশ দিয়ে ঢাকা, একটি গলির মধ্যে কংক্রিটের দেওয়ালের পাশে একটি মৃতদেহের চামড়া ছাড়াচ্ছেন। সেখানে আরও অনেক মৃতদেহ পড়ে রয়েছে এবং একই রকম পোশাক পরা আরও কিছু লোককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল হওয়া মেসেজে এই ভিডিওটির সঙ্গে আরও কিছু ছবি দেখা যাচ্ছে, যার মধ্যে রয়েছে কতগুলি প্যাকেটজাত মাংসের কৌটো (ভিডিওটির সঙ্গে এই ছবিগুলির কোনও সম্পর্ক নেই), একটি ইস্পাতের টেবিলে শোয়ানো একটি মানুষের মৃতদেহ, যেটিকে ঘিরে ল্যাবের পোষাক পরা কিছু লোক দাঁড়িয়ে আছে, এবং তার পিছনে কিছু পশুর দেহ ঝুলছে।

ভিডিওর সঙ্গে যে ক্যাপশন রয়েছে, তাতে লেখা হয়েছে, "মেসেজটি সব পরিচিতকে পাঠান, এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। চিনের লোকেরা তাদের মৃতদেহ দিয়ে কর্নড বিফ তৈরি করছে এবং সেগুলি আফ্রিকায় পাঠাচ্ছে। যে ব্র্যান্ডেরই হোক না কেন, কর্নড বিফ থেকে দূরে থাকুন। বিশেষত আফ্রিকা এবং আফ্রো-এশিয়ান গ্রসারি শপ থেকে দূরে থাকুন।" হোয়্যাটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পড়া এই মেসেজে সব ক্ষেত্রে যে একই ছবি থাকছে, তা নয়। ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট দিয়ে একই ক্যাপশন ও সঙ্গের ছবি দিয়ে মেসেজটি শেয়ার করা হচ্ছে।

(সতর্কীকরণ: মৃতদেহ এবং দেহাংশের ভীতি উদ্রেকারী দৃশ্য)

বুমের হেল্পলাইন নম্বরে (+৯১৭৭০০৯০৬১১১) যে হোয়্যাটসঅ্যাপ মেসেজ এসেছে তা এখানে দেখুন।

ফেসবুকে একেবারে প্রথম দিকে যে মেসেজে এই ছবিগুলি শেয়ার করা হয়েছিল, সেটি দেখুন।

(সতর্কীকরণ: মৃতদেহ এবং দেহাংশের ভীতি উদ্রেকারী দৃশ্য)

ফেসবুক পোস্ট দেখা যাবে এখানে এবং পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

(সতর্কীকরণ: মৃতদেহ এবং দেহাংশের ভীতি উদ্রেকারী দৃশ্য)

ফেসবুকের স্ক্রিনশট সমেত যে মেসেজ হোয়্যাটসঅ্যাপে ভাইরাল হয়েছে সেই একই ধরণে পোস্টটি টুইটারেও শেয়ার করা হয়েছে।

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

এ রকম বিকৃত ছবি সমেত পোস্ট ২০১৬ সাল থেকে ইন্টারনেটে ঘুরছে। এ রকমই একটি উদাহরণ হল নাইরাল্যান্ড পোস্ট, নেটিজেনরা যে খবরটি শেয়ার করে দাবি করেছিলেন যে চিনে প্যাকেটজাত কর্নড বিফ তৈরি হচ্ছে মানব শরীর দিয়ে, এবং তা আফ্রিকায় রপ্তানি করা হচ্ছে। গত কয়েক দিন ধরে এই ভিডিওটি হোয়্যাটসঅ্যাপে ভারতে বিপুল ভাবে শেয়ার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: না, শি জিনপিং করোনাভাইরাসের ঠেকানোর কৌশল জানতে মুসলিমদের বাড়ি যাননি

ফেসবুকে এই দাবিটির প্রমাণ হিসেবে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে, যাতে দেখা যাচ্ছে যে কোনও একটি যন্ত্রের স্ক্রিনে এই ভিডিও চলছে। তার একটি স্ক্রিনগ্র্যাব দেওয়া হল।


বুমের কাছে হোয়্যাটসঅ্যাপের মাধ্যমে যে ভিডিও ফাইল এসেছে, তার একটি স্ক্রিনশট নীচে দেখুন।

(সতর্কীকরণ: মৃতদেহ এবং দেহাংশের ভীতি উদ্রেকারী দৃশ্য)


তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটিকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু অংশে ভেঙ্গে নেয় এবং ছবি বিশ্লেষণকারী টুল ইয়ান্ডেক্স ব্যবহার করে কয়েকটি ওয়েবসাইটের সন্ধান পায়, যেখানে দাবি করা হয়েছে যে এটি তিব্বতি ও বৌদ্ধদের ঐতিহ্যের অংশ 'স্কাই বেরিয়ালের' ছবি। যে সব ছবির সেট এই দাবির সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে, সেগুলি পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্কহীন। ক্যানের মাংসের যে ছবি রয়েছে, সেগুলি এই পণ্যের কিছু জেনেরিক ছবি। আবার মর্গের টেবিলে মানব শরীরের যে ছবি রয়েছে, তা 'হিউমান মিট শপ' নামক ভিডিও গেমের প্রমোশনাল ক্যাম্পেনের ছবি।

সিএনএনের ভিডিও রিপোর্টের ছবি।

একটি কারখানার পারিপার্শ্বিকে মানুষের মৃতদেহ ঝুলছে এবং অনাবৃত মৃতদেহের ছবি আসলে ২০১২ সালে লন্ডনে শুরূ হওয়া মার্কেটিং অ্যাক্টিভেশন 'ওয়েস্কের অ্যান্ড সন রেসিডেন্ট ইভিল হিউম্যান বুচারি'-এর অংশ। এটি লন্ডনের স্মিথফিল্ড মার্কেটের একটি পপ-আপ, যা ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে রেসিডেন্ট ইভিল ৬ নামের ভিডিও গেমের প্রচারের জন্য শুরু হয়েছিল।

