"আমি সুস্থ আছি, অসুস্থ নই," হাড়ের ক্যানসারের গুজব নস্যাৎ অমিত শাহের

ভাইরাল স্ক্রিনশটে দাবি করা হয়েছে, নিজের আরোগ্য কামনা করে রমজানে মুসলমানদের প্রার্থনা করতে অনুরোধ করেছেন অমিত শাহ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টুইটারে পোস্ট করে, তাঁর স্বাস্থ্য সম্পর্কে সব জল্পনা-কল্পনা উড়িয়ে দিয়েছেন। টুইটার পোস্টে উনি বলেছেন যে, তাঁর শারীরিক অবস্থা সংক্রান্ত যে সব গুজব ছড়াচ্ছে সেগুলি ভিত্তিহীন। এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে তাঁর দায়িত্ব পালন করার জন্য তিনি অনেক রাত পর্যন্ত কাজ করে চলেছেন।

একটি মিথ্যে টুইটে দাবি করা হয়েছে যে, অমিত শাহ স্বীকার করেছেন যে, উনি হাড়ের ক্যানসারে ভুগছেন। ভাইরাল স্ক্রিনশটে, শাহ অসুস্থতার কথা স্বীকার করেছেন, এমনটাই দেখানোর চেষ্টা হয়েছে। বলা হয়েছে, তাঁর ঘাড়ের পেছন দিকে টিউমার ধরা পড়েছে, এবং মুসলমান সম্প্রদায়কে অনুরোধ করেছেন যে তাঁরা যেন রামজানের সময় ওনার স্বাস্থ্যের জন্য প্রার্থনা করেন।

হিন্দিতে লেখা মিথ্যে টু্ইটের বয়ান: "मेरे की जनता, मेरे द्वारा उठाया गया हर एक कदम देश हित में ही रहा है, मेरे किसी जाती या धर्म विशेष के व्यक्ति से कोई दुश्मनी नहीं है, कुछ दिनों से बिगड़े स्वास्थ के चलते देश की जनता की सेवा नहीं कर पा रहा हूं, यह बताते हुए दुख हो रहा है मुझे गले के पिछले हिस्से में बोन कैंसर हुआ है, में आशा करता हूं, रमज़ान के इस मुबारक महीने में मुस्लिम समाज के लोग भी मेरे स्वास्थ के लिए दुआ करेंगे औरजल्द ही स्वस्थ हो कर आपकी सेवा करूँगा।"

ভুয়ো টুইটটির বাংলায় তর্জমা: "আমার মানুষজন, আমার প্রতিটি পদক্ষেপ আমার দেশের স্বার্থে নেওয়া। কোনও সম্প্রদায় বা ধর্মের কোনও ব্যক্তির সঙ্গে আমার কোনও শত্রুতা নেই। কিছু দিন ধরে আমার শরীরটা ভাল যাচ্ছে না। তাই এই সময়টা আমি আমার দেশবাসীর সেবা করতে পারিনি। দুঃখের সঙ্গে বলতে হচ্ছে যে, আমার গলার পেছন দিকে হাড়ের ক্যানসার হয়েছে। আশা করি এই রামাদানের শুভ মাসে মুসলমান সমাজ আমার আরোগ্যের জন্য প্রার্থনা করবেন। তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠে আমি আবার আপনাদের সেবা করব।"

স্ক্রিনশটটি একাধিকবার টুইটার আর ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া এই টুইটের সত্যতা জানতে বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনেও একই বার্তা আসে।

তথ্য যাচাই

ওই স্ক্রিনশটটির মধ্যে অনেকগুলি অসঙ্গতি লক্ষ করে বুম। তার মধ্যে ছিল ভাষার ব্যবহার এবং টুইটটিতে অক্ষরের সংখ্যা।

টুইটের ক্ষেত্রে টুইটারের বেঁধে দেওয়া সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি অক্ষর ছিল এটিতে।

নীচে একটি তুলনামূলক ছবি দেওয়া হল।


আমরা আরও লক্ষ করি যে, বেশ কয়েকটি হিন্দি শব্দের বানান ভুল হয়েছে। যেমন, जाति (বর্ণ) হয়ে গেছে 'जाती,' 'स्वास्थ्य (স্বাস্থ্য) হয়েছে 'स्वास्थ', এবং 'और जल्द' (তাড়াতাড়ি) দুটো শব্দ হওয়া সত্ত্বেও একটি শব্দ হিসেবে লেখা হয়েছে।

তাছাড়া শাহের টাইমলাইনে ওই ধরনের কোনও টুইট আমরা দেখতে পাইনি। তাঁর সাম্প্রতিকতম টুইট হল ৮ মে ২০২০ তে সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেলদের সঙ্গে তার মিটিং সংক্রান্ত টুইটটি তাঁর সাম্প্রতিকতম।

বিশাখাপত্তনমে গ্যাস লিকের ঘটনার পর পরিস্থিতি পর্যালোচনা করার জন্য জতীয় বিপর্যয় মেকাবিলা বাহিনী (এনডিএমএ) এর মিটিংয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে অমিত শাহও উপস্থিত ছিলেন।



আরও পড়ুন: অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে তৈরি সব টুইটার প্রোফাইলগুলি 'ভেকধারী'

Updated On: 2020-05-13T10:32:29+05:30
Claim Review :  
Claimed By :  Twitter users & WhatsApp
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story