পাকিস্তানে বিরোধীদের সমাবেশে ভারতীয় পতাকার ছবিটি ভুয়ো

বুম করাচিতে আয়োজিত পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলির সমাবেশের ছবি ও ভিডিও বিশ্লেষণ করে দেখে সেখানে কোনও ভারতীয় পতাকা নেই।

পাকিস্তানে ইমরান খান সরকারের বিরুদ্ধে যৌথ বিরোধী সমাবেশে ভারতীয় পতাকার ছবিটি হল একটি জোড়াতালি দিয়ে তৈরি করা ভুয়ো ছবি। বুম দেখে, ওই সমাবেশের অন্যান্য ছবিতে ভারতীয় পতাকার কোনও অস্তিত্ব নেই। আর যে তেরঙ্গা পতাকা ছবিগুলিতে দেখা যাচ্ছে, সেগুলি হল পাকিস্তানের বিরোধী পাখতুনখওয়া মিল্লি আওয়ামি পার্টির পতাকা।

১৮ অক্টোবর ২০২০তে করাচির পাকিস্তান ডেমক্র্যাটিক মুভমেন্ট নামক বিরোধী জোটের জনসভার পরিপ্রেক্ষিতে ভাইরাল ছবিটি শেয়ার করা হচ্ছে। পাকিস্তানের চারটি বড় বিরোধী দল – পকিস্তান মুসলিম লিগ (নাওয়াজ), পাকিস্তান পিপলস পার্টি, জামাত উলেমা-এ-ইসলাম (ফজলুর), পাখতুনখওয়া মিল্লি আওয়ামি পার্টি ও কিছু ছোট দল এক জোট হয়েছে। তারা মূল্য বৃদ্ধি, বিদ্যুৎ ছাঁটাই, এবং গত নির্বাচনে ইমরান খানের তেহরিক-এ-ইনসাফ পার্টির কারচুপির অভিযোগের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে

ছবিটির ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "৭০ বছর ধরে পাকিস্তানের পতাকা উড়িয়ে আমাদের বিব্রত করা হত। কিন্তু গতকাল করাচির একটি সমাবেশে ভারতীয় পতাকা ওড়ান হল।"


টুইটটি দেখা যাবেএখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

(হিন্দিতে লেখা ক্যপশন: 70 सालो तक हमे पाकिस्तान का झंडा लहरा कर चिढ़ाया जाता था । कल करांची की रैली में हिंदुस्तान के झंडे लहराये गए ।)টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে ভাইরাল

ওই ক্যাপশন দিয়ে সার্চ করলে দেখা যায়, সম্পাদনা করা ভুয়ো ছবিটি মিথ্যে দাবি সমেত ফেসবুকেও শেয়ার করা হচ্ছে।


আরও পড়ুন: বিজেপি নেতাকে জুতোর মালা পরানোর ভাইরাল ক্লিপটি আসলে মধ্যপ্রদেশের

তথ্য যাচাই

বুম ওই সমাবেশের ছবি ও ফেসবুকে লাইভ সম্প্রচারগুলি বিশ্লেষণ করে। ভাইরাল ছবিটির যে অংশে ভারতের পতাকাটি দেখা যাচ্ছে, আসল ছবিগুলিতে কিন্তু সেখানে অশোক চক্র লাগানো কোনও তেরঙ্গা দেখা যাচ্ছে না।

আমরা পাকিস্তানের রাজনৈতিক পার্টিগুলি ও সাংবাদিকদের আপলোড করা ছবি ও ভিডিওগুলিও খুঁটিয়ে দেখি। কিন্তু সেগুলিতেও ভারতীয় পতাকা কোথাও দেখা যায় না।ওপর থেকে তোলা এই ছবিতে সমাবেশের সেই অংশটাই দেখা যাচ্ছে, যেটি ভাইরাল ছবিতেও দেখা যাচ্ছে। কিন্ত অশোক চক্র লাগানো কোনও তেরঙ্গা পতাকা দেখা যাচ্ছে না সেটিতে।ওই সমাবেশে কিছু পতাকা দেখা যাচ্ছে যেগুলির সংঙ্গে ভারতীয় পতাকার মিল আছে। কিন্তু সেগুলির তিনটি রঙ লম্বালম্বি ভাবে আছে আর মাঝখানে রয়েছে একটি তারা। সেটি পাখতুনখওয়া মিল্লি আওয়ামি দলের পতাকাদু'টি পতাকার মধ্যে তফাতটা নীচের ছবিতে দেখা যাচ্ছে।

পতাকা দুটির তুলনা।

সমাবেশের আসল ছবি ও ভাইরাল ছবিটি মিলিয়ে দেখলে স্পষ্ট হয় যে, ভাইরাল ছবিটিতে ভারতের পতাকা বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। ভাইরাল ছবিতে যে হলুদ দাগ দেওয়া জায়গায় ভারতের পতাকা দেখানো হয়েছে, আসল ছবিতে সেই জায়গাটিতে কোনও ভারতীয় পতাকা নেই। দু'টি ছবি যে হুবহু এক তা নীল চৌক অংশগুলি লক্ষ্য করলেই পরিষ্কার হয়ে যায়।


১৮ অক্টেবর ২০২০ তে পাকিস্তান পিপলস পার্টি (নওয়াজ)-এর ফেসবুক লাইভে, ওপর থেকে তোলা ওই সমাবেশের ছবি দেখানো হয়েছে। প্রথম ৩০ সেকেন্ডে জুম করে একটি সবুজ আলোর দিকে এগিয়ে যায় ক্যামেরা। কিন্তু সেখানে কাউকে ভারতীয় পতাকা নাড়াতে দেখা যাচ্ছে না, যেমনটা দেখা যাচ্ছে সাজানো ছবিটিতে। ওই লাইভ ছবি থেকে স্পষ্ট হচ্ছে যে, সেখানে কোনও ভারতীয় পতাকা ছিল না এবং সেটি পরে কেটে জুড়ে দেওয়া হয়।

যদিও আরও ছবি রয়েছে তবু ওই সমাবেশের একটি মাত্র ছবি‌ই শেয়ার করা হচ্ছে । কিন্তু অন্য ছবিগুলির কোনওটিতেই ভারতীয় পতাকার উপস্থিতি লক্ষ করা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন: এক মহিলার দোকান ভাঙচুরের ভিডিওতে লাগল ধর্মীয় রঙ

Updated On: 2020-12-23T13:43:08+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি পাকিস্তানে বিরোধীদের প্রতিবাদে করাচিতে ভারতের পতাকা তোলা হয়েছে
Claimed By :  Facebook Posts & Twitter Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story