কাফন পরে সিএএ বিরোধী প্রতিবাদের ছবিকে বলা হল দিল্লির দাঙ্গার শবদেহ

বুম দেখে ছবিটি ঔরঙ্গাবাদের। সেখানে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনে বিক্ষোভকারীরা শব সেজে প্রতিবাদ জানান।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনে বিক্ষোভকারীরা কাফনে নিজেদের শরীর ঢেকে শব সেজে প্রতিবাদের দু'টি ছবি মিথ্যে করে দিল্লির হিংসার সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। দিল্লির দাঙ্গায় এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৩।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে কাফন পরে শুয়ে আছেন কিছু ব্যক্তি। কাফন হল সাদা একটি লম্বা কাপড়ের খণ্ড যা দিয়ে মৃত দেহ ঢেকে কবর দেওয়া হয়। কাফন গুলির ওপর প্রতিবাদের অঙ্গ হিসেবে 'সিএএ' ও এনআরসি বিরোধী লেখা রয়েছে। ছবি দু'টি এই দাবি সহ ভাইরাল হয়েছে যে, এগুলি নাকি দিল্লির দাঙ্গায় নিহত মুসলমানদের শায়িত লাশের ছবি।

উত্তর-পূর্ব দিল্লির কিছু এলাকায় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের সমর্থক ও বিরোধীদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সেই হিংসায় মৃতের সংখ্যা এখনও পর্যন্ত ৫৩ দাঁড়িয়েছে, আর আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ।

আরও পড়ুন: ২০০৬'র যুদ্ধ বিরোধী প্রতিবাদে কফিনের ছবিকে ইরানের মিসাইল হামলা বলা হচ্ছে

ক্যাপশনে বলা হয়েছে: "কলিজা ফেটে চৌচির হয়ে যাচ্ছে। হে মালিক দিল্লির মসজিদে যেসব হিন্দুরা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে আমার ভাইদের শহীদ করেছে, তুমি শহীদি ভাইদের রক্তের বিনিময়ে ভারতের শাসন ক্ষমতা মুসলমানদের হাতে কবুল করে মোদী সরকারকে ফেরাউনের মতো পতন ঘটিয়ে দাও। আমিন সুম্মা আমিন।"


পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম দেখে যে, মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদে সিএএ-বিরোধীরা মাটিতে শুয়ে নিজেরা কাফন পরে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশ ও সিরিয়ার পুরনো ছবিকে সাম্প্রতিক দিল্লি দাঙ্গার ছবি বলা হল

তথ্য যাচাই

ভাইরাল ছবিগুলি নিয়ে বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। দেখা যায়, ২৪ ফেব্রুয়ারি মহারাষ্ট্রে 'সিএএ' 'এনসিআর' ও 'এনপিআর'-এর বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদের ছবি সেগুলি।

একাধিক স্থানীয় খবরের কাগজে ওই প্রতিবাদের রিপোর্ট বেরয়। একটি স্থানীয় সংবাদ ওয়েবসাইট জানায় যে, শাহিনবাগে অবস্থান-বিক্ষোভের প্রতি সমর্থন জানাতে ঔরঙ্গাবাদে ওই প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদের অঙ্গ হিসেবে বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দেন এবং নিজেদের শরীর ঢেকে নেয় সাদা কাফনে।


নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে ওই অভিনব প্রতিবাদের ছবিগুলি আগেও সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়েছিল।

নীচে দেওয়া হল সেরকমই একটি টুইটে বলা হয় যে, প্রতিবাদ ঔরঙ্গাবাদে সংগঠিত হয়।



২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০-তে ইউটিউবে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। সেখানেও ওই একই প্রতিবাদীদের দেখা যায়।

Updated On: 2020-03-07T11:37:20+05:30
Claim Review :   ছবি দেখায় দিল্লির দাঙ্গায় কাফন পরা লাশের ছবি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story