ডেইলি মেল ইউকে এই ঘটনার উপর করা প্রতিবেদন এখানে পড়ুন এবং এই পাবলিসিটি স্টান্টের উপর সি এন এন-র কভারেজ দেখুন এখানে

দ্য ডেইলি মেলের প্রতিবেদনে যে ছবি ব্যবহৃত হয় তা নীচে দেখুন।

কৃতজ্ঞতা: দ্য ডেইলি মেল ইউকে


কৃতজ্ঞতা: দ্য ডেইলি মেল ইউকে


কৃতজ্ঞতা: দ্য ডেইলি মেল ইউকে

গাউন পরা এক ব্যক্তি ছুরি দিয়ে মৃতদেহের চামড়া ছাড়াচ্ছে এবং তাদের মুখ ঢাকা দিয়ে দিচ্ছে— এই ভয়াবহ ভিডিওটির সঙ্গে তিব্বতি ও বৌদ্ধদের প্রথা 'স্কাই বেরিয়াল'-এর সম্পর্ক রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

এই ভিডিওর প্রথম দিকের একটি সংস্করণ দেখা যায় ২০১৬ সালে। ভিডিওটির ভীতি উদ্রেককারী এবং হিংসাত্মক ঘটনাবলির জন্য এটি শুধুমাত্র একটি আন্তর্জাতিক এনএসএফডব্লিউ ১৮+ ওয়েবসাইটে দেখা যেত।


ভিডিওটি সম্ভবত সোশাল মিডিয়া এবং ভিডিও প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, কারণ এর বিষয়বস্তু কন্টেন্টের নীতি লঙ্ঘন করে। ফলে এই ভিডিওটির আসল ভার্সন ইন্টারনেটে দেখতে পাওয়া যায় না। এটি শেয়ার করা সাইটগুলিতে যে সব মন্তব্য পাওয়া যায় তা দেখে এবং অন্যান্য তথ্য যাচাইকারী বিষয় থেকে বোঝা যায় এটি 'স্কাই বেরিয়ালেরই' ছবি।

ভিকে.কম নামে একটি ফ্রেঞ্চ কমিউনিটিতে এই ভিডিওটি আপলোড করে হয়েছিল এবং সেখানে আসা একটি মন্তব্যে যা দাবি করা হয়েছে, তা থেকে মনে হয় এটি তিব্বতিদের শেষকৃত্যের ছবি।


ফ্রেঞ্চ থেকে দ্বিতীয় মন্তব্যের অনুবাদ: তথ্য- তিব্বতি ঐতিহ্য: মৃত ব্যক্তির (যে মৃত্যুর আগেই এই বিষয়ে সম্মতি জানিয়ে রেখেছে) দেহ ছোট টুকরো করে কাকেদের খাওয়ার জন্য দেওয়া হয়... শেষ পর্যন্ত এ ছাড়া এই মৃতদেহের আর সবকিছুই অর্থহীন...।"।

স্কাই বেরিয়াল নিয়ে আরও সার্চ করে আমরা নীচের ভিডিওটির সন্ধান পাই:

স্কাই বেরিয়াল বজ্রযান বৌদ্ধদের ঐতিহ্যের একটি অংশ। এই দর্শন অনুসারে ব্যক্তির দেহ আসলে আত্মার বাসস্থান। মৃত্যু হওয়ার পর আত্মা দেহ ছেড়ে চলে যায় এবং তখন দেহের আর কোনও ব্যবহার থাকে না। তাই এই জাগতিক শরীর আবার প্রকৃতিকে ফিরিয়ে দেওয়া উচিত। বৌদ্ধ সন্ন্যাসীরা তাঁদের সম্প্রদায়ের মৃত মানুষদের জন্য এই কাজ করেন। স্কাই বেরিয়াল চিনের বিভিন্ন প্রদেশে পালন করা হয়, এ ছাড়া তিব্বত, কিংঘাই, সিচুয়ান, ইনার মঙ্গোলিয়া, এবং মঙ্গোলিয়া ও ভুটান, ভারতের কিছু অংশে যেমন সিকিমে এবং জান্সকারে এই রীতি পালিত হয়। এই প্রথা বৌদ্ধদের কাছে জীবনের অনিত্যতার প্রতীক। যেহেতু শকুনরা এই দেহ খায়, তাই এই রীতিকে আকাশের নাম দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশ ও সিরিয়ার পুরনো ছবিকে সাম্প্রতিক দিল্লি দাঙ্গার ছবি বলা হল

এই তিব্বতি রীতি পালনের ভিডিও এবং ভাইরাল হওয়া ভিডিও, দুটিতেই দেখা যাচ্ছে উপস্থিত লোকজনদের পোশাক একই রকম। হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে যে লম্বা গাউন দেখা যাচ্ছে, স্কাই বেরিয়াল প্রথার ভিডিওতেও সেই পোশাকই চোখে পড়ছে।

হোয়াটসঅ্যাপের ভিডিওর একটি অংশের ছবি


স্কাই বেরিয়াল ভিডিওর একটি ছবি

এই একই রীতি পালন করচে দেখা যাচ্ছে, এরকম একটি ভিডিও নীচে দেওয়া হল।
Updated On: 2020-03-12T20:08:38+05:30
Claim :   চিন মানব দেহাংশ দিয়ে কর্নড বিফ তৈরি করছে আফ্রিকায় রফতানির জন্য
Claimed By :  Social Media & WhatsApp users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.