কানপুরে পুলিশকে যুবকের লাথি মারার ছবিকে পশ্চিমবঙ্গের ঘটনা বলা হল

বুম যাচাই করে দেখেছে ভাইরাল ছবিটি ২০১৭ সালের জুন মাসের। কানপুরে আইসিইউতে এক নাবালিকা ধর্ষিত হলে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে।

সোশাল মিডিয়ায় উত্তরপ্রদেশের কানপুরে পুলিশকে প্রহারের একটি পুরনো ছবি বিভ্রান্তিকর দাবি সহ ছড়ানো হচ্ছে। ভাইরাল পোস্টে মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে মুসলিম আধ্যুষিত এলাকায় পশ্চিমবঙ্গে প্রহারের দৃশ্য এটি। ছবিটি শেয়ার করে তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থিত পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান সরকারের সমালোচনা করা হয়েছে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে রাস্তার ধারে ফুটপাতে লুটিয়ে থাকা এক পুলিশ কর্মীকে লাথি মারতে উদ্ধত হয়েছে ছাই রাঙা গেঞ্জি ও নীল ট্রাউজার পরা এক যুবক। পথচলতি জনতারা এই ঘটনা তাকিয়ে দেখছেন অনেকে।

ভাইরাল হওয়া ফেসবুক পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ''পশ্চিম বাংলায় মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় তৃণমূলের পুলিশ প্রশাসন ব্যর্থ। দেশের স্বার্থে অবিলম্বে সেনা বাহিনী মোতায়েন করা উচিত।''

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন: না, গ্রাম্য দুস্থ্যদের নিয়ে কুমন্তব্য করেননি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়

তথ্য যাচাই

বুম ছবিটি রিভার্স ইমেজ সার্চ করে জানতে পারে ছবিটি পশ্চিমবঙ্গের সাম্প্রতিক কোনও ঘটনা নয়, যেমনটি ওই ফেসবুক পোস্টে দাবি করা হয়েছে।

মূল ছবিটি ২০১৭ সালের জুন মাসের। উত্তরপ্রদেশের কানপুরের জাগৃতি হাসপাতালে আইসিইউতে থাকা এক নাবালিকা ধর্ষিত হলে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে।

পুলিশকে প্রহারের এই ছবিটি দেখা যাবে ২০১৭ সালের ২১ জুন প্রকাশিত দ্য সান-এর প্রতিবেদনে।

২০১৭ সালের ২১ জুন প্রকাশিত দ্য সান-এর প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।

অসুস্থ ও সংজ্ঞা হারানোর সমস্যা নিয়ে স্কুল পড়ুয়া এক নাবালিকাকে হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। মেয়েটিকে হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় ইঞ্জেকশান দিয়ে অচৈতন্য করে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

ঘটনাটি জানাজানি হলে বিক্ষুব্ধ জনতা হাসপাতালের বাইরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ভাঙচুর চালায় জনতা। পুলিশ থামাতে গেলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ শুরু হয়। জনতা পুলিশের উপর চড়াও হয়। প্রহৃত হয় পুলিশকর্মীরা। তিনজন পুলিশ কর্মী আহত হন, তাদের মধ্যে গুরুতর জখম দু'জনকে আইসিউতে ভর্তি করা হয়েছিল।

নিউজ নেশনের ভিডিওর ১৯ সেকেন্ড সময়ে দেখা যাবে ওই তরুনের পুলিশ আধিকারিককে পদাঘাতের দৃশ্যটি।

ভিডিও ও ছবি সহ ডেইলি মেল-এর প্রতিবেদনটি পড়া যাবে এখানে

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের পুরনো ছবি শেয়ার করে মেটিয়াবুরুজে লকডাউন নীতি ভঙ্গ বলা হল

সম্প্রতি আসানসোলের চুরুলিয়ায় কোয়রান্টিন সেন্টার খোলাকে কেন্দ্র করে বিক্ষুব্ধ জনতা ও পুলিশের সংঘর্ষে ৫ জন পুলিশ কর্মী ও স্থানীয় কয়েকজন আহত হয়েছেন।

লকডাউনের সময় পুলিশের সঙ্গে জনতার বচসার খবর এসেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন সহ পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলা থেকে। মালদহের সামসিসে চায়ের দোকানের ভিড় সরাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। তরপর শতাধিক গ্রামবাসীরা লাঠি-ইঁট নিয়ে পুলিশের উপর চড়াও হয়। বিস্তারিত পড়ুন এখানে

Updated On: 2020-04-19T17:52:06+05:30
Claim Review :   ছবির দাবি পশ্চিমবঙ্গে পুলিশকে প্রহার করছে জনতা
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story